বড় খবর

Students credit Card: ‘আমরা কথা রাখি’, স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ড চালু করে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Students Credit Card: ‘লেখাপড়ার যাবতীয় খরচ এই প্রকল্পে ঋণ পাবে। স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ডে গ্যারান্টার রাজ্য সরকার।’

Mamata, Students Credit card
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ফাইল ছবি

বুধবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন তিনি স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ড প্রসঙ্গ তুলে ধরেন। এদিন থেকেই রাজ্যে চালু হল স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ড। তার দাবি, ‘আমরা উন্নয়নেই কাজ করি। এটা বিশ্ব তথা দেশে সর্ববৃহৎ প্রকল্প। বলেছিলাম স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ড দেব। আমরা কথা দিয়ে কথা রাখি। এই ক্রেডিট কার্ডে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ।‘

তিনি বলেছেন, ‘লেখাপড়ার যাবতীয় খরচ এই প্রকল্পে ঋণ পাবে। স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ডে গ্যারান্টার রাজ্য সরকার। ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত এই সুবিধা পাওয়া যাবে। এই কার্ডের ঋণ শোধের মেয়াদ ১৫ বছর। এটা অনেক সময়। চাকরি পেয়ে এই ঋণ শোধ করতেই এই সুবিধা। ব্যাঙ্ক এবং সমবায় ব্যাঙ্ক থেকে এই ঋণ পাওয়া যাবে।‘

কোন কোন ক্ষেত্রে এই ঋণের সুবিধা? মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রস্তুতি, গবেষণা, কোর্স ফি, টিউশন ফি, কম্পিউটার, ল্যাপটপ কিনতে লোন। দশম শ্রেণি পাশ করেই এই সুযোগ পাবে।‘ ছাত্র বন্ধু হিসেবে এই ক্রেডিট কার্ড তুলে ধরতে এই আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী।    পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষা পর্ষদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এই ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করতে পড়ুয়াদের পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী। জালিয়াতি ও প্রতারণা রুখতে এই ব্যবস্থা। এদিন স্পষ্ট করেন তিনি। এই ক্রেডিট কার্ড প্রসঙ্গে একটি টোল ফ্রি নাম্বার ও ওয়েবসাইট ঘোষণা করেন তিনি। দেখুন সেই নাম্বার 18001028014 (toll free number)

ভ্যাকসিন-কাণ্ডে সরব হয়ে তিনি বলেন, ‘চোর-ডাকাতেরা ছবি তুলে রাখার চেষ্টা করে। আমার সঙ্গেও অনেকে ছবি তোলার চেষ্টা করেছে। আমি না করে দিই। দুষ্টু লোকেরা সরকারের লোগো জাল করে। ভ্যাকসিন নিয়ে যা হল সেটা একটা বিছিন্ন ঘটনা।’ এই কাণ্ড বিজেপি যে সাজিয়ে রাখেনি, তার কী নিশ্চয়তা আছে? বিজেপি লোক সাজিয়ে বাংলাকে বদনামের চেষ্টা করছে।

এদিকে, এদিন তিনি ঘোষণা করেন, ‘এসএসকেএম এবং উত্তরবঙ্গে ক্যান্সার হাসপাতাল হবে। টাটা মেডিক্যালের সঙ্গে হাত মিলিয়ে এই উদ্যোগ। রাজ্যের ক্যান্সার আক্রান্তের ২৫% মুম্বাইতে যান চিকিৎসা করাতে। সেই শ্রম কমাতেই এই উদ্যোগ।‘ ভ্যাকসিনেশন নিয়েও কেন্দ্রকে তোপ দেগেছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ৩ কোটি টিকা চেয়েছিলাম, পেয়েছি ১.৯৯ কোটি। কেন তোমরা ৩ কোটি পাঠাওনি। রাজস্থানের মতো ছোট রাজ্য পর্যাপ্ত টিকা পাচ্ছে। আমরা কেন চেয়েও পাচ্ছি না। ভ্যাকসিন প্রয়োগে বাংলা প্রথমে। আমার কাছে ভ্যাকসিন নেই বলে কলকাতায় শুধু দ্বিতীয় ডোজ। ভ্যাকসিন কিনতেও দিচ্ছে না, নিজেও পাঠাচ্ছে না।‘ তার দাবি, ‘১৮ লক্ষ ডোজ রাজ্য কিনে দিয়েছে। এখনও পর্যন্ত ২ কোটি ৭৭ লক্ষ মানুষের টিকাকরণ হয়েছে।‘

 ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Students credit card bengal cm unveils the schemes before media state

Next Story
ডাইনী সন্দেহে মার মহিলাকে, গ্রেফতার তিন
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com