মেট্রোয় ফের আগুন-আতঙ্ক, এবার ঘটনাস্থল দমদম

দমদম স্টেশন থেকে মেট্রো ছেড়ে যাওয়ার পরই আগুনের ফুলকি দেখা যায় বলে অভিযোগ যাত্রীদের একাংশের। এরপরই ফের দমদম স্টেশনে মেট্রোর রেকটিকে ফিরিয়ে আনা হয়।

By: Kolkata  Updated: January 31, 2019, 02:01:04 PM

আবারও মেট্রোয় আগুন-আতঙ্ক। দমদম স্টেশনে কবি সুভাষগামী মেট্রোর কামরায় আগুনের ফুলকি ঘিরে চাঞ্চল্য। দমদম স্টেশন থেকে মেট্রো ছেড়ে যাওয়ার পরই আগুনের ফুলকি দেখা যায় বলে অভিযোগ যাত্রীদের একাংশের। এ ঘটনার জেরে দমদম স্টেশনে ফের মেট্রোর রেকটিকে ফিরিয়ে আনা হয়। এ ঘটনার জেরে বিঘ্নিত হয় মেট্রো চলাচল।

অন্যদিকে, এ ঘটনার জেরে অফিসটাইমে চরম দুর্ভোগে পড়েন নিত্যযাত্রীরা। বারবার শহরে মেট্রো বিভ্রাট নিয়ে যারপরনাই ক্ষুব্ধ তাঁরা। ঘটনা চাক্ষুষ করেন বারাসতের বাসিন্দা সুলোপানি সাহা। তিনি বলেন, “শেষের কামরায় ছিলাম। চোখের সামনে দেখলাম, মেট্রোর মেঝেতে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে। আগুন দেখামাত্রই ভয়ে সকলে দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দেয়। এমন ঘটনা ঘটতে থাকলে তো মেট্রোয় ওঠাই যাবে না।” আরেক নিত্যযাত্রী আশিস দে বলেছেন, “আগুন দেখে সকলেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। হুড়োহুড়ি করেন সকলে। যাত্রী সুরক্ষার কথা মাথায় রাখা দরকার মেট্রো কর্তৃপক্ষের।”

আরও পড়ুন, ফের বিপত্তি! মেট্রোয় আগুন-আতঙ্ক, অসুস্থ ৪০ যাত্রী

উল্লেখ্য, গত ডিসেম্বরেই মেট্রোয় আগুন লেগেছিল। সেসময় রবীন্দ্র সদন ও ময়দান স্টেশনের মাঝে দমদমগামী মেট্রোর এসি রেকের প্রথম কামরায় আগুন লাগে। অগ্নিকাণ্ডের পরই মাঝপথে দাঁড়িয়ে পড়ে মেট্রো। ধোঁয়ায় মুহূর্তে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন যাত্রীরা। খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় দমকলের তিনটি গাড়ি। ঘটনাস্থলে যায় কলকাতা পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীও। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছিল, সে ঘটনায় ৪০ জন যাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁদের মধ্যে ৩৫ জনকে পাঠানো হয়েছিল এসএসকেএম হাসপাতালে। বাকি পাঁচজনকে পাঠানো হয়েছিল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে।

এর আগে গত বছরের পুজোয় ষষ্ঠীর দুপুরে সেন্ট্রাল মেট্রো স্টেশনে আগুন-আতঙ্ক ছড়ায়। বারবার মেট্রোয় এমন ধরনের ঘটনায় স্বভাবতই আতঙ্কে যাত্রীরা।

 

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the West-bengal News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Kolkata metro fire dumdum station

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং