বড় খবর

এনআরসি-তে আছি, সিএএ-তে নেই, উত্তরবঙ্গের পথে কামতাপুর প্রগ্রেসিভ পার্টি

শনিবার দুপুরে ময়নাগুড়ির টেকাটুলিতে ২৭ নাম্বার জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে সিপিপি। এই দীর্ঘ অবরোধের জেরে বন্ধ থাকে যান পরিষেবাও।

জাতীয় সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদে সামিল কামতাপুর প্রগ্রেসিভ পার্টি। ছবি- সৌমিত্র সান্যাল

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ও এনআরসিকে এক বন্ধনীতে রেখে যখন মুখরিত দেশের বিভিন্ন অঞ্চল, ঠিক তখনই অন্য ছবি ধরা পড়ল ময়নাগুড়িতে। এদিন জাতীয় নাগরিকপঞ্জির সমর্থনে কিন্তু সংশোধিত নাগরিক আইনের বিরোধিতায় পথে নামল কামতাপুর প্রগ্রেসিভ পার্টি (কেপিপি)। শনিবার দুপুরে ময়নাগুড়ির টেকাটুলিতে ২৭ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে কেপিপি। দীর্ঘক্ষণ অবরোধের জেরে তীব্র যানজট তৈরি হয় সংলগ্ন এলাকায়।

আরও পড়ুন: আসামের ডিটেনশন ক্যাম্পে ফের প্রাণ গেল বন্দির, মৃতের সংখ্যা ২৯

কেপিপি সুপ্রিমো অতুল রায় বলেন, “মূলত কেন্দ্রীয় সরকারের সিএএ-র প্রতিবাদে এই অবরোধ করা হয়। কামতাপুর এলাকার বাসিন্দারা এই এলাকার ভূমিপুত্র। কেন্দ্রীয় সরকার সিএএ বিল পাশ করানোর ফলে বাংলাদেশ থেকে আসা বহু অনুপ্রবেশকারী ভারতবর্ষের নাগরিকত্ব পেয়ে যাবে। ফলে কামতাপুরের বাসিন্দারা সংক্ষালঘু হয়ে পড়বে। তাই আমরা এনআরসির পক্ষে কিন্ত সিএএ-এর বিরোধী।”

টায়ার জ্বালিয়ে চলল বিক্ষোভ প্রদর্শন। ছবি- সৌমিত্র সান্যাল

আরও পড়ুন: ‘সিএএ-৩৭০ ধারা বিচ্ছিন্ন করছে ভারতকে’, মত দেশের প্রাক্তন বিদেশ সচিবের

উল্লেখ্য, এদিন প্রতিবাদের মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বিরুদ্ধেও শ্লোগান দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে বিজেপির বিরুদ্ধেও প্রতিবাদের সুর চড়ায় বিক্ষোভকারীরা। এদিনের এই আন্দোলনে প্রথম থেকেই পুরোভাগে ছিলেন কামতাপুর প্রগ্রেসিভ পার্টির প্রধান অতুল রায়। জাতীয় সড়কে এমন বিক্ষোভের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ময়নাগুড়ি থানার আইসি তমাল দাস। এরপর পুলিশ এসে অবরোধকারীদের সঙ্গে কথা বলে অবরোধ তুলে দেয়।

Web Title: Kamtapur progressive party protest firing tyre in north bengal

Next Story
নৈহাটি বিস্ফোরণে সরব রাজ্যপাল
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com