বড় খবর

২০২২-এ পুজোর ছুটির মধ্যেই ঢুকেছে জাতীয় ছুটি! বাড়তি ছুটি নষ্ট, দেখুন ক্যালেন্ডার

Durga Puja 2021: দুঃসংবাদ একটাই আগামি বছর পুজোর অর্ধেক দিন নষ্ট হবে জাতীয় ছুটির কারণে।

প্রতীকী ছবি

Durga Puja 2021: চলতি বছর সবে হয়েছে দেবীর বোধন। বাঙালির হাতে এখনও তিনদিন। কিন্তু তার আগেই হাতে চলে এসেছে বাইশের পুজোর নির্ঘণ্ট। তবে দুঃসংবাদ একটাই আগামি বছর পুজোর অর্ধেক দিন নষ্ট হবে জাতীয় ছুটির কারণে। প্রকাশিত নির্ঘণ্ট অনুযায়ী ২০২২-এ সপ্তমী ২ অক্টোবর। সেদিন আবার গান্ধি জয়ন্তী এবং রবিবার। ষষ্ঠী অর্থাৎ দেবীর বোধন পয়লা অক্টোবর অর্থাৎ শনিবার। এদিন থাকে সরকারি ছুটি। অর্থাৎ একসঙ্গে নষ্ট একাধিক ছুটি। লক্ষ্মীপুজো আবার ৯ অক্টোবর মানে সেই রবিবার, নষ্ট ছুটি।

তবে ২০২২-এ কালীপুজো সোমবার ২৪ অক্টোবর। অর্থাৎ টানা তিন দিন ছুটি পাবে বাঙালি। দুর্গাপুজোর ছুটি নষ্টের সান্ত্বনা কালীপুজোয় তুলে নিতে পারবে বাংলা। এদিকে, প্রথা মেনেই এবারেও পুজো উদ্বোধনে ফার্স্ট বয় শ্রীভূমি স্পোর্টিং। তাদের চলতি বছরের ভাবনা বুর্জ খলিফা। একটুকরো দুবাইকে কলকাতা শহরতলিতে ফুটিয়ে তুলেছে মন্ত্রী সুজিত বসুর এই পুজো। তাই উৎসাহী জনতা দ্বিতীয়া থেকেই নেমেছেন পথে। সেই জনতার স্রোত পঞ্চমী পেরিয়ে ষষ্ঠীতেও সমান জোয়ারে ভরা। বাইরে থেকে প্রতিমা দর্শনের ব্যবস্থা হলেও, উৎসাহে ভাঁটা নেই। সেভাবেই নেই করোনা বিধি মানার বালাই।

মায়ের বোধনের দিনেও একাধিক প্যান্ডেলে মাস্কহীন মানুষের আনাগোনা। কারও আবার থুতনিতে ঝুলছে মাস্ক। প্রশাসনিক পরামর্শ, কেন্দ্রের সতর্কবার্তা কিংবা হাইকোর্টের নির্দেশ। কোনও কিছুকেই গ্রাহ্য করতে চাইছে না ঠাকুর দেখতে প্যান্ডেলে-প্যান্ডেলে ভিড় করা জনতা।

এদিন সকালে উত্তর কলকাতার এক জনপ্রিয় পুজোর বাইরে মাস্কহীন এক জনতাকে ধরতেই তাঁর বক্তব্য, ‘পুরো প্যান্ডেলটা মাস্ক পরেই ঘুরলাম। বাইরে এসে মাস্ক খুলে একটু বাতাস নিচ্ছি। যা গরম!’ এরপর সেই প্যান্ডেলের এক উদ্যোক্তাকে মাস্কহীন জনতা নিয়ে প্রশ্ন করলে তাঁর জবাব, ‘হাইকোর্টের বিধি মেনে প্যান্ডেলকে দর্শকশূন্য করেছি। ভিড় নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা নিয়েছি। এবার কে মাস্ক পরছে না সেটা দেখা কী সম্ভব? তবে মাস্কহীন জনতার মুখে আমরা দায়িত্ব নিয়ে মাস্ক তুলে দিচ্ছি।‘

অপরদিকে, ৎসবের উপহার রাজ্য পরিবহণ দফতরের। আজ থেকেই কলকাতা থেকে চালু হচ্ছে নাইট সার্ভিস বাস। পঞ্চমী থেকে শুরু হয়ে লক্ষ্মীপুজো পর্যন্ত মিলবে এই পরিষেবা। পুজোর ক’দিনই এই পরিষেবা চালু থাকায় বাসে ঘুরে ঠাকুর দেখার ক্ষেত্রেও মিলবে ভরপুর সুবিধা। করোনা পরিস্থিতির জেরে রাতের এই বাস পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তবে পুজো উপলক্ষে আপাতত লক্ষ্মীপুজো পর্যন্ত ফের চালু রাতের বাস সার্ভিস।

জানা গিয়েছে, কলকাতা থেকে ১৪ টি রুটে মিলবে এই নাইট বাস সার্ভিস। রাত জেগে ঠাকুর দেখার ক্ষেত্রে মিলবে দারুণ সুবিধা। রীতিমতো পরিকল্পনা করে রাতের এই বাস পরিষেবা ফের চালু করল রাজ্য পরিবহণ দফতর। আজ থেকে আগামী ১১ দিন ধরে এই পরিষেবা মিলবে শহর কলকাতার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। হাওড়া স্টেশন থেকে বিমানবন্দর, বারাসত, ব্যারাকপুর, ডানলপ, কামালগাজি, গড়িয়া, বালিগঞ্জ পর্যন্ত চলবে রাতের এই বাস। সহজেই বিভিন্ন এলাকা থেকে এই বাসে চড়ার সুযোগ পাবেন যাত্রীরা। এছাড়াও হাওড়া-নিউটাউন, হাওড়া-করুণাময়ী, শ্যামবাজার-বারাসত, বেলগাছিয়া-এসপ্ল্যানেড রুটেও চলবে রাতের বাস।

পঞ্চমীর রাত থেকেই এবার পুরোদমে চালু হচ্ছে নাইট বাস সার্ভিস। তবে যাত্রী সংখ্যা বাড়লে ষষ্ঠী থেকে বাসের সংখ্যা আরও বাড়ানো হতে পারে। উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতির জেরে এবারও রাতভর মেট্রো সার্ভিস থাকছে না। স্বাভাবিকভাবেই ঘুরে-ঘুরে ঠাকুর দেখার ক্ষেত্রে জোর সমস্যায় পড়তে হতো দর্শনার্থীদের। এছাড়াও করোনাকালে এখনও রাজ্যে লোকাল ট্রেন পরিষেবাও চালু হয়নি। সেই কারণেই যাত্রীদের সুবিধা দিতে উৎসবের উপহার রাজ্য পরিবহণ দফতরের।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Puja holiday will clash with national holiday on 2022 state

Next Story
অষ্টমী পর্যন্ত নির্বিঘ্নে ঠাকুর দর্শন! নবমী থেকে বৃষ্টিতে ভাসতে পারে দক্ষিণবঙ্গIn Kolkatas Alimuddin Street area residents bring back Durga Puja after 15 years
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com