দিল্লি গেলেন রাজীব কুমারের বাড়িতে হানা দেওয়া সিবিআই দলের প্রধান

কয়েকদিন ধরেই ইতিউতি শোনা যাচ্ছিল, সারদাকাণ্ডের তদন্তে সহযোগিতা না করার জন্য এবং বেশ কয়েকবার সমন অগ্রাহ্য করায় রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করতে পারে সিবিআই।

By: February 4, 2019, 4:22:47 PM

সিবিআই বনাম মমতা প্রশাসন লড়াইয়ে যখন উত্তাল কলকাতা, তখনই শহর ছাড়লেন সিবিআই-এর ডিএসপি তথা সারদা চিটফান্ডকাণ্ডের মূল তদন্তকারী অফিসার তথাগত বর্ধন। সোমবার সকালেই কিঞ্চিত ‘চুপিসাড়ে’ কলকাতা থেকে দিল্লি উড়ে গিয়েছেন ডিএসপি বর্ধন এবং তদন্তকারী দলের আরেক অফিসার।

কেন হঠাৎ দিল্লিতে?

রবিবার সন্ধ্যায় হঠাৎ কলকাতার নগরপাল রাজীব কুমারের সরকারি বাসভবনের বাইরে সিবিআই তদন্তকারীদের একটি দলকে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়। কয়েকদিন ধরেই ইতিউতি শোনা যাচ্ছিল, সারদাকাণ্ডের তদন্তে সহযোগিতা না করার জন্য এবং বেশ কয়েকবার সমন অগ্রাহ্য করায় রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করতে পারে সিবিআই। এমন পরিস্থিতিতে রবিবার সন্ধ্যায় নগরপালের বাসভবনের সামনে সিবিআইকর্তাদের হানা দিতে দেখে বাধা দেয় কলকাতা পুলিশ। প্রথমে দু’পক্ষের মধ্যে কথাবার্তা চললেও দ্রুত পরিস্থিতি বদলে যায়। কিছুক্ষণের মধ্যেই সিবিআই তদন্তকারীদের টেনে হিঁচড়ে গাড়িতে তোলে কলকাতা পুলিশ এবং তাঁদের আটক করে কলকাতার শেক্সপিয়ার সরণি থানায় রাখা হয়। সূত্রের খবর, সিবিআই-এর শীর্ষকর্তাদের এই হয়রানির বিস্তৃত বিবরণ দিতেই দিল্লি গিয়েছেন ডিএসপি বর্ধন এবং আরেক অফিসার।

আরও পড়ুন: কে এই রাজীব কুমার ? তাঁর বিরুদ্ধে কী অভিযোগ?

এদিকে, গতকালের হয়রানির ঘটনা নিয়ে কলকাতার নিজাম প্যালেস এবং সল্টলেকের সিজিও কম্পলেক্সে রীতিমতো চর্চা শুরু করেছেন সিবিআই তদন্তকারীরা। কলকাতা পুলিশের যেসব অফিসারদের হাতে সিবিআই তদন্তকারীরা আহত হয়েছেন বা হয়রানির শিকার হয়েছেন, এই মুহূর্তে তাঁদের চিহ্নিতকরণের কাজ চলছে। উল্লেখ্য, এদিন লোকসভার অধিবেশনে এ বিষয়ে সরব হয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি বলেছেন, কেন্দ্রীয় তদন্তকারীদের উপর এমন আক্রমণ নজিরবিহীন। ঘটনার নিন্দা করে তিনি বলেছেন, ‘‘পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব ও ডিজিপিকে তলব করেছেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। এ ঘটনায় অবিলম্বে পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি’’।

মমতার ধর্না মঞ্চের প্রতি মুহূর্তের লাইভ আপডেট জেনে নিন এখানে ক্লিক করে

উল্লেখ্য, আজ সোমবারই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় সিবিআই। আদালতে আশঙ্কা প্রকাশ করে সিবিআই দাবি করে, রাজীব কুমার তদন্তে প্রয়োজনীয় নথি ও প্রমাণ নষ্ট করতে পারেন। প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ এরপর বলে, রাজীব কুমার যে প্রমাণ নষ্ট করেছেন বা করতে পারেন তা প্রমাণ করতে হবে সিবিআই-কে। যদি প্রমাণ মেলে সেক্ষেত্রে কলকাতার নগরপালকে ভবিষ্যতে দুঃখ করতে হবে। অর্থাৎ, প্রমাণ দিতে পারলে যে আদালত কড়া ব্যবস্থা নেবে তা স্পষ্ট। কিন্তু, সে ক্ষেত্রে প্রমাণ দিতে পারাটা জরুরি।

আরও পড়ুন- ”সিবিআই বনাম দিদিভাই”, মিমে মাতোয়ারা নেটপাড়া

আগামি কাল এই মামলার পরবর্তী শুনানি। এমতাবস্থায় নগরপালের বাড়িতে গতকাল হানা দিয়ে ‘নজিরবিহীন হয়রানি’র সাক্ষী সিবিআই তদন্তকারী দলের অভিজ্ঞতা জেনে নিয়ে যে মঙ্গলবারের সওয়ালের জন্য যুক্তি সাজাবে সিবিআই, সে বিষয়ে নিঃসন্দেহ সংশ্লিষ্ট মহল।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the West-bengal News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

The chief of cbi team which raids rajeev kumars house went to delhi

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
অস্বস্তি
X