scorecardresearch

বড় খবর

এলোপাথাড়ি গুলিতে ঝাঁঝরা ব্যবসায়ী, পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ফুঁসছেন স্থানীয়রা

ওই ব্যবসায়ীর মাথায় ও মুখে গুলি লাগে। ঘটনাস্থলেই মোটরবাইক নিয়ে পড়ে যান তিনি। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

এলোপাথাড়ি গুলিতে ঝাঁঝরা ব্যবসায়ী, পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ফুঁসছেন স্থানীয়রা
সোহেল শেকের শোকার্ত পরিবার। ছবি- মধুমিতা দে

প্রকাশ্য রাস্তায় মাথায় গুলি করে এক ব্যবসায়ীকে খুন করল দুষ্কৃতীরা। বৃহস্পতিবার রাতে এই ঘটনাকে ঘিরে তুমুল উত্তেজনা তৈরি হয় কালিয়াচক থানার শেরশাহী কোম্পানি টোলা এলাকায়। দুষ্কৃতীদের ছোড়াগুলিতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই ব্যবসায়ীর। মোটর বাইকে করে বাড়ি ফেরার পথেই দুষ্কৃতীরা পরিকল্পনা মাফিক ওই ব্যবসায়ীকে গুলি করে খুন করেছে বলে অভিযোগ নিহতের পরিবারের। আর এই ঘটনার পরেই কালিয়াচক থানার পুলিশের ভূমিকা নিয়েও অসন্তোষ ছড়িয়েছে শেরশাহী এলাকায়।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, পুলিশের উদাসীনতার কারণেই এলাকায় একের পর এক অপরাধ বাড়ে চলেছে। এদিকে রাতেই মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ব্যবসায়ীর নাম সোহেল শেখ (৩২)। তার বাড়ি কালিয়াচকের শেরশাহী এলাকায় । পেশায় কাপড় ব্যবসায় এবং শ্রমিক সরবরাহকারী ছিলেন সোহেল শেখ। পরিবারে স্ত্রী এবং দুই নাবালক ছেলে, মেয়ে রয়েছে।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে ব্যবসার কাজ সেরে মোটরবাইকে করে বালিয়াডাঙ্গার গোলাপগঞ্জ রাজ্য সড়ক ধরে বাড়ি ফিরছিলেন ওই ব্যবসায়ী। সেই সময় কোম্পানিটোলা এলাকার কাছে কয়েকজন দুষ্কৃতী ব্যবসায়ী সোহেল শেখকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালায় বলে অভিযোগ। সরাসরি ওই ব্যবসায়ীর মাথায় ও মুখে গুলি লাগে। ঘটনাস্থলেই মোটরবাইক নিয়ে পড়ে যান তিনি। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। এই পরিস্থিতির মধ্যে গুলির শব্দ পেয়ে আশেপাশের লোকজন ছুটে এলে দুষ্কৃতীরা এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। এরপরই শুরু হয় গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কালিয়াচক ১ পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য রেজাউল শেখ বলেছেন, ‘এলাকায় দুষ্কৃতীদের দৌরাত্ম্য ক্রমাগত বেড়েই চলেছে। পুলিশের ভূমিকা নিয়েও আমরা খুশি নই। যেভাবে একজন ব্যবসায়ীকে গুলি করে খুন করা হলো , তাতে আমরা আতঙ্কিত। ছেলেটি ভালো মানুষ বলেই আমরা জানতাম। ওর সঙ্গে কারোর কোন শত্রুতা থাকতে পারে বলে মনে হয় না। পরিকল্পনা করে ওকে খুন করা হয়েছে । দ্রুত এই ঘটনায় জড়িত দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তার করা না হলে এলাকায় বৃহত্তম আন্দোলন শুরু হবে।’

মালদার পুলিশ সুপার প্রদীপ কুমার যাদব জানিয়েছেন, কালিয়াচকের গুলি কান্ডে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে টাকা-পয়সা লেনদেনের জেরেই এই ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে। দুষ্কৃতীদের খোঁজে এলাকা জুড়ে চিরুনি তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Malda businessman murder