scorecardresearch

বড় খবর

‘মান্ডালা আর্ট’-এ নজিরবিহীন কীর্তি, ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম কাটোয়ার নিশার

বছর পঁচিশের তরুণীর কীর্তিতে দারুণ খুশি তাঁর পরিবার, শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রতিবেশীরাও।

‘মান্ডালা আর্ট’-এ নজিরবিহীন কীর্তি, ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম কাটোয়ার নিশার
মান্ডালা আর্টে নজিরবিহীন কীর্তি দেখিয়ে সেরার সেরা নিশা দত্ত। ছবি: প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়।

ছোটবেলায় আাঁকার প্রতি ভালোবাসা থেকেই রং, তুলি নিয়ে আঁকাঝোকা করতেন নিশা। তবে এই ভালোবাসা-শখই যে একদিন তাঁকে জগৎজোড়া স্বীকৃতি এনে দেবে তা অবশ্য ভাবেননি নিশা। বিশেষ কৃতিত্বের স্বীকৃতি স্বরূপ ইণ্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস থেকে সম্মানিত হয়েছেন নিশা দত্ত। মান্ডালা আর্টে অসামান্য কৃতিত্বের স্বীকৃতি স্বরূপ ইণ্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নথিভুক্ত হয়েছে বঙ্গতনয়া নিশা দত্তর নাম। তিনি পেয়েছেন ইণ্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসের মানপত্র ও মেডেল । এমন পুরস্কার প্রাপ্তিতে নিশা যেমন খুশি তেমনই খুশি তাঁর গোটা পরিবার।

বছর পঁচিশের নিশা দত্তর বাড়ি পূর্ব বর্ধমানে। কাটোয়া শহরের সার্কাস ময়দান ইন্দিরা পল্লির বাসিন্দা নিশা। ২০১৯ সালে তিনি কাটোয়া কলেজ থেকে বিএ পাশ করেন। নিশার বাবা তরুণ কুমার দত্ত উত্তর প্রদেশের একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করতেন। বর্তমানে তিনি অবসর গ্রহণ করেছেন। মা তন্দ্রা দত্ত সাধারণ গৃহবধূ । নিশার দাদা রণিত দত্ত পিএইচডি করতে গিয়েছেন বেঙ্গালুরুতে। আঁকার ব্যাপারে নিশাকে প্রেরণা জুগিয়েছেন তাঁর বাবা-মা। তাই আজ মেয়ের এই সাফল্যে তাঁরাও যারপরনাই খুশি।

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে নিশা দত্ত।

কাটোয়ার বাড়িতে নিশার আঁকার জন্যই ছাড়া রয়েছে একটি ঘর। সেই ঘরের যে দিকেই তাকানো হোক দেখা যাবে শুধু রং,তুলি-সহ নানা ছবি, রয়েছে আঁকার নানা সরঞ্জাম। রবিবার ইণ্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলাকে নিশা জানান, ছোট বয়স থেকেই তাঁর আঁকার প্রতি ঝোঁক রয়েছে। ছোটবেলায় রং পেন্সিল আবার কখনও রং-তুলি নিয়ে আঁকার চেষ্টা করতেন। কখনও কোনও আঁকার শিক্ষকের কাছ থেকে প্রথাগত শিক্ষা নেননি নিশা।

আরও পড়ুন- বিপদে-আপদে ভরসা দেবী ঘোমটাকালী, ভক্তদের বিশ্বাস তিনিই দেন পরিত্রাণের উপায়

নিশা বলেন, ”২০১৮ সালে হঠাৎ করেই ইউটিউব-এর মাধ্যমে মান্ডালা আর্টের ব্যাপারে জানতে পারি। ইউটিউব ঘেঁটেই মান্ডালা আর্টের বিষয়ে নানা তথ্য জানি। শখের বসেই তিব্বতের বিখ্যাত ’মান্ডালা আর্ট’ নিজে রপ্ত করা শুরু করি। প্রথমে খাতা পেনে ও পরে কার্ড বোর্ডের উপর ’মান্ডালা আর্ট’ ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা শুরু করি। পরে অ্যাক্রিলিক রঙ ও তুলির সাহায্যে সেই আর্ট ফুটিয়ে তোলা শুরু করি। প্রথমে ’মান্ডালা আর্ট’ রপ্ত করাটা আমার কাছে ছিল প্যাশন। এখন সেটাই প্রফেশন হয়ে গিয়েছে।”

নিশা আরও জানিয়েছেন, মান্ডালা আর্টে বিশেষ কৃতিত্বের স্বীকৃতি স্বরূপ ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে তাঁর নাম নথিভুক্ত হয়েছে। ইণ্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসের মানপত্র ও মেডেল চলতি আগষ্ট মাসের প্রথম সপ্তাহেই তিনি পেয়েছেন। নিজের এই অঙ্কন শৈলীকে কাজে লাগিয়ে আগামী দিনে আর্ন্তজাতিক প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ারও ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন নিশা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: India book of records awarded katoas nisha dutta for mandala art486169