scorecardresearch

বড় খবর

অবসরে মমতা, ১০ বছর সীমান্ত সুরক্ষা শেষে একই পথের পথিক সেনা-কর্মী গাইড-ও

সীমান্ত সুরক্ষায় ১০ বছর দেশের দায়িত্ব পালন করেছে এরা। বর্তমানে মমতা ও তার গাইড মালদার ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত কালিয়াচক থানার শশানী বিএস এফ ক্যাম্পে অবসর জীবন কাটাচ্ছেন।

mamata and guide retires after 10 years service in army
অবসরপ্রাপ্ত দুই সেনা কর্মী মমতা ও গাইড। ছবি- মধুমীতা দে

স্বমহিমায় দ্বায়িত্ব পালন করে অবসর নিলেন মমতা ও গাইড। সীমান্ত সুরক্ষায় ১০ বছর দেশের দায়িত্ব পালন করেছে এরা। বর্তমানে মমতা ও তার গাইড মালদার ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত কালিয়াচক থানার শশানী বিএস এফ ক্যাম্পে অবসর জীবন কাটাচ্ছেন। চালু হয়েছে তাদের পেনশনও।

মালদা রেঞ্জের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত দুটি ঘোড়ার নাম মমতা ও গাইড। ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনীর সঙ্গেই দেশরক্ষার কাজ করেছে এই দুই ঘোড়া। কেমন কাটছে তাদের অবসর? তারই খোঁজে কালিয়াচকের আস্তাবলে গিয়ে দেখা গেল, বিএসএফের একজন কর্মী প্রভীন সিং রাঠোর দুটি ঘোড়ার শরীরের পরিচর্যায় ব‍্যস্ত। হাত, পা থেকে সর্বশরীর মালিশ করে দিচ্ছেন রাজস্থানের যুবক প্রভীন।

বিএসএফের সরকারি কর্মী ‘হর্স হ‍্যান্ডেলর’ প্রভীন সিং রাঠোর বলেন, ‘চাকরি জীবনে এরা খুব পরিশ্রম করত। এদের পিঠে সওয়ার হয়ে সশস্ত্র জওয়ানরা ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে টহল দিতেন। তখন এদের একশো শতাংশ খাবার দেওয়া হত। এখন অবসরের পর ৭০শতাংশ অবসরকালীন ভাতা পায় সার্ভিস রুলের নিয়মে। তাতেই জোঁটে খাবার। খাবারে দেওয়া হয় ছোলা, লবণ আর ভুসা। এছড়াও সবুজ ঘাস দেওয়া হয়। চাকরিরত অবস্থায় মিলত চিটাগুঁড়, ছোলার ছাতুও। এই ঘোড়ার সার্ভিস বুকও রয়েছে। বেতন এবং পেনশন বাবদ সরকারের কত টাকা খরচ হচ্ছে সেই হিসাবও থাকছে। আগে এদের নিলামে বিক্রি করা হত। এখন সেই নিয়ম বন্ধ হয়েছে।’

বিএসএফ সূত্রে খবর, মধ‍্যপ্রদেশের গোয়ালিয়র থেকে প্রায় ৩২ কিলোমিটার দূরে টেকনোপুরে রয়েছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনীর বিশেষ ট্রেনিং অ্যাকাডেমি। সেখানে ঘোড়া, হাতি, কুকুরের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। সেখান থেকেই ১৩ বছর আগে মমতাকে আনা হয়েছিল মালদায়। আর ১২ বছর আগে এসেছিল গাইড।এই দুইটি ঘোড়ার দায়িত্বে থাকা সীমান্ত জাওয়ান প্রভীন সিং রাঠোর জানান বয়স হয়ে গেছে ঘোড়াগুলির। তাই এখন আর সীমান্তে টহলদারির কাজ করানো হয় না। সকালে ও বিকেলে শুধু ওয়াকিং করানো হয়। আর প্রতিদিন এক ঘন্টা মালিশ।

মালদার কালিয়াচকের গোলাপগঞ্জের পঞ্চায়েত সদস্য হারাধন রজক বলেছেন, ‘এই ঘোড়া দুটি সীমান্ত এলাকায় দীর্ঘ ১০ বছর দেশের সেবা করেছে। সীমান্তে যে সকল এলাকায় বিএসএফের গাড়ি প্রবেশ করতে পারে না। সেখানে এই দুই ঘোড়া অনায়সে প্রবেশ করে বিপদমুক্ত করেছে দেশকে। মানুষকে যেমন পুরুস্কৃত করা হয় তেমনী এদরও পুরস্কৃত করা উচিত। তাদের সেবা ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন।’

মমতা ও গাইড অবসর নিয়েছে। ফলে দুর্গম রাস্তায় এরাই এক সময় টহল দিয়ে চোরাকারবার আটকাত। দেশ রক্যায় ওই এলাকায় পুনরায় ঘোড়া যাতে দেওয়া হয় তার প্রস্তাবও দিল্লিতে পাঠিয়েছে বিএসএফ।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mamata and guide retires after 10 years service in army