scorecardresearch

বড় খবর

‘পশ্চিমবঙ্গ না হিটলারের জার্মানি?’, আন্দোলনকারীদের সরানোয় রেগে অগ্নিশর্মা শুভেন্দু

মাঝরাতে করুণাময়ী চত্বর থেকে টেট আন্দোলনকারীদের টেনে-হিঁচড়ে সরিয়ে দেয় পুলিশ।

‘পশ্চিমবঙ্গ না হিটলারের জার্মানি?’, আন্দোলনকারীদের সরানোয় রেগে অগ্নিশর্মা শুভেন্দু
বিক্ষোভকারীদের সরানো নিয়ে ক্ষুব্ধ বিরোধী দলনেতা।

‘পশ্চিমবঙ্গ না হিটলারের জার্মানি?’, সল্টলেকের করুণাময়ীতে মাঝরাতে টেট আন্দোলনকারীদের টেনে-হিঁচড়ে সরানো নিয়ে টুইট রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর। রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপির পাশাপাশি করুণাময়ীতে মাঝরাতে আন্দোলনকারীদের তুলে দেওয়া নিয়ে প্রশাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার বামেরাও। আজ বেলা ১২টায় করুণাময়ী মোড় থেকেই প্রতিবাদ মিছিলের ডাক এসএফআই-ডিওয়াইএফআইয়ের। রাজ্যজুড়ে আজ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করবে বামেরা।

চাকরির দাবিতে একটানা চার দিন ধরে সল্টলেকের করুণাময়ীতে রাস্তায় শুয়ে-বসে প্রতিবাদ দেখাচ্ছিলেন ২০১৪ টেট উত্তীর্ণ নন-ইনক্লুডেড প্রার্থীরা। তাঁদের গত কয়েকদিন ধরেই আন্দোলন তুলে নিতে বারবার অনুরোধ করা হয়েছে পুলিশের তরফে। কিন্তু দাবিতে অনড় ছিলেন বিক্ষোভকারীরা। চাকরি না মিললে আন্দোলন তাঁরা তুলবেন না বলে সাফ জানিয়েছিলেন।

গত চার দিন ধরে করুণাময়ী মোড় কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছিল। ওই রাস্তায় যান চলাচল সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ ছিল। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের দফতরের কাছেই রয়েছে একটি হাসপাতাল। টানা চারদিন ধরে এই বিক্ষোভ-ধর্না চলার জেরে ওই হাসপাতালে ঢোকা-বেরনোর পথে যারপরনাই সমস্যায় পড়তে হয়েছে রোগী ও তাঁদের পরিজনেদের।

এদিকে, একটানা ৮৪ ঘণ্টা ধরে বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে বহু বিক্ষোভকারী অসুস্থও হয়ে পড়েন। তাঁদেরকে জল খাওয়াতে দেখা যায় বাম নেতা-কর্মীদের। বৃহস্পতিবার সন্ধে থেকে বিক্ষোভকারীদের সরে যাওয়ার জন্য মাইকে ঘোষণা করতে শুরু করেছিল পুলিশ। কিন্তু, বিক্ষোভকারীরা ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে তাঁদের বিক্ষোভ চালিয়ে যেতে থাকেন। এরপরই বিশাল বাহিনী দিয়ে ঘিরে ফেলা হয় করুণাময়ী চত্বর। আন্দোলনকারীদের তুলে নিয়ে যাওয়ার জন্য আসে পুলিশের গাড়ি ও বাস। শেষমেশ মাঝরাতে ‘অপারেশন’ শুরু করে পুলিশ। টেনে হিঁচড়ে সরিয়ে দেওয়া হয় আন্দোলনকারীদের। করুণাময়ী চত্বর ফাঁকা করে দেয় পুলিশ।

আরও পড়ুন- মধ্যরাতে খালি করা হল করুণাময়ীর বিক্ষোভস্থল, জোর করে চাকরিপ্রার্থীদের তুলে নিয়ে গেল পুলিশ

রাজ্য পুলিশের এই ভূমিকায় যারপরনাই ক্ষুব্ধ বিরোধীরা। বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী টুইটে লিখেছেন, ”পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। মমতার পুলিশ সল্টলেকে ২০১৪ টেটের আন্দোলনকারী উপর নৃশংসভাবে বল প্রয়োগ করেছে। রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ড অফিসের কাছে তাঁদের বৈধ অবস্থান বিক্ষোভ জোরপূর্বক শেষ করতে শক্তি প্রয়োগ করা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ না হিটলারের জার্মানি?”

অন্যদিকে, রাজ্য প্রশাসনের এই ভূমিকার প্রতিবাদে সরব বামেরাও। টেট আন্দোলনকারীদের এভাবে সরিয়ে দেওয়ার প্রতিবাদে আজ রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে বামেরা। করুণাময়ী থেকে প্রতিবাদ মিছিল শুরু হবে বেলা ১২টায়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Suvendu adhikari slams wb police regarding karunamayi protestors arrest issue