scorecardresearch

বড় খবর

পঞ্চায়েতের আগেই বোধহয়! সংখ্যালঘুদের কি বার্তা মিঠুন, সুকান্তর?

এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীতে রোড শো করেন সুকান্ত মজুমদার ও মিঠুন চক্রবর্তী।

পঞ্চায়েতের আগেই বোধহয়! সংখ্যালঘুদের কি বার্তা মিঠুন, সুকান্তর?
সুকান্ত মজুমদার ও মিঠুন চক্রবর্তী

নির্বাচনে জয় পেতে গেলে সংখ্যালঘু ভোট বড় বালাই। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার ও নায়ক-নেতা মিঠুন চক্রবর্তীর গলায় এবার সংখ্যালঘুদের উদ্দেশে বিশেষ সুর শোনা গেল। তাঁদের আশ্বাস, ‘সংখ্যালঘুদের ভয় পাওয়ার কোনও দরকার নেই। সিএএ লাগু হলেও সংখ্যালঘুদের দেশ ছাড়ার কোনও সম্ভাবনাই নেই। তাঁদের ভুল বোঝানো হচ্ছে। তাঁরা নিশ্চিন্তে থাকতে পারবেন।’

এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীতে রোড শো করেন সুকান্ত মজুমদার ও মিঠুন চক্রবর্তী। মিঠুন চক্রবর্তী বলেন, ‘সংখ্যালঘুদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই। সঠিক ভোটার কার্ড এবং আধারকার্ড যদি থাকে, কেউ আপনাকে তাড়াবে না। নাকে তেল দিয়ে ঘুমোন। ভুল প্রচার করা হচ্ছে।’ রাজনৈতিক মহলের অভিমত, পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে সংখ্যালঘুদের পাশে পেতে চাইছে গেরুয়া শিবির। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় একটা বড় অংশই সংখ্যালঘু।

আরও পড়ুন- বঙ্গে মোহন ভাগবত, সঙ্ঘ প্রধানের প্রথম দিনের সফর ঘিরে চরম রহস্য

এদিন সভার আগে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘের আশ্রমে যান মিঠুন ও সুকান্ত। তাঁরা ওই আশ্রমে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটান। তারপর শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি, আবাস যোজনায় দুর্নীতি-সহ নানা ইস্যুতে প্রতিবাদ মিছিলে যোগ দেন সুকান্ত মজুমদার, মিঠুন চক্রবর্তী ও অগ্নিমিত্রা পালরা। মিঠুনের পাশাপাশি এদিন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারও একই কায়দায় সংখ্যালঘুদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন।

আরও পডু়ন- আদালতে যাওয়ার অর্থ নেই, মানবাধিকার কমিশনের ভূমিকায় আশার আলো দেখছে এপিডিআর

সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘সিএএ লাগু হলে কাউকে দেশছাড়া করা হবে না। অহেতুক সংখ্যালঘুদের ভয় দেখানো হচ্ছে। ভারতবর্ষের নাগরিক হলে কারও ক্ষমতা নেই আপনাকে তাড়ায়।’ তৃণমূল কংগ্রেসের বক্তব্য, বিজেপি যতই চিৎকার করুক সংখ্যালঘুরা তাঁদের বিশ্বাস করে না। তাঁরা তৃণমূলেরই সঙ্গেই আছে, থাকবেও।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mithun and sukanth gave a message to minorities about caa