scorecardresearch

বড় খবর

আলোর উৎসব ভেস্তে দিতে চোখ রাঙাচ্ছে সিত্রাং, জেলায়-জেলায় সাইক্লোন-অ্যালার্ট

কালীপুজোর মুখে ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কবার্তা। রাজ্যের একাধিক জেলায় জারি একগুচ্ছ নির্দেশিকা।

আলোর উৎসব ভেস্তে দিতে চোখ রাঙাচ্ছে সিত্রাং, জেলায়-জেলায় সাইক্লোন-অ্যালার্ট
ধেয়ে আসছে সিত্রাং, একাধিক জেলায় চূড়ান্ত সতর্কতা জারি।

ধেয়ে আসছে সিত্রাং! শক্তিশালী এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব সবচেয়ে বেশি কোথায় পড়তে চলেছে? তা নিয়েই চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। তবে আবহাওয়া দফতরের সর্বশেষ পাওয়া পরিসংখ্যান জানাচ্ছে সিত্রাংয়ের প্রভাব পড়তে পারে সুন্দরবনে। এছাড়াও মূলত দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কা থাকছে বলে জানিয়েচে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

শীতের মুখে ফের একবার ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কবার্তা। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাব পড়তে শুরু করবে আগামী সোমবার অর্থাৎ ২৪ অক্টোবর থেকে। ওই দিন কলকাতা-সহ দুই ২৪ পগরনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, পশ্চিম মেদিনীপুরে ঝোড়ো হাওয়ার দাপট দেখা যাবে। ২৪ অক্টোবর দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে ৪৫-৫৫ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। হাওয়ার সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় ৬৫ কিলোমিটার। এরই পাশাপাশি কলকাতা, হাওড়া, হুগলি ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ক্ষেত্রে ওই দিন ৩০-৪০ কিমি বেগে ঝোড়া হাওয়া বওয়ার সম্বাবনা প্রবল।

আগামী ২৪ থেক ২৫ অক্টোবরের মধ্যে ঘূর্ণিঝড়টির বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে পৌঁছনোর আশঙ্কা করা হচ্ছে। ২৫ অক্টোবর ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব বেশি থাকবে দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলায়। ওই দিন ৯০-১০০ কিমি বেগে ঝড়ের দাপট থাকার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১১০ কিলোমিটার। আগামী ২৫ তারিখ অর্থাৎ মঙ্গলবার কলকাতা, হাওড়া, হুগলি ও পশ্চিম মেদিনীপুর-সহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতেও ৩৩-৪৫ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে।

আরও পড়ুন- ধনতেরস কী ও এর গুরুত্ব, ২৭ বছর পর দু’দিন পড়েছে এই শুভমুহূর্ত

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, আজই বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ তৈরি হতে পারে। সেই নিম্নচাপ অতি গভীর হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে আগামিকাল অর্থাৎ ২৩ অক্টোবর। সেই অতি গভীর নিম্নচাপই ঘূর্ণিঝড়ে রূপান্তরিত হওয়ার প্রবল আশঙ্কা রয়েছে আগামী ২৪ অক্টোবর নাগাদ। ২৫ তারিখ অর্থাৎ মঙ্গলবার সেটির বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের কাছে পৌঁছনোর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। অর্থাৎ আলোর উৎসব ভেস্তে দিতে দুয়ারে দাঁড়িয়ে দুর্যোগ। কালীপুজোর দিন অর্থাৎ ২৪ অক্টোবর ও তার পরের দিনেও দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা প্রবল। দক্ষিণ ও উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতেও বৃষ্টি চলবে।

আরও পড়ুন- Ajker Rashifal Bengali, 22 October 2022: শনিদেবের কৃপায় সৌভাগ্য লাভ হবে কার? পড়ুন রাশিফল

ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা থাকায় এবার ফের একবার মৎস্যজীবীদের জন্যও জারি হয়েছে চূড়ান্ত সতর্কতা। ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়লে উত্তাল হতে পারে সমুদ্র। সেই কারণেই ২৩ অক্টোবর থেকে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। যারা গভীর সমুদ্রে রয়েছেন তাঁদের ২২ অক্টোবরের মধ্যেই ফিরে আসতে আবেদন করা হয়েছে। এছাড়াও সুন্দরবনে আগামী ২৪ ও ২৫ অক্টোবর ফেরি সার্ভিস বন্ধ রখার ঘোষণা করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে। এরই পাশাপাশি দিঘা, মন্দারমণি, শঙ্করপুর-সহ রাজ্যের সমুদ্র তীরবর্তী পর্যটনকেন্দ্রগুলিতেও কড়া নজরদারি থাকছে। পর্যটকদের সমুদ্রে নামার ক্ষেত্রেও থাকছে নিষেধাজ্ঞা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: High alert impose several district due to cyclone sitrang