scorecardresearch

বড় খবর

রাজ্যে পরিবেশ-বান্ধব বাজিতে ছাড়, সুপ্রিম রায়ই বহাল কলকাতা হাইকোর্টের

কালীপুজো, দীপাবলির দিন রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত গ্রীন বাজি ফাটানো যাবে।

রাজ্যে পরিবেশ-বান্ধব বাজিতে ছাড়, সুপ্রিম রায়ই বহাল কলকাতা হাইকোর্টের
বাংলায় পোড়ানো যাবে গ্রীন বাজি।

এবার দীপাবলিতে বাংলায় পরিবেশ বান্ধব বাজি পোড়ানো যাবে। ছাড় রয়েছে বিক্রিতেও। সুপ্রিম কোর্টের বাজি সংক্রান্ত নির্দেশ বহাল রেখে জানিয়ে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। তবে, গ্রীন বাজি পোড়ানোর সময় নির্ধিষ্ট করে দিয়েছে আদালত। বিচারপতি রাজশেখর মান্থার নির্দেশ, কালীপুজো, দীপাবলির দিন রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত বাজি ফাটানো যাবে। নির্দেশ ঠিক মতো পালন করা হচ্ছে কিনা সেদিকে নজর রাখবে রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ।

কালি পুজো ও দিপাবলীতে কোনও ধরনের বাজিই ফাটানো যাবে না বলে নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। হাইকোর্টের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছিল আতসবাজি উন্নয়ন সমিতি। বিচারপতি এনএম খানউইলকর ও বিচারপতি অজয় রাস্তোগীর বেঞ্চে সেই মামলার শুনানি ছিল।

সোমবারই বাজি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের রায় খারিজ হয়ে যায় সুপ্রিম কোর্টে। শীর্ষ আদালতের দাবি, পরিবেশ বান্ধব বাজি বিক্রি করা যেতে পারে। নির্দেশ মেনে পরিবেশ বান্ধব বা গ্রীন বাজি বিক্রি হচ্ছে কি না, তা নিশ্চিত করতে হবে প্রশাসনকে। তবে সব বাজি নিষিদ্ধ, এমনটা হতে পারে না বলেই জানিয়ে দেয় সুপ্রিম কোর্ট। নির্দেশে বলা হয়েছে, বাতাসের মান যেখানে খারাপ, সেখানে পরিবেশ বান্ধব বাজিও ফাটানো যাবে না। তার জন্য পুলিশকে উপযুক্ত পদক্ষেপ করতে হবে।

এ দিন কলকাতা হাইকোর্টে বাজি সংক্রান্ত মামলায় বিচারপতি মান্থা জানিয়েছেন, বাজি সংক্রান্ত সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশই চূড়ান্ত। এক্ষেত্রে আর হাইকোর্ট হস্তক্ষেপ করবে না। অর্থাৎ, আলোর উৎসবে পোড়ানো যাবে পরিবেশ বান্ধব বাজি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Fire crackers in diwali kolkata high court supports supreme courts order