বড় খবর

‘ফিরলেই মেরে ফেলবে তালিবান’, প্রাণভয়ে বিদেশে আফগান নির্বাচন কমিশনার

আফগানিস্তানের এই মহিলা নির্বাচনী আধিকারিকের পাশাপাশি তাঁর বেশ কয়েজন সহকর্মীও এই মুহূর্তে বিদেশে একটি বাড়ি ভাড়া করে রয়েছেন৷

In hiding overseas, first female head of Afghanistan’s poll panel rues
আফগানিস্তানের নির্বাচন কমিশনার হাওয়া আলম নুরিস্তানি৷

বিদেশে লুকিয়ে রয়েছেন আফগানিস্তানের নির্বাচন কমিশনের প্রথম মহিলা প্রধান হাওয়া আলম নুরিস্তানি৷ ইচ্ছা থাকলেও দেশে ফিরতে পারছেন না তিনি৷ পরিবারের সদস্যরা তাঁকে দেশে ফিরতে বারণ করেছেন৷ বিদেশে থেকেও আফগানিস্তানের জন্য মন কাঁদছে পঞ্চাশোর্ধ্ব এই মহিলার৷ দেশের পরিস্থিতি নিয়ে ফোনে কথা বলতে গিয়ে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত দেখাচ্ছিল আফগানিস্তানের এই নির্বাচন কমিশনারকে৷ গোপন আস্তানা থেকে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বললেন, ‘‘গত ২০ বছর ধরে যে উন্নয়ন হয়েছিল তার সব শেষ হয়ে গেল৷’’

চলতি মাসের ৮ তারিখে কাবুল থেকে একটি বৈঠকে যোগ দিতে বেরাটে পৌঁছোন আফগানিস্তানের নির্বাচন কমিশনার হাওয়া আলম নুরিস্তানি৷ সপ্তাহখানেক সেখানে থাকার পর দেশে ফেরার বিমান ধরবেন বলে নুরিস্তানি ও তাঁর সহকর্মীরা দুবাই বিমানবন্দরে গিয়ে পৌঁছোন৷ বিমানবন্দরে থাকাকালীন কাবুল থেকে পরিবারের লোকজন ফোন করেন নুরিস্তানিকে৷ ততক্ষণে গোটা কাবুল দখল করে নিয়েছে তালিবানিরা৷ হাওয়া আলম দেশে ফিরলে তালিবানিরা তাঁর উপরেও হামলা চালাতে পারে বলে ফোনে তাঁকে জানান বাড়ির লোকজন৷ পরিবারের সদস্যদের সেই আশঙ্কার কথা শুনে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওই মহিলা৷ আপাতত দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত বদল করে বর্তমানে অন্য একটি দেশে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন তিনি৷

বিদেশে আটকে থাকা নুরিস্তানি আফগানিস্তানের স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের প্রথম মহিলা প্রধান৷ তিনিই ২০১৯ সালে আশরফ গণির বিজয়-পত্রে সই করেছিলেন৷ ভারতে জাতীয় নির্বাচন কমিশনে তিনজন কমিশনার থাকলেও আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে এই পদে থাকেন আটজন৷ নুরিস্তানি এবছরেই আফগানিস্তান নির্বাচন কমিশনের চেয়ারপার্সন পদে তাঁর মেয়াদ শেষ করেছেন৷ তার বদলে এখন দায়িত্বে রয়েছেন ঔরঙ্গজেব৷ বর্তমানে তিনিও নুরিস্তানির সঙ্গেই তালিবানের ভয়ে বিদেশে আটকে রয়েছেন৷

আরও পড়ুন- প্রবল বর্ষণের সতর্কতা উত্তরবঙ্গে, বৃষ্টির সম্ভাবনা কলকাতাতেও

বর্তমানে তালিবানিদের ভয়ে হাওয়া আলম নুরিস্তানি-সহ আফগান প্রশাসনের বেশ কয়েকজন কর্তা বিদেশে একটি ভাড়াবাড়িতে থাকছেন৷ তাঁদের ঠিকানা জনসমক্ষে যাতে না আসে সেব্যাপারে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন নুরিস্তানি৷ সংস্থার তরফেও তাঁর সেই অনুরোধকে মর্যাদা দিয়ে তাঁদের ঠিকানা প্রকাশ্যে আনা হচ্ছে না৷ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে ফোনে নুরিস্তানি বলেন, ‘‘যখন শুনলাম তালিবানিরা কাবুল শহর দখল করে নিয়েছে, তখন আমার মনের অবস্থা যে ঠিক কী ছিল, তা বলে বোঝাতে পারব না৷ এই পরিস্থিতির জন্য আমরা তৈরি ছিলাম না৷ দেশের পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে আলোচনার জন্য আমরা লেবাননে ছিলাম। গণতন্ত্রকে একটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে আমরা পরিকল্পনা করছিলাম৷’’

দুবাই বিমানবন্দরে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের ফোন পান নুরিস্তানি৷ কাবুলের পরিস্থিতি জেনে আঁতকে উঠেছিলেন৷ দেশে ফিরতে পারবেন না ভেবেই উদভ্রান্ত হয়ে পড়েন প্রত্যেকে৷ এপ্রসঙ্গে নুরিস্তানি বলেন, ‘‘অনিশ্চিত একটি ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে ছিলাম। এখান থেকে আমাদের কোথায় যাওয়া উচিত তা আমরা জানতাম না। আমরা কোথায় যাব এবং কোথায় থাকব? এটা হঠাৎ করেই ঘটেছিল৷’’

Read full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and World news here. You can also read all the World news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: In hiding overseas first female head of afghanistans poll panel rues

Next Story
অস্থির আফগানে সিআইএ প্রধান-তালিবান নেতার গোপন বৈঠক! মার্কিন দৈনিকের রিপোর্টে চাঞ্চল্য
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com