scorecardresearch

বাংলায় এখনই লকডাউন-নাইট কার্ফু নয়, আতঙ্কের কারণ নেই : মমতা

‘করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকার সব ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে আশ্বস্ত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বাংলায় এখনই লকডাউন-নাইট কার্ফু নয়, আতঙ্কের কারণ নেই : মমতা

রোজই হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে কাবু বাংলা। দিল্লিতে ইতিমধ্যেই জারি হয়েছে ৬ দিনের লকডাউন। তাহলে কী বাংলাও এবার একই পথে হাঁটবে? এই জল্পনা যখন তুঙ্গে তখন লকডাউন বা নাইট কার্ফুর লাগুর সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। অর্থাৎ, এখনই পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন বা নাইঠ কার্ফু জারি হচ্ছে না।

সোমবার মালদহে সাংবাদিক বৈঠকে করোনা নিয়ে রাজ্য সরকারের পদক্ষেপের কথা বলতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘এখনই লকডাউন জারির কোনও পরিকল্পনা নেই। লকডাউন করলেই কি সব বদলে যাবে? লোকের অসুবিধা হবে না! নাইট কার্ফু করে কিছু হবে না। নাইট কার্ফু কোনও সমাধান নয়।”

করোনা সংক্রমণ বাড়ছে, কিন্তু রাজ্যবাসীকে অযথা আতঙ্কিত না হওয়ার বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বলেন, ‘আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। রাজ্য সরকার মুখ্য সচিবের নেতৃত্বে টাস্ক ফোর্স তৈরি করা হয়েছে। সরকার করোনা মোকাবিলায় সব ব্যবস্থা নিচ্ছে।’

মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, ‘কোভিড রুখতে টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে। করোনার জন্য আরও সাড়ে চার হাজার শয্যা বাড়ানো হবে। ২০০ সেফ হোমে ১১ হাজার বেড রয়েছে। ৪০০ অ্যাম্বুল্যান্স রয়েছে। রাজ্য সরকার সবরকম পদক্ষেপ করছে।’ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বাংলায় এখনও পর্যন্ত প্রায় ২০০০ সঙ্কটজনক রোগী রয়েছেন। ৫৮টা বেসরকারি হাসপাতালকে করোনা চিকিৎসায় অধিগ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার।’ এছাড়াও মমতা জানিয়েছেন যে, রাজ্যে টেলিমেডিসিন পরিষেবা খোলা থাকছে। যার নম্বর হল- 18313444222। ফোনে এখান থেকেই চিকিৎসকদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ নিতে পারবেন মানুষ।

রাজ্যে পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই বলে এদিনও দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এ পরসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ওষুধ, টিকা কোনটাই নেই। আমরা বাজার থেকে কিনে যতটা সম্ভব করছি। কেন্দ্রের কাছে ভ্যাকসিন চেয়ে চিঠি দিয়েছি।’ প্রসঙ্গত, রবিবারই ভ্যাকসিন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

গতকালই করোনা সংক্রমণের চেন ভাঙতে দশ দফা নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন। সেখানে সরকারি-বেসরকারি দফতরে ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। এদিন সাংবাদিক বৈঠকেও মমতা বলেন, ‘ওয়ার্ক ফর্ম হোমে জোড় দেওয়া হয়েছে। স্কুলগুলিতে ছুটি দেওয়া হয়েছে।’

সংক্রমণ মোকাবিলায় কমিশনকে ভোটের দফা কমানোর আর্জি জানিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। তাঁর মতে ভোট প্রক্রিয়া যত দ্রুত মিটবে ততই তাড়াতাড়ি রাজ্য প্রশাসন কোভিড রুখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে পারবে। আপাতত রাজ্যবাসীর সচেতনতার উপর জোর দিচ্ছে নবান্ন। মমতার কথায় বর্তমানে সতেচনতা প্রচার বৃদ্ধিতে জোর দেওয়া হচ্ছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: No lockdown and night curfew in west bengal says mamata banerjee 19