বড় খবর

পুরসভায় চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা! গ্রেফতার দুই যুবক

Fraudster, KMC: চাকরি দেওয়ার নাম করে দীর্ঘদিন চাকরিপ্রার্থীদের প্রতারণার অভিযোগ! মানবাধিকার কর্মীদের তৎপরতায় কলকাতা পুলিশের হাতে গ্রেফতার দুই যুবক!

new services starts at kolkata municipal corporation
কলকাতা পুরসভার মূল অফিস। ছবি: নিজস্ব চিত্র

চাকরির দেওয়ার নামে প্রতারণা এদেশে বিরল কোনও ঘটনা নয়। সম্প্রতি তেমনই একটি বিষয় সামনে এল মানবাধিকার কর্মী এবং কলকাতা পুলিশের তৎপরতায়। কলকাতা পুরসভায় চাকরি দেওয়ার নাম করে চাকরিপ্রার্থীদের থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে দুই তরুণের বিরুদ্ধে। বুধবার, ১২ জুন ওই দুই তরুণকে স্থানীয় আদালতে তোলা হলে তাদের তিনদিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Two arrested over KMC employment fraud charges
পুরসভার কর্মী হওয়ার জালি পরিচয়পত্র ও অভিযুক্তের আধার কার্ড। ছবি সৌজন্য: নীলাদ্রি

তরুণ নস্কর ও তমাল ভট্টাচার্য, এই দুই তরুণের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। মানবাধিকার কর্মী নীলাদ্রি বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের অভিযোগ অনুযায়ী, কলকাতা পুরসভার বিভিন্ন পদে চাকরি নিশ্চিত করার নাম করে তরুণ নস্কর বহু চাকরিপ্রার্থীদের থেকে টাকা নিয়েছেন। এমনকী ছদ্ম পুলিশ ভেরিফিকেশনের ভান করে তমাল ভট্টাচার্য নামে আর এক তরুণ ওই সব চাকরিপ্রার্থীদের থেকে টাকা নিতেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

আরও পড়ুন: ‘মুকুলদা যে সম্মান দিলেন, আমি অত্যন্ত গর্বিত’: অভিনেতা প্রদীপ ধর

Two arrested over KMC employment fraud charges
দুই অভিযুক্তের গ্রেফতার। ছবি সৌজন্য: নীলাদ্রি বন্দ্যোপাধ্য়ায়

নীলাদ্রি বন্দ্য়োপাধ্য়ায় ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে জানালেন, ”আমরা হিউম্য়ান রাইটস কমিশনের জন্য় কাজ করছি বিগত দুবছর ধরে। আমাদের লক্ষ্য হল মানবাধিকার লঙ্ঘন ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করা। কলকাতা পুরসভায় চাকরি দেওয়ার নাম করে যে প্রতারণা চলছে, তেমন কিছু অভিযোগ আমাদের কাছে আসে। আমরা বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিক অনুসন্ধান শুরু করি। সেই অনুসন্ধানের ভিত্তিতেই জানতে পারি যে পুরসভার লোগো, প্রেজেন্টশন ইত্য়াদি ব্য়বহার করে তরুণ নস্কর নামের ওই তরুণ এই দুর্নীতি করে চলেছে। তখনই আমরা পুরসভার জয়েন্ট কমিশনার তাপস চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করি। তিনি আমাদের এই দুর্নীতি চক্রকে ফাঁস করার অনুরোধ জানান, কারণ এই ধরনের চক্রের ফলে পুরসভারও অনেক দুর্নাম হয়। আমরা তাই তথ্য়প্রমাণ জোগাড় করে কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ হই।”

Two arrested over KMC employment fraud charges
অভিযুক্তদের এফআইআর কপি।

নীলাদ্রি ও তাঁর সহকর্মীরা চাকরিপ্রার্থী সেজে তরুণ নস্করের সঙ্গে প্রথমে যোগাযোগ করেন। তার পরে নির্দিষ্ট সময়ে পুলিশ ভেরিফিকেশনের জন্য় তমাল ভট্টাচার্যকে পাঠানো হয় পুলিশের ছদ্মবেশে। মানবাধিকার কর্মীরা তার আগে থেকেই খবর দিয়েছিলেন ভবানীপুর থানার পুলিশকর্তাদের। তাঁরা সঠিক সময়ে এসে হাতে-নাতে ধরে ফেলেন তমাল ভট্টাচার্যকে এবং পরে গ্রেফতার করা হয় তরুণ নস্করকে। ওই দুই তরুণের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন মানবাধিকার কর্মীরা।

Human Rights Commission's certificate
মানবাধিকার কমিশনের দুর্নীতি দমন শাখার শংসাপত্র। ছবি সৌজন্য়: নীলাদ্রি বন্দ্যোপাধ্য়ায়

অভিযুক্তদের বুধবার আদালতে তোলা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে ভবানীপুর থানা সূত্রে। অভিযোগকারী মানবাধিকার কর্মী নীলাদ্রি বন্দ্যোপাধ্যায় ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে জানিয়েছেন যে ওই দুই অভিযুক্তকে তিনদিন পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নীলাদ্রি এই প্রসঙ্গে জানান, ”এই শহরে এমন অনেক প্রতারক চাকরি দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ করে চলেছে যুবক-যুবতীদের থেকে। আমাদের আবেদন, নাগরিকরা এই বিষয়টি সম্পর্কে আরও বেশি করে সচেতন হোন। তাঁরা সচেতন না হলে এই ধরনের প্রতারকদের আটকানো সম্ভব নয়। ”

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Two arrested over kmc employment fraud charges

Next Story
নীলরতনের ঢেউ জাতীয় স্তরে, রাজ্যের ডাক্তারদের পাশে আইএমএ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com