বড় খবর

অগ্নিগর্ভ গুড়াপ, ‘পুলিশের গুলিতে’ আহত এক

পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে সেখানে পৌঁছলে পুলিশের বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগকে ঘিরে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় হুগলির গুড়াপ।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্য পুলিশের। প্রতীকী ছবি।

ফের ‘জয় শ্রীরাম’ ধবনিতে উত্তাল বঙ্গ রাজনীতি। বুধবার রাতে বিজেপি সমর্থকদের দেওয়া ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি ঘিরে গুড়াপে সংঘর্ষে জড়ায় তৃণমূল-বিজেপি, এমনটাই খবর। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে পুলিশের বিরুদ্ধেই গুলি চালানোর অভিযোগ ওঠে। এর পরই কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়  হুগলির গুড়াপ। পুলিশের বিরুদ্ধে এবং তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের গ্রেফতারির দাবিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে গুড়াপ, ধনেখালি-সহ একাধিক জায়গা। টায়ার জ্বালিয়ে এদিন রাস্তা অবরোধ করেন বিজেপিকর্মী সমর্থকেরা। বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলেন, মুখ্যমন্ত্রীকে গুলিচালনার জবাব দিতে হবে।

আরও পড়ুন- লোকসভায় গিয়ে প্রথম কী চাইলেন মিমি-নুসরত?

প্রত্যক্ষদর্শী এবং পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিক্ষোভকারীরা থানা ঘেরাও করে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করে এবং থানা লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টিও করে। তাঁদের রুখতে দফায় দফায় কাঁদানে গ্যাস ছুড়তে হয় পুলিশকে। পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পৌঁছয় বিশাল পুলিশ বাহিনী এবং র‌্যাফ।

ঠিক কী ঘটেছিল গুড়াপে?

ঘটনার সূত্রপাত বুধবার রাতে। গুড়াপ থানা এলাকার বাথানগেড়িয়া গ্রামে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হয় তৃণমূল এবং বিজেপি কর্মীদের মধ্যে। বিজেপির তরফে দাবি করা হয়, বুধবার রাতে তাঁদের কয়েকজন সমর্থক ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিলে বাধা দেয় স্থানীয় তৃণমূল সদস্যরা। আর এর জেরেই শুরু হয় বচসা। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় গুড়াপ থানার পুলিশ। স্থানীয়দের দাবি, এর পরেই বিজেপিকর্মীরা পুলিশকে ঘিরে ধরে এবং পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি, মারামারি শুরু হয়ে যায়। সেই সময়েই পুলিশের হাত থেকে পিস্তল ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে অসাবধানতায় পিস্তল থেকে গুলি ছিটকে গিয়ে লাগে এক গ্রামবাসীর, দাবি পুলিশের। এর জেরেই উত্তেজিত জনতা ভাঙচুর চালায় পুলিশের গাড়িতে। রাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও এদিন সকাল থেকে ফের উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়।

আরও পড়ুন- ঝাড়খণ্ডের ‘খুন’ মানবতার কলঙ্ক: সৌগত রায়

এই ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় গ্রামবাসী ও বিজেপিকর্মী সমর্থকেরা বৃহস্পতিবার রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানায়। দফায় দফায় চলে রাস্তা অবরোধ। বন্ধ করে দেওয়া হয় ধনেখালি রোড। এদিন বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল গুড়াপের অশান্ত এলাকা পরিদর্শনে করে। রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইচ্ছাকৃত এই সব ঘটনা ঘটাচ্ছেন। এক শ্রেণির দালাল পুলিশ নিয়ে উনি এসব করছেন”। অন্যদিকে, বিধায়ক তথা হুগলির তৃণমূল নেতা প্রবীর ঘোষাল বলেন, “বিজেপি সমর্থকেরাই তৃণমূলকে আক্রমণ করেছে এবং তাঁরা আইন নিজের হাতে তুলে নিয়ে পুলিশকেও আক্রমণ করে। অলীক অভিযোগ করছে বিজেপি”।

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Tmc bjp clash gurap turned into battleground after police firing

Next Story
কিছুক্ষণের মধ্যেই বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি, পূর্বাভাস আলিপুরেরRain,বৃষ্টি, Kolkata, আবহাওয়া, evening, বিকেল, Weather, কলকাতা, Monsoon, বর্ষাকাল, Summer, গরমকাল
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com