scorecardresearch

বড় খবর

ইমরানের বিরুদ্ধে ডেপুটি স্পিকারের অনাস্থা প্রস্তাব খারিজের সিদ্ধান্ত ভ্রান্ত: পাক প্রধান বিচারপতি

ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরির দেওয়া আদেশে সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৯৫ লঙ্ঘিত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে।

deputy Speakers ruling to dismiss no-confidence motion against Imran Khan erroneous pak chief justice
ইমরান খান, কাসিম খান সুরি, উমর আতা বান্দিয়াল

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে সংসদে বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছিলেন ডেপুটি স্পিকার কাসিম খান সুরি। ডেপুটি স্পিকারের ওই পদক্ষেপ ‘ভুল’ বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন সেদেশের প্রধান বিচারপতি উমর আতা বান্দিয়াল। পাক সংবাদপত্র দ্য ডন-এ এই প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। প্রধান বিচারপতি জানিয়েছেন, জাতীয় স্বার্থ বিবেচনা করেই এই মামলার দ্রুত রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট। প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে প্রেসিডেন্টের সংসদ বাতিলের ঘোষণার বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা হয় সুপ্রিম কোর্টে। সেই মামলারই শুনানি চলছে।

বৃহস্পতিবার ডেপুটি স্পিকারের পদক্ষেপ নিয়ে পাক সুপ্রিম কোর্টে পঞ্চম দিনের শুনানি চলছে। শুনানির সময় প্রধান বিচারপতি জানিয়েছেন যে, অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে জাতীয় পরিষদের ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরির দেওয়া আদেশে সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৯৫ লঙ্ঘিত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। আজ পাকিস্তানের স্থানীয় সময় সাড়ে সাতটায়, এ মামলার রায় দেবে বলে খবর।

দ্য ডন-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে উল্লেখ, প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ বৃহস্পতিবার সকালে শুনানি শুরু করেন। এই বেঞ্চের অন্য সদস্যরা হচ্ছেন, বিচারপতি ইজাজুল আহসান, বিচারপতি মাজহার আলম মিয়ানখেল, বিচারপতি মুনিব আকতার এবং বিচারপতি মান্দোখেল। রায়ের পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে সুপ্রিম কোর্ট চত্ত্বরে নিরাপত্তা বাড়ান হয়।

শুনানিতে প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির আইনজীবী জাফর জানিয়েছেন যে, পার্লামেন্টকেই এই সংকটের সমাধান করতে হবে। জনগণের কাছে যাওয়া বা নির্বাচনই হল সমাধানের উপায়। এই প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সরকারের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা ভোট হলেই জাতীয় পরিষদের রায় কোন দিকে ছিল, তা নির্ধারণ সম্ভব ছিল।

Read in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest World news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Deputy speakers ruling to dismiss no confidence motion against imran khan erroneous pak chief justice