পঞ্চায়েতের আগে ত্রাস তৈরির ছক, মানিকচকের ঘটনায় ঘুম উড়েছে প্রশাসনের: large quantity of bombs recovered in Manikach | Indian Express Bangla

পঞ্চায়েতের আগে ত্রাস তৈরির ছক, মানিকচকের ঘটনায় ঘুম উড়েছে প্রশাসনের

পরস্পরের দিকে আঙুল তুলছে বিজেপি-তৃণমূল।

পঞ্চায়েতের আগে ত্রাস তৈরির ছক, মানিকচকের ঘটনায় ঘুম উড়েছে প্রশাসনের
মানিকচকে উদ্ধার হওয়া বোমা। ছবি- মধুমিতা দে

পরিত্যক্ত জঙ্গল থেকে দুই ব্যাগভর্তি তাজা বোমা উদ্ধারের ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়াল মালদা জেলার মানিকচক থানার গোপালপুর জেসারটোলা এলাকায়। দীর্ঘ চেষ্টার পর উদ্ধার হওয়া ওই বিপুল পরিমাণ বোমা ফাঁকা জায়গায় নিষ্ক্রিয় করেন বম্ব ডিসপোজার স্কোয়াডের অফিসাররা।  বুধবার সকালে ঝোপের মধ্যে স্থানীয় বাসিন্দারা ব্যাগ দুটি পড়ে থাকতে দেখেন। খবর দেওয়া হয় মানিকচক থানায়। এলাকা ঘিরে ফেলে পুলিশ। সম্প্রতি গোপালপুরের বালুপুর এলাকায় বোমা ফেটে জখম হয়েছিল দুইটি শিশু। ফের বোমা উদ্ধারের ঘটনায় স্বভাবতই আতঙ্কিত বাসিন্দারা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা গ্রামেই একটি মাঠের পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন। ঠিক সেই সময় মাঠের পাশে ঝোপের মধ্যে তাঁরা দুইটি ব্যাগ পড়ে থাকতে দেখেন। কৌতূহলী বাসিন্দারা গ্রামেরই অন্যান্যদের বিষয়টি জানালে খবর যায় পুলিশের কাছে। খবর দেওয়া হয় বম্ব স্কোয়াডকে। সংশ্লিষ্ট দফতরের আধিকারিকরা এসে উদ্ধার হওয়া বোমাগুলো নিষ্ক্রিয় করে। পঞ্চায়েত ভোটের জন্যই উদ্ধার হওয়া বোমাগুলো মজুত করা হয়েছিল বলে অভিযোগ করছেন বাসিন্দারা। জেলার পুলিশ সুপার প্রদীপকুমার যাদব জানিয়েছেন, ‘এটা দুষ্কৃতীদের কাজ। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। দুষ্কৃতীদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।’

এর আগে সেপ্টেম্বরেই মানিকচকের ধরমপুর এলাকার বাবুপুর গ্রামে, বল ভেবে খেলতে গিয়ে বোমা ফেটে জখম হয় দুইটি শিশু। ঘটনার কিনারা হতে না-হতেই ফের বোমা উদ্ধার। স্বাভাবিক ভাবেই, মানিকচক থানাজুড়ে তীব্র আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। দক্ষিণ মালদা সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক গৌড়চন্দ্র মণ্ডল বলেন, ‘পঞ্চায়েত ভোটের আগে রাজ্যে শাসক দল সন্ত্রাসের পরিবেশ সৃষ্টির জন্য জেলাজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় বোমা এবং অস্ত্রশস্ত্র মজুত করছে। সাধারণ মানুষ সবই বুঝতে পারছেন। পঞ্চায়েত ভোটেই তাঁরা শাসক দলকে যোগ্য জবাব দেবেন।’

আরও পড়ুন- মাছে-ভাতে বাঙালিকে চরম অপমান! পরেশ রাওয়ালকে পারসে-পাবদা-শুঁটকি ‘উপহার’ বাংলা পক্ষর

মালদা জেলা তৃণমূলের নেতা দুলাল সরকার বলেন, ‘বিরোধীদের কোনও কাজ নেই। সুযোগ পেলেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ করে যাচ্ছে। ওদের পায়ের তলার মাটি সরে গিয়েছে। তাই ওরা এখন ভুল বকছে। গত পঞ্চায়েত ভোটে গোপালপুর গ্রামে বিজেপি কিছুই করতে পারেনি। তাই প্রধান নির্বাচনের সময় বোমা বিস্ফোরণ করেছিল। এখনও এসব কাজ বিরোধীরাই করছে। বিভিন্ন জায়গায় বোমা মজুত করছে বিরোধী দল। সাধারণ মানুষ সবকিছু দেখছে। এর জবাব দেবে। পুলিশ ও প্রশাসন আইন অনুযায়ীই ব্যবস্থা নেবে।’

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Large quantity of bombs recovered in manikachak

Next Story
ক্ষমতা হারানোর ভয়েই মেডিক্যাল কলেজে নির্বাচন এড়াচ্ছে শাসকপক্ষ, অভিযোগ চিকিৎসক সংগঠনগুলির