scorecardresearch

‘প্রজাপতি’ বিতর্ক অব্যাহত, মিঠুনের ‘অশনি সঙ্কেত’, ‘দেবকে ওরা ভয় দেখাতে চেয়েছিল’

ফের বোমা মিঠুনের।

‘প্রজাপতি’ বিতর্ক অব্যাহত, মিঠুনের ‘অশনি সঙ্কেত’, ‘দেবকে ওরা ভয় দেখাতে চেয়েছিল’
দেব, মিঠুন, কুণাল

প্রেক্ষাগৃহে মিঠুন ও দেব অভিনীত ছবি ‘প্রজাপতি’ হইহই করে পাখা মেলেছে। তবে তার বাইরেও এই ছবি ঘিরে প্রথম থেকেই বিতর্কের অন্ত নেই। ‘প্রজাপতি’কে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক আকছাআকছি তুঙ্গে। এসবের মধ্যেই আড়ম্বরে উদযাপিত হল ‘প্রজাপতি’র সাফল্যের ২৫দিন পূর্তি। ‘মহাগুরু’ মিঠুন, দেব সহ ওই ছবির সঙ্গে যুক্ত সকলেই হাজির ছিলেন আনন্দ আয়োজনে। স্বাভাবিকভাবেই উঠেছে ‘প্রজাপতি’কে কেন্দ্র করে গত তিন সপ্তাহের নানা বিতর্কিত প্রসঙ্গ। যা নিয়েই অকপট অভিনেতা তথা বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তী। ফের নিশানা করলেন তৃণমূলের কুণাল ঘোষকে। দিলের অশনি সঙ্কেতের বার্তাও।

‘প্রজাপতি’তে মিঠুন চক্রবর্তীর অভিনয়কে কুণাল ঘোষ ‘ফ্লপ’ বলেছিলেন। দাবি করেছিলেন যে, মিঠুনকে প্রজাপতিতে নেওয়া দেবের ‘আত্মঘাতী’ সিদ্ধান্ত। এ নিয়ে আগেই কুণালকে ‘এলি তেলি গঙ্গারাম’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন বিজেপির ‘কোবরা’। ‘প্রজাপতি’র সাফল্য উদযাপনের দিনও শাসক দলের নেতা সমন্ধে সেই বিশেষণই বজায় রেখেছেন মিঠুন। তবে এ প্রসঙ্গেই বোমা ফাটিয়েছেন তিনি।

কুণাল ঘোষের নাম মুখে উচ্চারণ না করেই মিঠুন চক্রবর্তী বলেছেন, ‘আমি নাম নিয়ে রাজনীতি করি না। আমি এসব ফালতু সময় নষ্ট করতে চাই না। এসব গঙ্গারামদের কথা বলে সময় নষ্ট করতে চাই না। একটা কথা বলি, গঙ্গারাম ভেবেছিল একটা পাথরে তিনটে শিকার করবে। প্রথমত, দেবকে ভয় দেখানো। কারণ উনি তো এখন ওই পার্টির শেষ কথা। তবে দেব ভয় পায়নি। অভিনেতা হিসাবে দেব উত্তর দিয়েছে। আর পাবলিক, যাঁরা ভেবেছিলেন ছবিটা দ্বিতীয় বা তৃতীয় সপ্তাহে দেখতে যাবেন তাঁরা এসবের পর প্রথম সপ্তাহেই ছবিটা দেখে নিয়েছেন। ওরাই মাউথ পাবলিসিটি করেছে। এটা কিন্তু অশনি সঙ্কেত। মানুষ জাগছে, উত্তর দিচ্ছে।’

আরও পড়ুন- নন্দনের কমিটিতে কারা কারা আছে?’, প্রজাপতি বিতর্কে ফের বিস্ফোরক মিঠুন

তাঁর অভিনয় সত্ত্বা নিয়ে প্রশ্ন ওঠা প্রসঙ্গে মিঠুন বলেন, ‘আমরা এখানে এসেছি বোধহয় পৃথিবীতে প্রথমবার একটা ফ্লপ ফিল্মকে সেলিব্রেট করতে। এত ফ্লপ হয়েছে যে এর আওয়াজ এরপর অস্কারে শুনতে পাবেন।’

মিঠুন চক্রবর্তীর সমালোচনা প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ‘উনি আমাকে যা ইচ্ছে তাই বলেন, তবে উমি যেন একটু মানুষকে বলে দেন যে এ গঙ্গারামের কাছেই উনি প্রণবদাকে পদ্মশ্রী পাওয়ার জন্য বলতে সুপারিশ করিয়েছিলেন। ২০১১-র পর মিঠুনদাকে মমতাদির কাছে কে দেখা করিয়ে দিয়েছিল? তার আগে তো উনি নন্দীগ্রামে গণহত্যার সমর্থনে সিপিএমের মিছিলে ঘুরে বেরাচ্ছিলেন।’

‘মহাগুরু’র ‘দেবকে ভয় দেখাতে চেয়েছিল’ দাবি নিয়ে কুণাল বলেন, ‘দেবকে আমি কেন ভয় দেখাতে যাবো? দেবকে জিজ্ঞাসা করুন না ওঁর সঙ্গে আমার যোগাযোগ আছে কিনা? ওঁর সঙ্গে আমার কী সম্পর্ক? কী কথা হয়? উপকার ছাড়া অপকার করেছি কিনা? আমি শুধু বলেছি ওই ছবিতে মিঠুন দার জায়গায় পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় থাকলে আরও ভালো হত। এ জন্য আমাকে গঙ্গারাম বলতে হবে। তবে আমি ওনাকে কিছু বলব না। আমার গরল পানের আভ্যাস রয়েছে।’

পাল্টা অভিনেতা তথা তৃণমূল সাংসদ দেব বলেছেন, ‘ছবিটা হইহই করে চলছে। তাই এখন আমাদের অন্তত চুপ থাকা উচিত।’

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mithun chakrabarty again attack kunal ghosh on prajapati issue