'ফুলে সারা হাত কালো হয়ে গিয়েছিল!', ভয়ে SSKM-এ আর রক্তপরীক্ষা করান না মমতা: Mamata Banerjee unhappy with medical facilities in SSKM super speciality Hospital | Indian Express Bangla

‘ফুলে সারা হাত কালো হয়ে গিয়েছিল!’, ভয়ে SSKM-এ আর রক্তপরীক্ষা করান না মমতা

হাসপাতালের ট্রমা কেয়ার সেন্টারের পরিষেবা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী।

‘ফুলে সারা হাত কালো হয়ে গিয়েছিল!’, ভয়ে SSKM-এ আর রক্তপরীক্ষা করান না মমতা
হাসপাতালের পরিষেবা আরও উন্নত করার জন্য প্রয়োজনে আরও বেশি কর্মী নিয়োগের কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

রাজ্যের এক নম্বর সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল এসএসকেএম হাসপাতাল। যেখানে ভিভিআইপি-দের নিত্য আনাগোনা। আর সেখানেই কি না রক্তপরীক্ষা করাতে ভয় পান স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার এমনই গোপন কথা ফাঁস করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হাসপাতালের বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধনে গিয়ে জানালেন, এর আগে এসএসকেএম-এ রক্তপরীক্ষা করার জন্য পূর্ব অভিজ্ঞতা ভাল নয় তাঁর।

এদিন মমতা জানিয়েছেন, এর আগে অনেকবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি। অনেক বার হাতে সূচ ফোটাতে হয়েছে। কিন্তু চিকিৎসক বা নার্স অনেকেই ইঞ্জেকশন দেওয়ার কাজে পটু নন বলে মনে হয়েছে তাঁর। অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে প্রকাশ্যেই মমতা বলেন, “এক বার একটা ইঞ্জেকশন দিতে গিয়ে আমার হাতটা পুরো ফুলিয়ে দিয়েছিল। পিজি-তে আমি এক বার রক্তপরীক্ষা করিয়েছিলাম। রক্ত তো চিকিৎসকরা নেন না, এটা নার্সদের কাজ। এমন জোরে আমার হাত থেকে রক্ত নিয়েছিল, সারা হাত কালো হয়ে গিয়েছিল। সেই ভয়ে আমি আর এখানে রক্ত পরীক্ষা করাতে আসি না।”

YouTube Poster

এদিন হাসপাতালের ট্রমা কেয়ার সেন্টারের পরিষেবা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “রোগী এলে ভর্তির প্রসেসেই সময় চলে যাচ্ছে। আগে তাঁকে পরিষেবা দেওয়া দরকার। আমি দেখলাম প্রক্রিয়াতেই অনেক সময় লেগে যাচ্ছে। ট্রমা সেন্টারে তো এটা হওয়ার কথা নয়। পিজি হাসপাতাল নিয়ে আমরা গর্ব করি। এখানে এটা হওয়া উচিত নয়।”

আরও পড়ুন ঢাল নেই তরোয়াল নেই নিধিরাম সর্দার! পিজি-কাণ্ডে রাজ্যকেই দুষছেন বিশিষ্ট চিকিৎসকরা

হাসপাতালের পরিষেবা আরও উন্নত করার জন্য প্রয়োজনে আরও বেশি কর্মী নিয়োগের কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। কর্তৃপক্ষকে তাঁর পরামর্শ, রাতে সিনিয়র ডাক্তারদের হাসপাতালে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। রেফার রোগ নিয়েও ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী। বলেছেন, “রোগীদের অন্য হাসপাতালে রেফার করে দায় ঝেড়ে ফেললে চলবে না। এমন কোনও দূরের হাসপাতালেও যেন রেফার না করা হয়। যেখানে পৌছতে গিয়েই রোগীর প্রাণ চলে যায়।” সে দিকটাও মাথায় রাখতে বলেছেন মমতা।

আরও পড়ুন ‘বিশ্বমানের পরিষেবা’ পেতেই নাকাল, রেফার রোগেই কি বেসামাল SSKM-র পরিকাঠামো?

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mamata banerjee unhappy with medical facilities in sskm super speciality hospital

Next Story
ডিসেম্বর ডেডলাইনে ‘কাঁপুনি’ ধরাচ্ছেন, সম্ভবত আগামী সপ্তাহেই দিল্লিতে, কী ‘ছক’ শুভেন্দুর?