scorecardresearch

বড় খবর

বিধানচন্দ্র রায় হাসপাতালের নাম বদলে কেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় হবে? প্রবল অসন্তোষ IIT-খড়্গপুরের প্রাক্তনীদের

বিধানচন্দ্র রায়ের মতো কিংবদন্তী চিকিৎসকের বদলে, হঠাৎ‍ করে বিজেপির পূর্বসুরী জনসঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের নামে কেন

বিধানচন্দ্র রায় হাসপাতালের নাম বদলে কেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় হবে? প্রবল অসন্তোষ IIT-খড়্গপুরের প্রাক্তনীদের

খড়গপুর আইআইটির ৬৬তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখে হাসপাতালের নাম বদলের মন্তব্য শুনেই আইআইটি খড়গপুরে শুরু হয় বিক্ষোভ। সমাবর্তন অনুষ্ঠান শুরু হতে না হতেই, বিক্ষোভ শুরু হয় আইআইটি ক্যাম্পাসের বাইরে। আইআইটির তৈরি ৭৫০ শয্যার হাসপাতালটির প্রথমে নাম হওয়ার কথা ছিল বিধানচন্দ্র রায়ের নামে, বিসি রায় ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড রিসার্চ হাসপাতাল।

কিন্তু, উদ্বোধনের কয়েকদিন আগে হঠাতই বদলে করা হয় শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি মেডিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড রিসার্চ! বিধানচন্দ্র রায়ের মতো কিংবদন্তী চিকিৎসকের বদলে, হঠাৎ‍ করে বিজেপির পূর্বসুরী জনসঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের নামে কেন হাসপাতালের নামকরণ করা হল? বর্তমানে এই প্রশ্ন তুলেছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের প্রাক্তনীরাও। টালবাহানার মাঝেই বন্ধ হল উদ্বোধন।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের তরফে ইনস্টিটিউটের রেজিস্ট্রার তমাল নাথের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, “কিছু প্রযুক্তিগত কারণে উদ্বোধন স্থগিত করা হয়েছিল।” প্রযুক্তিগত কারণে বিশদভাবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি এখনই এই বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নই।” সূত্রের খব, হাসপাতালের এই নামকরণ নিয়ে আইআইটি খড়গপুরের প্রাক্তনীদের একাংশ চিঠি দেয় সরকারকে।

ডাঃ বি সি রায়ের নামকরণের আগেই আইআইটি-খড়গপুরের দুটি মেডিকেল ফ্যাসিলিটি রয়েছে কর্মী, শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার জন্য। ২০০৬ সালে এই ফ্যাসিলিটিগুলিকে সুপার-স্পেশালিটি করার প্রস্তাব ওঠে। ২০০৭ সালে তার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছিলেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি এ পি জে আবদুল কালাম। ইনস্টিটিউট হাসপাতাল পরিচালনার জন্য একটি সংস্থাও গঠন করেছিল।

ইনস্টিটিউতের এক সূত্র জানায়, “আসল পরিকল্পনাটি হ’ল চিকিৎসা কেন্দ্রটিকে শেষ পর্যন্ত হাসপাতালে পরিণত যাতে করা যায়। তা অবশ্য ঘটেনি। যেহেতু মেডিকেল সেন্টারে নিযুক্ত কর্মীরা কোনও সংস্থার জন্য কাজ করতে চান না। সেই প্রস্তাব বাতিল হওয়ার পরেও মেডিকেল সেন্টার এবং হাসপাতালের আলাদা আলাদা নাম থাকতে হবে সেই বিষয়টি সামনে আনা হয়। গত বছর ডিসেম্বরে শ্যামা প্রসাদ মুখোপাধ্যায় এবং গভর্নর বোর্ড কর্তৃক এটি অনুমোদনের পরে ইনস্টিটিউট হাসপাতালের নতুন নামকরণের প্রস্তাব উত্থাপন করেছিল।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Iit kharagpur hospital name change modi alumni object