scorecardresearch

বড় খবর

ভোট পরবর্তী হিংসা মামলা: CBI দফতরে অদিতি মুন্সির স্বামী দেবরাজ

খুনের ঘটনায় জেরা করতেই মঙ্গলবার দেবরাজকে ডেকে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি।

ভোট পরবর্তী হিংসা মামলা: CBI দফতরে অদিতি মুন্সির স্বামী দেবরাজ
তৃণমূল যুব নেতা তথা কাউন্সিলর দেবরাজ চক্রবর্তীকে তলব সিবিআইয়ের।

ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় তৃণমূল যুব নেতা তথা কাউন্সিলর দেবরাজ চক্রবর্তীকে তলব করেছিল সিবিআই। রাজারহাট-গোপালপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক অদিতি মুন্সির স্বামী দেবরাজকে আজ, মঙ্গলবার সকাল ১১টা নাগাদ তলব করা হয়। সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে তাঁকে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। তলব পেয়েই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার সল্টলেকের দফতরে হাজিরা দেন দেবরাজ।

জানা গিয়েছে, ভোট পরবর্তী হিংসায় প্রসেনজিৎ দাস নামে এক যুবককে খুনের অভিযোগ উঠেছে। তিনি বিজেপি কর্মী বলে দাবি উঠেছে। বাড়ির বাইরে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় বিধানসভার ভোটের ফল প্রকাশের পর। ঘটনায় অভিযোগ দায়ের হয়। চলতি বছর তদন্তভার পায় সিবিআই। খুনের ঘটনায় জেরা করতেই মঙ্গলবার দেবরাজকে ডেকে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি।

আরও পড়ুন ED-র আর্জি মঞ্জুর, অনুব্রতর দেহরক্ষী সায়গলকে দিল্লিতে নিয়ে গিয়ে জেরায় সম্মতি

সূত্রের খবর, খুনের ঘটনায় এফআইআরে নাম ছিল না দেবরাজের। কিন্তু পরে তদন্তে তাঁর নাম উঠে আসে। তাই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, আজ, বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধেও ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় শুনানি রয়েছে সুপ্রিম কোর্টে। বর্তমানে গরুপাচার মামলায় জেলবন্দি রয়েছেন অনুব্রত।

আরও পড়ুন পদ্মে বিরাট চমক, বঙ্গ বিজেপির বড় দায়িত্বে ‘কোবরা’ মিঠুন,

প্রসঙ্গত, গত বছর বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর রাজ্যের উত্তর থেকে দক্ষিণে দফায় দফায় অশান্তির খবর পাওয়া যায়। ভোট পরবর্তী হিংসায় আক্রান্ত হন বিরোধী রাজনৈতিক দলের কর্মীরা। বিজেপির দাবি, এখনও তাঁদের বহু কর্মী-সমর্থক ঘরছাড়া। এই ইস্যুতে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন রাজ্যে প্রতিনিধি দল পাঠায়। মমতা সরকারকে ভর্ৎসনা করে। পরে তদন্তভার পায় সিবিআই। রাজ্যের বহু জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে শাসকদলের নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় এজেন্সি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Post poll violence case cbi summons tmc leader debraj chakraborty