বড় খবর

‘ঘেউ ঘেউ’ কটাক্ষ মুখ্যমন্ত্রীর।। শোভন ফের তৃণমূলে! জল্পনা।। ইডির তথ্য-তলব

সোমবার বাংলার সব বড় খবর একনজরে।

নাম না করে একদিকে রাজ্যপাল অন্যদিকে পিএম কেয়ার ফান্ড নিয়ে তীব্র কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শেষমেশ কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় কি ঘরে ফেরার পথে? ফের জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে। প্রশাসনিক বৈঠকে আরামবাগের পুলিশ সুপার তথাগত বসুকে কড়া ভাষায় হুঁশিয়ার করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নারদকাণ্ডে ফের পাঁচ তৃণমূল নেতা ও আইপিএস এসএমএইচ মির্জাকে নোটিশ পাঠিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট(ইডি)।

“কাজ নেই, কর্ম নেই ঘেউ ঘেউ করে ঘুরে বেড়ায়,”

কটাক্ষ মুখ্যমন্ত্রীর

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, জগদীপ ধনকড়।

নাম না করে একদিকে রাজ্যপাল অন্যদিকে পিএম কেয়ার ফান্ড নিয়ে তীব্র কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেয়ার ফান্ডে কত টাকা উঠেছে কেউ জানে কি? প্রশ্ন মুখ্যমন্ত্রীর। সোমবার নবান্নে প্রশাসনিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমাদের সরকার যথেষ্ট স্বচ্ছতার সঙ্গে কাজ করে। কিছু কিছু লোক আছে কাজ নেই, কর্ম নেই ঘেউ ঘেউ করে ঘুরে বেড়ায়। মাস্ক কেনা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। আপনি আগে বলুন আপনার ‘টেক কেয়ার ফান্ড’-এ কত টাকা তোলা হয়েছে। অন্যকে প্রশ্ন করার আগে এসব ভাবতে হবে।” এর আগে সরকারি কর্মচারীদের এক সভায় ঘেউ ঘেউ শব্দ উচ্চারন করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

সম্প্রতি রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর করোনা সামগ্রী কেনাকাটা নিয়ে স্বেতপত্র প্রকাশ করার দাবি করেছেন। এমনকী তিনি স্বচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলেন। অভিজ্ঞমহলের মতে, নাম না করে রাজ্যপালকে কড়া ভাষায় জবাব দিলেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, “আমরা সরকারি দফতরে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ করি না। আমাদের কাছে কোনও সাধারণ মানুষ চিঠি দিলেও আমরা তদন্ত করি। অনেক সময় আমার দলের মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে হয়। অফিসারদের বিরুদ্ধে তদন্ত হয়।”

মুখ্যমন্ত্রী এদিন করোনার ভেজাল কিট নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি বলেন, “অনেক ভেজাল কিট ধরা পড়েছে। সেই কিট আইসিএমআর তো ফিরিয়ে নিল। ধরা তো পড়েছিল। নিশ্চয় তার পিছনে কিছু ছিল। কেউ যেন এমন প্রশ্ন না করে পশ্চিমবঙ্গ সরকার কোথা থেকে মাস্ক কেনে। আগে বলুন ভেজাল কিট কোথা থেক কিনেছিল। যারা কৈফিয়ত চাইছে, বড় ভাষণ দিচ্ছেন তাঁরা দেখেছেন কোথা থেকে টাকা আসছে? একজন কোভিড রোগীকেও কী সাহায্য করেছেন?”

আজ রাজ্যের অন্যান্য খবরগুলি পড়ুন নীচে

শোভনের ঘরে ফেরা! জল্পনা তুঙ্গে

ফেসবুক থেকে।

শেষমেশ কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় কি ঘরে ফেরার পথে? ফের জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে। সেই কারণেই কি রত্না চট্টোপাধ্যায়কে দলের কাজকর্ম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব? সূত্রের খবর, ১৩১ ওয়ার্ডের সাংগঠনিক কাজকর্ম থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে রত্নাদেবীকে। এই খবরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে। এই ওয়ার্ডে দলের কাজকর্ম দেখার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল রত্না চট্টোপাধ্যায়কে। দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি প্রসঙ্গে যদিও রত্নাদেবী জানিয়েছেন, তাঁকে এই বিষয়ে দল কোন নির্দেশ দেয়নি।

২১ জুলাই শহিদ দিবসে ভার্চুয়াল জনসভা থেকে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের পুরনো কর্মীদের দলে ফেরার ডাক দিয়েছেন। ইতিমধ্যে বিজেপি থেকে অনেকে দলে ফিরেছেন। রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায় দিল্লিতে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু তারপর থেকে বিজেপির কোনও কর্মসূচিতে তাঁকে দেখা যায়নি। মাঝে মধ্যেই গুঞ্জন ওঠে তিনি তৃণমূলে ফিরছেন, আবার জল্পনা ছড়ায় তিনি বিজেপিতেই থাকছেন। তবে এবার কি সত্যি মানভঞ্জন হচ্ছে?

আজ রাজ্যের অন্যান্য খবরগুলি পড়ুন নীচে

গন্ডগোল হয় কেন? পুলিশ সুপারকে

ধমক মুখ্যমন্ত্রীর

mamata, মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সম্প্রতি আরামবাগে রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা বেড়ে চলেছে। ১৫ অগাষ্ট বিজেপি কর্মী সুদর্শন প্রামানিককে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা খুন করছে বলে অভিযোগ করে বিজেপি। নিহত কর্মীর বাড়িতে যান বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এর আগে সেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী সংঘর্ষে ইসরাইল খাঁ চন্দন খুন হয়। এদিন প্রশাসনিক বৈঠকে হুগলি গ্রামীণের  পুলিশ সুপার তথাগত বসুকে কড়া ভাষায় হুঁশিয়ার করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “ওখানে গন্ডগোল হয় কেন? সামাল দিতে পার না?” আর যেন গন্ডগোল না হয় সেজন্য সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেন পুলিশ সুপারকে।

এদিকে এদিন সবুজসাথী প্রকল্পে ২ লক্ষ সাইকেল যাদের দেওয়া হয়নি তাঁদের বাড়িতে গিয়ে সাইকেল পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “বছরে ১০ লক্ষ সাইকেলের অর্ডার দেওয়া হয়। সেক্ষেত্রে কারখানা হতেই পারে। আমি চাই পশ্চিমবঙ্গে সাইকেল কারখানা হোক।”

আজ রাজ্যের অন্যান্য খবরগুলি পড়ুন নীচে

নারদকাণ্ডে ফের তথ্য তলব ইডির

নারদকাণ্ডে তৎপর ইডি।

নারদকাণ্ডে ফের পাঁচ তৃণমূল নেতা ও আইপিএস এসএমএইচ মির্জাকে নোটিশ পাঠিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট(ইডি)। ইডি সূত্রে খবর, তৃণমূলের তিন সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার, সৌগত রায়, অপরূপা পোদ্দার, মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী, রত্না চট্টোপাধ্যায় ও আইপিএস মির্জাকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এদের পরিবারের সদস্যদের আয়-ব্যয়ের তথ্য জমা দিতে বলা হয়েছে ওই নোটিশে। গত জুলাইতে নারদকাণ্ডে যুক্তদের কাছে সম্পত্তি সংক্রান্ত তথ্য জমা দিতে বলেছিল ইডি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: West bengal todays top news headlines kolkata latest updates 24 august 2020 mamata banerjee governor jagdeep dhankhar

Next Story
ফের তুমুল বৃষ্টিতে ভাসবে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গ, সঙ্গী ঝোড়ো হাওয়াweather, ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস, monsoon
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com