scorecardresearch

বড় খবর

সুপ্রিমো মমতাকে বিরাট চ্যালেঞ্জ তৃণমূল বিধায়কের! ঘাস-ফুলে হুলস্থূল

মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, ২৯৪টি কেন্দ্রেই তিনিই প্রার্থী। এহেন নেত্রীকেই কিনা…

সুপ্রিমো মমতাকে বিরাট চ্যালেঞ্জ তৃণমূল বিধায়কের! ঘাস-ফুলে হুলস্থূল
তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি- পার্থ পাল

আস্পর্ধা নাকি সাহস? এই প্রশ্ন তুলে হাওড়া জেলার পাঁচলার তৃণমূল বিধায়কের মন্তব্যে বিরাট শোরগোল পড়েছে দলের অন্দরেই।

পাঁচলার তৃণমূল বিধায়ক গুলশন মল্লিক। তাঁর একটি ভিডিয়োটি ভাইরাল হয়েছে। যা ঘিরেই জোর চর্চা। দেখা যাচ্ছে, ভাইরাল ভিডিও-তে প্রচুর দর্শকের সামনে বিধায়ক গুলশন মল্লিক ভাষণ দিচ্ছেন। বলেছেন, ‘যদি ভোট না পাই তা হলে আমি সন্ন্যাস নিয়ে নেব। আমি যদি পাঁচলায় ক্ষমতায় না আসি, তা হলে নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বসবেন না।’

হাওড়া জেলা তৃণমূলের একাংশের দাবি, বিধায়কের ওই বক্তব্য আগের। অনেকেই বার বলছেন, সম্প্রতি একটি কর্মিসভায় এহেন মন্তব্য করেছেন গুলশন মল্লিক। তবে তৃণমূল বিধায়কের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

ভোটের আগে তৃণমূল নেত্রী দাবি করেছিলেন, ২৯৪টি কেন্দ্রেই তিনিই প্রার্থী। অর্থাৎ, স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন যে, আসন ভেদে পৃথক পৃথক প্রার্থী থাকলেও তৃণমূলের প্রতি রাজ্যবাসীর বিশ্বাস ও ভরসার মূল স্তম্ভ তিনিই। এহেন দাবি করা দলীয় সুপ্রিমোর নাম নিয়ে গুলশান মল্লিক কিনা বলেছেন ‘ আমি যদি পাঁচলায় ক্ষমতায় না আসি, তা হলে নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বসবেন না।’? যা আদতে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রীকেই দলীয় বিধায়কেই চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

তবে, গুলশনের মন্তব্যকে ‘ঔদ্ধত্যপূর্ণ’ বলে মনে করেন তৃণমূলের জাতীয় কর্মসমিচির সদস্য তথা রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেছেন, ‘বোকা বোকা কথা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আচেন বলেই ফিরহাদ হাকিম, গুলশন মল্লিকরা আছেন। দিদির ছবি দেখিয়েই ভোট হয়। ওনাকে মানুষ ভিশ্বাস করে ভোট দিয়ে তৃণমূলের সবাইকে জেতায়। আমরা সকলেই দিদির সৈনিক। তাই বলব ঔদ্ধত্য ভালো নয়।’

আরও পড়ুন- মারাত্মক, আবাস দুর্নীতি নিয়ে মুখ খোলায় দলেরই পঞ্চায়েত সদস্যকে ‘হুমকি’ প্রধানের, তারপর…

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Panchla mla gulshan mallick challenged tmc supremo mamata banerjee