scorecardresearch

বড় খবর

নবান্ন অভিযানের দিন বেধড়ক মার তৃণমূলের প্রধানকে, ‘ট্রিটমেন্ট দেওয়া হয়েছে’, বললেন দিলীপ

মারমুখী বিজেপি কর্মীদের হাত থেকে পুলিশই বাঁচিয়েছেন ওই তৃণমূল নেতাকে।

নবান্ন অভিযানের দিন বেধড়ক মার তৃণমূলের প্রধানকে, ‘ট্রিটমেন্ট দেওয়া হয়েছে’, বললেন দিলীপ
তৃণমূল নেতাকে মারধর নিয়ে দিলীপ ঘোষের মন্তব্যে বিতর্ক।

নবান্ন অভিযানের দিন বিজেপির বিক্ষোভস্থলের কাছ দিয়ে যেতে গিয়ে বেধড়ক মার তৃণমূলের প্রধানকে। তৃণমূল নেতাকে লাঠি পেটা বিজেপি কর্মীদের। তাড়া করে নিয়ে গিয়ে রাস্তায় শুয়ে ফেলে মার। শেষমেশ পুলিশি হস্তক্ষেপে নিস্তার মেলে তৃণমূল নেতার। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে তমলুকে। ‘ট্রিটমেন্ট দেওয়া হয়েছে’, শাসকদলের নেতাকে মারধর নিয়ে প্রতিক্রিয়া বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষের।

বিজেপির নবান্ন অভিযানকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার উত্তাল হয় শহর কলকাতার বিস্তীর্ণ প্রান্ত। দিকে-দিকে পুলিশের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ চলে বিজেপি কর্মীদের। সাঁতরাগাছি থেকে শুরু করে হাওড়ার বিস্তীর্ণ এলাকা-সহ মহাত্মা গান্ধী রোড, লালবাজার চত্বরেও ধুন্ধুমার কাণ্ড বেঁধে যায়।

শুভেন্দু অধিকারী, সুকান্ত মজুমদার, রাহুল সিনহা, লকেট চট্টোপাধ্যায়-সহ বিজেপির তাবড় নেতাদের আটক করে পুলিশ। কোথাও কোথাও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাথর বৃষ্টি চলে। কোথাও ক্ষোভের রোষে পুড়েছে পুলিশের গাড়ি। বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের ছোড়া ইটের ঘায়ে জখম হয়েছেন পুলিশের বহু কর্মী। পাল্টা লাঠিচার্জেও আহত হয়েছেন বিজেপি কর্মীরাও।

আরও পড়ুন- West Bengal Nabanna Abhiyan Live: রণক্ষেত্র এমজি রোড, লালবাজারের কাছে পুলিশের গাড়িতে আগুন

এদিকে, মঙ্গলবার সকালে তমলুক দিয়ে আসার পথে হলদিয়ার বিজেপি বিধায়ককে আটকানো হয় বলে অভিযোগ। তিনি নবান্ন অভিযানে যোগ দিয়ে কলকাতার দিকে যাচ্ছিলেন। দলীয় বিধায়ককে আটকানোর প্রতিবাদে তমলুক টোল প্লাজা চত্বরে বিক্ষোভ শুরু করে দেন বিজেপি কর্মীরা। ঠিক সেই সময়ে ওই এলাকা দিয়েই যাচ্ছিলেন তৃণমূলের রঘুনাথপুর ২ নং পঞ্চায়েতের প্রধান তারক জানা। বিজেপি কর্মীদের ক্ষোভ গিয়ে পড়ে এই তৃণমূল নেতার উপরেই।

আরও পড়ুন- ‘মহিলা পুলিশকর্মী দেখেই ফুঁস বিরোধী দলনেতা, এ তো লজ্জাবতী লতা!’ শুভেন্দুকে কটাক্ষ কুণালের

তারক জানাকে দেখেই তেড়ে যান বিজেপি কর্মীরা। কেউ কেউ লাঠি নিয়ে তাড়া করে বেধড়ক মারধর করেন তৃণমূল নেতাকে। কোনও মতে পালানোরা চেষ্টা করলেও তাঁর জামা টেনে ছিঁড়ে দেন বিজেপি কর্মীরা। এক সময় রাস্তায় পড়ে যান তারক। সেই সময়েও চলে বেধড়ক মার। শেষমেশ পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

কোনওমতে সেখান থেকে তৃণমূল নেতাকে উদ্ধার করে পাশের একটি দোকানে ঢুকিয়ে দেয় পুলিশ। এদিকে, নবান্ন অভিযানের দিন তৃণমূলের প্রধানকে এভাবে মারধর নিয়ে বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ বলেন, ”আজ কেন বাইরে বেড়িয়েছেন তৃণমূল নেতা? তাই তো ট্রিটমেন্ট দেওয়া হয়েছে।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tmc panchayet pradhan have beaten by bjp supporters at tamluk