scorecardresearch

পদ্মশিবিরের ‘মধ্যাহ্নভোজ রাজনীতি’ জারি, হাওড়ার কর্মীর বাড়ি পঞ্চব্যঞ্জন খেলেন স্মৃতি

পথ দেখিয়েছিলেন অমিত শাহ থেকে জে পি নাড্ডারা। সেই ধারা বজায় রাখলেন কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী।

smriti irani lunch bjp howrah Baltikuri, স্মৃতি ইরানি মধ্যাবহ্নভোজ হাওড়া
দলীয় কর্মীর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সারছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

তখন বাংলা জয়ের স্বপ্নে বিভোর ছিলেন গেরুয়া নেতারা। আত্মবিশ্বাসী ছিলেন ২০০ আসন জয়ের। নবান্ন দখলে মরিয়া বিজেপি নেতৃত্ব জানতেন আদিবাসী, দলিত, উদ্বাস্তুদের ভোট এ রাজ্যের একাধিক আসনে ফলাফল নির্ণয়ে বড় ফ্যাক্টর। তাই অমিত শাহ থেকে জে পি নাড্ডারা- বাংলায় প্রচারের ফাঁকে কখনও আদিবাসী, কখনও-বা দলিত, উদ্বাস্তুদের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সেরেছিলেন। পদ্ম ক্ষমতায় এলে এঁদেরই চাহিদা পূরণ হবে বলে কৌশলে বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। রাজ্য-রাজনীতিতে যা ‘মধ্যাহ্নভোজ রাজনীতি’ নামেই পরিচিত হয়।

ভোটের ধরাশায়ী হয়েছে বিজেপি। সংগঠনের হালও নড়বড়ে। কিন্তু, ‘মধ্যাহ্নভোজ রাজনীতি’ থেকে এখনও সরতে পারেনি গেরুয়া দলের নেতা, নেত্রীরা। মঙ্গলবার, হাওড়ার বালটিকুড়ি এলাকায় জনসংযোগ করে সেখানেই দলীয় কর্মীর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি।

স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষে এ দিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির নেতৃত্বে পদযাত্রা হয়। হাওড়ার কদমতলা বাস স্ট্যান্ড থেকে হাওড়া ময়দান পর্যন্ত হয় পদযাত্রা। এরপরই হাওড়ার বালটিকুড়ির বিজেপি পৃষ্ঠ-প্রমুখেরপ বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সারেন স্মৃতি।

আমিষ নয়, নিরামিষ পদেই মধ্যাহ্নভোজ সারেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। স্মৃতি ইরানির মেনুতে ছিল- ভাত, মুগের ডাল, আলু পোস্ত, শুক্ত, আলু ভাজা, পটল ভাজা, বেগুনভাজা, চাটনি এবং দই। মধ্যহ্নভোজের সঙ্গেই বিজেপি কর্মীর বাড়ির খুদেদের কখনও কোলে বসিয়ে আদর করতে, আবার কখনও খাইয়ে দিতে দেখা যায় স্মৃতিু ইরানিকে। খাওয়া শেষে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে মহিলাদের সঙ্গে আড্ডা দিতেও দেখা যায়।

হাওড়ার কর্মীর বাড়িতে স্মৃতি ইরানি।

এ দিন হাওড়ার কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে কর্মিসভা করেন বিজেপির এই শীর্ষ নেত্রী।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Smriti irani lunch bjp howrah baltikuri