scorecardresearch

বাংলায় পরীক্ষা হলেই বাড়ছে পজিটিভ

টানা চারদিন এ রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হাজারের বেশি। যা গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা কয়েকগুণ বাড়িয়ে তুলেছে বলে মনে করছেন রাজ্যে স্বাস্থ্য কর্তারা।

বাংলায় পরীক্ষা হলেই বাড়ছে পজিটিভ

বাংলায় দৈনিক করোনা সংক্রমণের হার বেড়েই চলেছে। শনিবার নতুন করে সংক্রমিতের সংখ্যা ১,৩৪৪। এই নিয়ে টানা চারদিন এ রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হাজারের বেশি। এই হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা কয়েকগুণ বাড়িয়ে তুলেছে বলে মনে করছেন রাজ্যে স্বাস্থ্য কর্তারা।

‘মৃত্যুর হার ৩ শতাংশের কম হলেও সংক্রমণ বৃদ্ধির হার চিন্তা বাড়াচ্ছে। এই হারে বাড়তে থাকলে জুলাইয়ের শেষে এ রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মারাত্মক আকার নিতে পারে। গোষ্ঠী সংক্রমণও হতে পারে।’ এমনটাই জানালেন রাজ্যে এক স্বাস্থ্যকর্তা।

গত ২৮ মে থেকেই রাজ্যে করোনা পজিটিভের হার বাড়ছিল। তবে এই মাসে তা পৌঁছে গিয়েছে ৮.৩৯ শতাংশে। দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলেই এই বাড়বাড়ন্ত বলে মনে করা হচ্ছে। মাসের শুরুতে এই বৃদ্ধি ৬.৩৯ শতাংশ থাকলেও শনিবার তা বেড়ে হয়েছে ১১.৭৯ শতাংশ। জাতীয় স্তরে এই বৃদ্ধির গড় ৭.৪৯ শতাংশ।

এ রাজ্যে বিপুল হারে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে না। তার মধ্যেই পজিটিভিটি অনুপাত ঊর্ধ্বমুখী। বাংলায় প্রত্যেকদিন প্রায় ১০ হাজার করে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির বাড়বাড়ন্তেও মধ্যেও নমুনা পরীক্ষার এই হারই বজায় রাখা হয়েছে। শনিবার অবশ্য নজির গড়ে রাজ্যে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ১১,৪০৩। গত দশ দিন যাবৎ পরীক্যার এই সংখ্যাই বজায় রয়েছে।

স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুসারে নমুনা পরীক্ষার কিউমুলেটিভ সংখ্যা ৬,০৫,৩৭০। বিগত ১১ দিনে রাজ্যে প্রতি ১০ লাখে আক্রান্তের সংখ্যা ৫,৫২৯ থেকে বেড়ে হয়েছে ৬,৭২৬ জন। শনিবার কিউমুলেটিভ কোভিড কাউন্ট বেড়ে হয়েছে ২৮,৪৫২, মৃত্যুর পরিসংখ্যান ৯০৬। শনিবার মারা গিয়েছেন ২৬ জন।

গত ১১ দিনে রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৯,৮৯৪ জন ও মৃত ২৩৮ জন। কলকাতা ও সংলগ্ন দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলিতে সংক্রমণের হার সবচেয়ে বেশি। শনিবার করোনায় যে ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে তারা কলকাতা ও সংলগ্ন জেলার বাসিন্দা।

করোনা সুস্থ হওয়ার হারও নিম্নমুখী। যা চিন্তার অন্যতম কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। পরিসংখ্যানের বিচারে গত সাত দিন ধরে করোনাজয়ীর সংখ্যা কমেছে। শতাংশের বিচারে শনিবার সুস্থ হওয়ার সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৬৩.১১-তে।

ভাইরোলজিস্ট সুমন পোদ্দার জানিয়েছেন, ‘শুধু চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীরাই নন, কাজের জন্য বা অন্য যেকোনও কারণে যারাই বাড়ির বাইরে বেরচ্ছেন তাদেরই সংক্রমণের ভয় রয়েছে। জুনের শুরু থেকে সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। এখন তার ফল চোখে দেখা যাচ্ছে। প্রত্যেকের সতর্ক থাকা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই।’

শনিবার রাজ্য়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১,৩৪৪ জন। দৈনিক সংক্রমণের হিসেবে যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক। এখনও পর্যন্ত রাজ্য়ে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৮,৪৫৩ জন। বাংলায় করোনায় অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৯,৫৮৮। এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলায় আরও ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে রাজ্যে করোনায় মৃত বেড়ে হয়েছে ৯০৬। অন্যদিকে, করোনাকে হারিয়ে একদিনে বাংলায় সুস্থ হয়েছেন ৬১১ জন। সবমিলিয়ে বাংলায় এখনও পর্যন্ত করোনা-মুক্ত হয়েছেন ১৭,৯৫৯ জন।

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Positivity ratio zooms in bengal as cases surge