scorecardresearch

বড় খবর

আবারও রাজ্যের প্রকল্পের শ্রেষ্ঠত্বের স্বীকৃতি, দিল্লিতে সম্মানিত বাংলার ‘দুয়ারে সরকার’

বাংলার মুকুটে নয়া পালক!

আবারও রাজ্যের প্রকল্পের শ্রেষ্ঠত্বের স্বীকৃতি, দিল্লিতে সম্মানিত বাংলার ‘দুয়ারে সরকার’
'দুয়ারে সরকার' পেল কেন্দ্রের স্বীকৃতি।

আবারও রাজ্যের প্রকল্পকে শ্রেষ্ঠত্বের স্বীকৃতি দিল কেন্দ্রের মোদী সরকার। এবার কেন্দ্রের দেওয়া প্ল্যাটিনাম ডিজিটাল পুরস্কার পেল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যেপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত দুয়ারে সরকার প্রকল্প। শনিবার নয়াদিল্লির বিজ্ঞান ভবনের অনুষ্ঠানে রাজ্যকে এই পুরস্কার দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। রাজ্য সরকারের হয়ে এদিন এই পুরস্কার গ্রহণ করেছেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।

দিল্লিতে সম্মানিত রাজ্যেরে দুয়ারে সরকার প্রকল্প। কেন্দ্রের মোদী সরকারের দেওয়া প্ল্যাটিনাম ডিজিটাল পুরস্কারে সম্মানিত বাংলার প্রকল্প। বাংলার প্রকল্পকে আবারও শ্রেষ্ঠত্বের স্বীকৃতি কেন্দ্রীয় সরকারের। শনিবার নয়াদিল্লির বিজ্ঞান ভবনের অনুষ্ঠানে রাজ্যকে এই পুরস্কার দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। এদিন রাজ্য সরকারের হয়ে এই পুরস্কার গ্রহণ করেছেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। পুরস্করা নিয়ে বেরিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া, ‘অসাধারণ উদ্যোগের স্বীকৃতি মিলল’।

উল্লেখ্য, তথ্য প্রযুক্তিকে হাতিয়ার করে অ্যাপের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের কোটি-কোটি জনগণকে সরকারি পরিষেবা দিচ্ছে রাজ্য সরকার। ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পের মাধ্যমে পৌঁছোচ্ছে সেই সব পরিষেবা। দেশের বিভিন্ন রাজ্যের এমনই বেশ কিছু প্রকল্পের মধ্যে এবার বাংলার দুয়ারে সরকারকেই শ্রেষ্ঠ বলে বেছে নিয়েছে তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক। এদিন কেন্দ্রীয় তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রীর উপস্থিতিতে রাজ্য সরকারের হাতে এই পুরস্কার তুলে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু।

আরও পড়ুন- ‘শুভেন্দুই বিরোধীশূন্য করতে বলতেন’, হাটে হাঁড়ি ভাঙলেন তৃণমূল বিধায়ক!

দুয়ারে সরকার প্রকল্প নিয়ে শুরু থেকেই নানা মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে বিরোধীদের। এই প্রকল্পের যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। শনিবার সেই দুয়ারে সরকারকেই শ্রেষ্ঠ বলে স্বীকৃতি দিয়েছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার। এপ্রসঙ্গে রাজ্যের বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য মনে করেন প্রকল্প পুরস্কৃত হল ঠিকই তবে এর প্রয়োগে রয়েছে ব্যর্থতা।

তাঁর কথায়, ‘আমরা আগেও এর সমালোচনা করেছি এখনও করছি। আমরা আমাদের রাজনৈতিক অবস্থান বদলাচ্ছি না। একটা প্রকল্প পুরস্কৃত হতেই পারে। কাগজে কলমে অনেক জিনিসই হয়। আপনার দর্শন পুরস্কৃত হল। কিন্তু সেই দর্শন ফলিত আকারে পুরস্কৃত হল না। একদিকে দুয়ারে সরকার চলছে অন্যদিকে তৃণমূল তৃণমূলকে বোমা মারছে। সরকার ডিএ দিতে পারছে না। এখন এই পুরস্কারের কী মূল্য আছে।’

আরও পড়ুন- ‘বেসুরো’ তৃণমূল বিধায়ক কি এবার পদ্মে? সাতসকালে বোমা ফাটালেন দিলীপ

অন্যদিকে, দুয়ারে সরকার কেন্দ্রের স্বীকৃতি পাওয়ায় স্বভাবতই খুশি তৃণমূল নেতৃত্ব। কুণাল ঘোষ এদিন বলেন, ‘নানা কুৎসা ও চক্রান্তের পরেও কেন্দ্রীয় সরকারই ঠিক করলেন দুয়ারে সরকার শ্রেষ্ঠ। রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু পুরস্কার তুলে দিলেন। এটা বাংলার কাছে গর্বের। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ভালো কাজের স্বীকৃতি মিলল। একইসঙ্গে বিরোধীদের জন্য এখন দুয়ারে হতাশা।’

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: West bengal duare sarkar project win central govts platinum digital award531819