বড় খবর

গৃহবন্দি বাংলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে ৪০ হাজার, আক্রান্ত ৯৫

রাজ্য সরকারের জারি করা বিবৃতি অনুসারে বাংলায় এখনও পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে প্রায় ৪০৫৭৬ জন, হাসপাতালের আইসোলেশনে রয়েছেন ৩২৯ জন।

যে পর্যায়ে পৌঁছেছে করোনাভাইরাস, সেখানে একচেটিয়া দাপট দেখানোর সম্ভাবনাই বেশি। তবে করোনা মোকাবিলা করতে সবরকম প্রচেষ্টাই গ্রহণ করছে রাজ্য সরকার। রবিবার যদিও কোনও আক্রান্তের খবর জানা যায়নি। রাজ্য সরকারের জারি করা বিবৃতি অনুসারে বাংলায় এখনও পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে প্রায় ৪০৫৭৬ জন, হাসপাতালের আইসোলেশনে রয়েছেন ৩২৯ জন, নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৫২৩ জনের এবং কোভিড-১৯-এ আক্রান্তের সংখ্যা ৯৫।

এদিকে রবিবার করোনা রুখতে রাজ্যসরকারের তরফে জারি করা হল কড়া নির্দেশিকা। প্রকাশ্য এলাকায় বেরলে অতি অবশ্য পরতে হবে মাস্ক, লকডাউন বাংলায় জারি থাকবে এই নির্দেশ। রাজ্যে যে হারে বাড়ছে করোনা, সেই আবহে এবার মাস্ক পরাকে বাধ্যতামূলক করল রাজ্য সরকার।

অন্যদিকে,  শনিবার সাংবাদিক বৈঠক বরাভয় দিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন যে, “এখন সংখ্যাটা বাড়বে কিন্তু আতঙ্কিত হবেন না”। তাই করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির সিদ্ধান্তেই অনড় থেকেছেন মমতা। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক সেরে তিনি জানিয়ে দেন, “প্রধানমন্ত্রী বলেছেন ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানো হবে দেশে। আমরাও সকলে সহমত হয়েছি। আমি আমার রাজ্যেও ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন বাড়াচ্ছি”।

এদিকে, করোনা মোকাবিলায় নতুন অ্যাপ চালু করেছে মমতা সরকার। করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় হটস্পট খুঁজে বের করতে রাজ্যে ‘সন্ধানে’ নামের নতুন অ্যাপ চালু করা হয়েছে। মূলত আশাকর্মীদের জন্যই এই অ্যাপ চালু করা হয়েছে। এছাড়াও কৃষকদের জন্য নয়া অ্যাপ ‘অন্নদাত্রী’ আনা হচ্ছে। যার মাধ্যমে শস্য কেনা যাবে।

তবে দ্বিতীয় দফার লকডাউনে বেশ কিছু ছাড়ও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। নিয়ম মেনে চালু হবে বেকারিও। চালু হবে গম-তেলের মিল। এছাড়াও ছাড় দেওয়া হচ্ছে অনলাইন ফুড ডেলিভারিকে। সকাল ১০টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত দোকান খোলা রাখার কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে কঠিন পরিস্থিতিতে লড়াই জারি রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে আর্থিক প্যাকেজ দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। মমতা বলেন, “আমরা রাজ্যের জন্য ২৫ হাজার কোটি টাকার বিশেষ প্যাকেজ চেয়েছি”। কেন্দ্রের বিভিন্ন প্রকল্প থেকে আমরা ৩৬ হাজার কোটি টাকা পাই, সেটা দিতে বলেছি। জিএসটি বাবদ ১১ হাজার ২০০ কোটি টাকা পাই, সেটা দিতে বলেছি। অসংগঠিত ও ক্ষুদ্র-মাঝারি শিল্পে আর্থিক প্যাকেজের দাবি জানিয়েছি”।

এদিকে দেশে ক্রমশ গাঢ় হচ্ছে করোনা পরিস্থিতি। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুসারে দেশে করোনা সংক্রমিত বেড়ে ৮৪৪৭। এদের মধ্যে ৭১৬ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মৃত্যু হয়েছে ২৭৪ জনের। ইতিমধ্যেই কোভিড-১৯ ভাইরাস মোকাবিলার লক্ষ্যে ওড়িশা, পাঞ্জাব, বাংলা, কর্নাটক, মহারাষ্ট্র ও তেলেঙ্গানা সরকার ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত রাজ্যে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: West bengal coronavirus outbreak covid 19 latest news mamata banerjee kolkata 12 april 2020 live updates

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com