scorecardresearch

সন্ধের আকাশে অদ্ভুত আলো কীসের? অবশেষে জানা গেল রহস্য

এমন ধরনের আলো সচরাচর আকাশে দেখা যায় না বলেই জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

সন্ধের আকাশে অদ্ভুত আলো কীসের? অবশেষে জানা গেল রহস্য

গুরুবারে সন্ধ্যায় বাংলার আকাশে দেখা দিল এক অদ্ভুত আলো। রীতিমতো দিব্যজ্যোতির মত ওই আলোয় স্বভাবতই মানুষের মধ্যে কৌতূহল তৈরি হয়। বিজ্ঞানমনস্ক অনেকে একে ভিনগ্রহের প্রাণীদের যান বলেও কল্পনা করেন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও এনিয়ে ছড়িয়ে পড়ে জল্পনা। আর সেই জল্পনা যখন তুঙ্গে, সেই সময় ওই আলোর উৎসের সন্ধান জানাল প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সূত্র। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার অগ্নি-৫ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা হয়েছে। আর, এই পরীক্ষা সফল হয়েছে। তবে, প্রতিরক্ষা গবেষণা সংস্থা ডিআরডিও এনিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানায়নি।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, ওড়িশার চাঁদিপুরে এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা করা হয়েছে। চাঁদিপুর বাংলার অত্যন্ত কাছাকাছি হওয়ায়, ক্ষেপণাস্ত্রের আলো বাংলা থেকেও দেখা গিয়েছে। সূত্রের খবর, সন্ধ্যার আকাশে এই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা প্রথমবার চালাল প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। এর বিশেষ কারণ রয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে। পাঁচ হাজার কিলোমিটার পাল্লা এই ক্ষেপণাস্ত্রের। অন্ধকারেও তা নিখুঁতভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। শুধু তাই নয়, ডিআরডিওর নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি এই ক্ষেপণাস্ত্র পরমাণু অস্ত্রবহনে সক্ষম।

সম্প্রতি গালওয়ান সীমান্ত সংঘর্ষের স্মৃতি জাগিয়ে অরুণাচলের তাওয়াং সীমান্তে হামলা চালিয়েছে চিনের সেনা। তাদের সীমান্ত দখলের চেষ্টা ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রতিরোধ করেছে। পরিস্থিতি আপাতত শান্তও। কিন্তু, চিনের আচরণ মোটেও ভালো চোখে দেখছে না প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। কারণ, সীমান্তের ওপারে গোপনে ভারী অস্ত্র ও সেনা মজুত করছে চিন। স্যাটেলাইট চিত্রে চিনের এই সব কার্যকলাপ ধরা পড়ায় পালটা প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে ভারতও। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, অগ্নি-৬ এর মত আরও দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এই ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা প্রায় ১০ হাজার কিলোমিটার হবে।

আরও পড়ুন- বিপুল সংখ্যক বিচারপতির আসন শূন্য, নিয়োগ সরকারের হাতে নেই, সাফাই আইনমন্ত্রীর

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, এছাড়া অন্য কোনও আলো ওই সময়ে দেশের পূর্ব আকাশে ধরা পড়েনি। অন্তত প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের উন্নত ক্যামেরা এবং অন্যান্য যন্ত্রপাতিতে তা দেখা যায়নি। সূত্রের খবর, সেই কথা মাথায় রেখেই মন্ত্রকের ধারণা, রাজ্যবাসী ক্ষেপণাস্ত্রের আলো দেখেই জল্পনা করছেন। তবে, প্রতিরক্ষা মন্ত্রক এই সব ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা গোপনই রাখতে চায়। সেই কারণে এনিয়ে কোনও বিবৃতিও দেয়নি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: The ministry of defense revealed what is the strange light in the sky