পরাজয়ের পর ভোটিং মেশিন বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিয়েছিলেন ট্রাম্প: রিপোর্ট

বাইডেনকে যাতে দেশের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করা না হয় তার জন্যও ট্রাম্প চেষ্টা চালিয়েছিলেন বলে জানা যায়।

Donald Trump
প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

২০২০ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হারের পর দেশের প্রতিরক্ষা সচিবকে ভোটিং মেশিন বাজেয়াপ্ত করার খসড়া নির্বাহী আদেশ দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পলিটিকোর জার্নালের ন্যাশনাল আর্কাইভ থেকে এমনই তথ্য উঠে এসেছে। জো বাইডেনকে যাতে দেশের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করা না হয় তার জন্যও ট্রাম্প চেষ্টা চালিয়েছিলেন বলে জানা যায়।

মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিবেন উদ্দেশ্যে ২০২০ সালের ১৬ ডিসেম্বর তারিখে ড্রাফ্ট করা একটি আদেশে নির্বাচনী রেকর্ড সংরক্ষণ সংক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রীয় আইনের অধীনে সব ভোটিং মেশিন, সরঞ্জাম, ইলেকট্রনিকভাবে সঞ্চিত তথ্য, এবং বিভিন্ন রেকর্ড বাজেয়াপ্ত, সংগ্রহ, সংরক্ষণ এবং বিশ্লেষণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার প্রধানের উদ্দেশ্যে ট্রাম্পের নির্দেশ ছিল, যেন পুরো বিষয়টির তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট ভোটের সাত দিন ও সম্পূর্ণ রিপোর্ট নির্বাচনের ৬০ দিনের মাথায় প্রকাশ করতে হবে।

পরাজিত ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট পদে ঘিরে বিতর্ক এবং ক্যাপিটল হিলে হামলা সংক্রান্ত ৭৫০’র বেশি রেকর্ড হস্তান্তরিত করা হয়েছে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভ সিলেক্ট কমিটিতে।

২০২০ সালে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের কাছে ৩০৬-২৩২ ভোটে পরাজিত হয় ডোনাল্ড ট্রাম্প। ডেমোক্র্যাটরা ভোট পায় ৫১.৩ শতাংশ। আর রিপাবলিকানদের ঝুলিতে যায় মাত্র ৪৬.৯ শতাংশ ভোট। গত মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ তোলে তৎকালীন বিরোধী ডেমোক্র্যাটরা। তবুও ট্রাম্পের পরাজয়ের পরও বেশ কয়েক মাস ধরে জালিয়াতির সমস্ত অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করে আসেন তাঁর সহযোগীরা। যদিও রিপাবলিকানরা সেই নির্বাচনকে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ দাবি করেছিলেন।

Read in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest World news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Donald trump drafted order to seize voting machines following 2020 defeat

Next Story
বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, ভয় ধরিয়ে এবার হাজির ওমিক্রনের নয়া রূপ