বড় খবর

রাষ্ট্রসংঘে কথা বলতে চেয়ে মহাসচিবকে চিঠি, নয়া রাষ্ট্রদূত নিয়োগ তালিবানের

তাদের স্বীকৃতি নিয়ে তুমুল বিরোধিতা সত্ত্বেও নিজেদের কথা বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে চায় তালিবান।

প্রতীকী ছবি

তাদের স্বীকৃতি নিয়ে তুমুল বিরোধিতা সত্ত্বেও নিজেদের কথা বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে চায় তালিবান। তাই রাষ্ট্রসংঘের বার্ষিক সাধারণ অধিবেশনে অংশ নিতে চেয়ে রাষ্ট্রসংঘের কাছে আবেদন করল তালিবান। রাষ্ট্রসংঘে আফগানিস্তানের নতন রাষ্ট্রদূত হিসাবে সংগঠনের মুখপাত্র সুহেল সাহিনকে নিযুক্ত করেছে তালিবান। এই মর্মে বিদেশমমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিবকে চিঠি লিখেছেন।

গত ১৫ অগস্ট আফগানিস্তানের দখল নিয়ে গোটা বিশ্বকে হতচকিত করে দিয়েছে তালিবান। কিন্তু এখনও তাদের স্বীকৃতি দেয়নি বিশ্বের তাবড় দেশ। গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্তেফান দুজারিক আফগানিস্তানের বর্তমান রাষ্ট্রদূত গুলাম ইসাকজাইয়ের কাছ থেকে একটি বার্তা পান। সেই বার্তায় ৭৬তম জেনারেল অ্যাসেম্বলির জন্য আফগান প্রতিনিধিদের তালিকা দেওয়া হয় দুজারিককে।

পাঁচদিন পর গুতেরেস আরও একটি বার্তা পান ইসলামিক এমিরেটস অফ আফগানিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের তরফে। তাতে স্বাক্ষর ছিল বিদেশ মন্ত্রী আমির খান মুত্তাকির। সেই বার্তায় রাষ্ট্রসংঘের অধিবেশনে অংশ নেওয়ার আবেদন জানায় তালিবান সরকার। সেই চিঠিতে মুত্তাকি সাফ জানিয়েছেন, আফগান প্রেসিডেন্ট আসরাফ ঘানিকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়েছে এবং আর বিশ্বের কোনও দেশ তাঁকে আফগান প্রেসিডেন্ট হিসাবে মানছে না। তাই ইসাকজাই আর কোনওভাবে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত নন।

আরও পড়ুন SAARC: তালিবানকে চেয়েছিল পাকিস্তান, প্রতিবাদে গর্জে ওঠে ভারত-সহ বাকি দেশ

দুজারিক জানিয়েছেন, চিঠিতে তালিবা সরকার রাষ্ট্রসংঘে স্থায়ী প্রতিনিধি হিসাবে মহম্মদ সুহেল শাহিনকে মনোনীত করেছে। কাতারে মার্কিন-তালিবান শান্তিচুক্তির সময় মুখপাত্র ছিলেন সুহেল শাহিন। এদিকে, মার্কিন বিদেশ দফতর জানিয়েছে, তারা তালিবানের আবেদন সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। তবে রাষ্ট্রসংঘ কী করবে সে বিষয়ে কিছু জানায়নি মার্কিন বিদেশ দফতর।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and World news here. You can also read all the World news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Afghanistans taliban want to address general assembly says un

Next Story
কানাডার মসনদে ট্রুডোই থাকছেন, তবে সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা থেকে দূরে তাঁর দল
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com