বড় খবর

‘আমার রাজ্যের শ্রমিকদের একটু যত্ন নিন’, আর্জি মমতার

সাংবাদিক বৈঠক থেকে তিনি পরিযায়ী শ্রমিক প্রসঙ্গে ক্ষোভ উগরে দিলেন অন্যান্য রাজ্যের বিরুদ্ধে। উল্লেখ্য, এই রাজ্যগুলির মধ্যে বেশিরভাগই বিজেপি শাসিত রাজ্যে।

mamata banerjee

পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যুতে দেশ থেকে রাজ্য সর্বস্তরে রীতিমত জলঘোলা হয়েছে। ভিন রাজ্য থেকে বাংলার শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা নিয়ে বিরোধীদের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে। সোমবার সেই বিতর্কে পাল্টা সুর চড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিনের সাংবাদিক বৈঠক থেকে তিনি পরিযায়ী শ্রমিক প্রসঙ্গে ক্ষোভ উগরে দিলেন অন্যান্য রাজ্যের বিরুদ্ধে। উল্লেখ্য, এই রাজ্যগুলির মধ্যে বেশিরভাগই বিজেপি শাসিত রাজ্যে।

সাংবাদিক বৈঠক থেকে অভিযোগের সুরে মমতা জানান, ভিন রাজ্যে থাকা বাংলার শ্রমিকদের দেখভাল করছে না বেশ কয়েকটি রাজ্য। তিনি বলেন, “দিল্লি,চেন্নাই মহারাষ্ট্র, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ সব জায়গায় পরিযায়ী শ্রমিকদের ভয়াবহ অবস্থা। আমাদের বাংলায় কিন্তু সেই চিত্র নেই। আমরা সবাইকে আপন করে রেখেছি। বাংলার লোকেরাই কেবল দেশের সব জায়গায় নেই, এখানেও দেশের বহু রাজ্যের লোক আছে। রাজ্যে ৪০ শতাংশ হিন্দি ভাষীরা আছেন। তারাও তো কোনও না কোনও রাজ্যের লোক। আমি অন্যান্য রাজ্যকে বলব, আমার রাজ্যের শ্রমিকদের একটু যত্ন নিন। বাংলা থেকে অনেক শ্রমিককে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে কিন্তু অন্য রাজ্য সেটা করছে না সব সময়।”

রাজ্যে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন নিয়ে বিরোধীদের দাবি নস্যাৎ করে মমতা বলেন, “আমরা অনেককেই এনেছি রাজ্যে। কেউ কেউ ঘোলা জলে মাছ ধরতে নেমেছেন। দয়া করে নামবেন না। এটা নিয়ে রাজনীতি নয়। রাজ্যটা আমাদের। আমাদের দায়িত্ব, দায়বদ্ধতা আছে। আমি ১০৫টা ট্রেন বলেছি। ইতিমধ্যেই ১৫টি এসেছে। দু-তিন দিনের মধ্যে আরও ১২০টি ট্রেন চাইব। খরচ পুরোটাই রাজ্য সরকার বহন করবেন। ২৩৫টি ট্রেন আসা মানে কত লোক আসছে এটা ভাবুন। বাসেও আসছে অনেকে।”

প্রসঙ্গত, দেশে লকডাউন জারির পর থেকেই রুটি রোজগারহীন সহায় সম্বলহীন শ্রমিকেরা বিভিন্ন রাজ্য থেকে নিজভূমে ফেরা শুরু করেছেন। কখনও জাতীয় সড়ক দিয়ে হেঁটে, কখনও আবার রেললাইন ধরে। মৃত্যু মিছিলও বেড়েছে প্রতিনিয়ত। এহেন পরিস্থিতিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে যে তিনিও বদ্ধপরিকর এমনটাই ফের জানালেন মমতা। সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, “বাংলায় প্রায় ৩ লক্ষ পরিযায়ী এসেছেন বাসে-ট্রেনে। আজ বাংলাদেশ থেকে এসেছেন অনেকে। সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা চলছে।”

তবে শ্রমিকদের ফেরানো নিয়ে মমতার বিরুদ্ধে সোচ্চার বিরোধী রাজনীতিকদেরও এদিন এক হাত নেন মমতা। তিনি বলেন, “বাংলায় শ্রমিক ফেরাতে আমিও চাই। নিজের রাজ্যে তাঁরা ফিরে আসবে। কিন্তু বিরোধীদের বলছি, জেলায় জেলায় যখন তাঁরা ঢুকবে, যদি করোনা নিয়েই ঢুকে পড়েন তখন মানুষ কি আমায় ক্ষমা করবে?”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: 123444

Next Story
বাংলায় রাতের কার্ফু জারি হচ্ছে না, ২১ মে ছোট-বড় সব দোকান খুলছে কন্টেনমেন্ট জোনের বাইরে: মমতাmamata banerjee
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com