scorecardresearch

বড় খবর

প্ল্যাটফর্মের সিটে রাখা মোবাইল উদ্ধারে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ, মর্মান্তিক পরিণতি নার্সের

ট্রেনে উঠতেই প্ল্যাটফর্মের সিটে ফেলে আসা মোবাইল ফোনের কথা মনে পড়ে যায় তরুণীর।

প্ল্যাটফর্মের সিটে রাখা মোবাইল উদ্ধারে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ, মর্মান্তিক পরিণতি নার্সের
চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে মাথায় চোট পেয়েছিলেন এই তরুণী। ছবি: অরিন্দম বসু।

প্ল্যাটফর্মের সিটেই ফেলে গিয়েছিলেন মোবাইল ফোনটি। ভুল করে ফোন ফেলেই স্টেশনে ঢোকা ট্রেনে উঠে পড়েন এক নার্সিং স্টাফ। ট্রেনে উঠতেই ফোনের কথা মনে পড়ে যায় তরুণীর। চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু নার্সের। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের খড়গপুর শাখার ফুলেশ্বর স্টেশনে।

ঠিক কী ঘটেছিল শুক্রবার? জানা গিয়েছে শিবাণী ঘোড়ুই নামে বছর চব্বিশের ওই তরুণী হাওড়ার সঞ্জীবনী হাসপাতালে চাকরি করতেন। তাঁর বাড়ি পশ্চিম মেদিনীপুরে গড়বেতায়। বৃহস্পতিবার তাঁর নাইট ডিউটি ছিল। সেই ডিউটি সেরে শুক্রবার সকালে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। ট্রেন ধরার জন্য ফুলেশ্বর স্টেশনে এসেছিলেন তরুণী। প্ল্যাটফর্মে ট্রেন ঢোকার কিছুক্ষণ আগেই তিনি পৌঁছে গিয়েছিলেন। প্ল্যাটফর্মের সিটে বসেই নিজের মোবাইল ফোনটি দেখছিলেন শিবাণী।

তবে এরই মধ্যে চলে আসে ট্রেন। তড়িঘড়ি সিট ছেড়ে ট্রেন উঠে পড়েন শিবাণী। তবে তাঁর মোবাইল ফোনটি তিনি ফেলে এসেছিলেন প্ল্যাটফর্মের সিটেই। ট্রেনে উঠেই মোবাইল ফোনের কথা মনে পড়ে যায় তরুণীর। নিজের মোবাইল উদ্ধার করতে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ দেন শিবাণী। তাতেই মাথায় চোট লাগে তাঁর।

আরও পড়ুন- মুষলধারে বৃষ্টির পূর্বাভাস একাধিক জেলায়, বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া

দ্রুত তরুণীকে উদ্ধার করে উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন রেল পুলিশের কর্মীরা। পরে উলুবেড়িয়া হাসপাতাল থেকে শিবাণীকে নিয়ে যাওয়া হয় হাওড়ার সঞ্জীবনী হাসপাতালে। যদিও শেষ রক্ষা হয়নি। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

সঞ্জীবনী হাসপলাতালে বছর ছ’য়েক ধরে চাকরি করছিলেন শিবাণী। তাঁর অকস্মাৎ এই পরিণতিতে শোকাহত সহকর্মীরা। শোকের ছায়া নেমে এসেছে শিবাণীর গড়বেতার বাড়িতেও। চলন্ত ট্রেন থেক পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছিলেন শিবাণী, তার জেরেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Jump from the moving train to rescue the mobile kept in the platform seat nurse died