scorecardresearch

বড় খবর

হাফিজ সইদের জামাত-উদ-দাওয়ার মুখপাত্রের ৩২ বছরের কারাদণ্ড, নির্দেশ পাক আদালতের

সন্ত্রাসে আর্থিক মদতের মামলায় দুই জামাত-উদ-দাওয়া নেতাকেও দোষী সাব্য়স্ত করেছে আদালত। যাদের মধ্য়ে একজন সইদের আত্মীয় বলে জানা গিয়েছে।

হাফিজ সইদের জামাত-উদ-দাওয়ার মুখপাত্রের ৩২ বছরের কারাদণ্ড, নির্দেশ পাক আদালতের
হাফিজ সইদ

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করল পাকিস্তান। সন্ত্রাসে আর্থিক মদতের মামলায় মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড হাফিজ সইদের জামাত-উদ-দাওয়ার মুখপাত্রকে ৩২ বছরের কারাবাসের নির্দেশ দিল পাক সন্ত্রাসবাদ বিরোধী আদালত। সন্ত্রাসে আর্থিক মদতের মামলায় দুই জামাত-উদ-দাওয়া নেতাকেও দোষী সাব্য়স্ত করেছে আদালত। যাদের মধ্য়ে একজন সইদের আত্মীয় বলে জানা গিয়েছে।

সংবাদসংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, ২টি এফআইআরের ভিত্তিতে জামাত-উদ-দাওয়া মুখপাত্র ইয়াহিয়া মুজাহিদকে ৩২ বছরের কারাবাসের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি জফর ইকবাল ও হাফিজ আব্দুল রহমান মাক্কিকে (হাফিজ সইদের আত্মীয়) ২টি মামলায় ১৬ ও ১ বছরের কারাবাসের সাজা শুনিয়েছে আদালত।

আরও পড়ুন: নওয়াজ শরিফ একজন শিয়াল, পাক সেনায় বিদ্রোহ তৈরির চেষ্টা করছেন: ইমরান

আব্দুল সালাম বিন মহম্মদ ও লুকমান শাহ নামে আরও ২ জামাত-উদ-দাওয়া নেতাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। আদালতে কড়া নিরাপত্তায় অভিযুক্তদের পেশ করা হয়। আদালতে বিচারপ্রক্রিয়া চলাকালীন সংবাদমাধ্য়মকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে মুম্বই হামলার মূলচক্রী হাফিজ সইদকে ১১ বছরের কারাবাসের সাজা শোনায় পাকিস্তানের আদালত। জঙ্গিদের আর্থিক মদতের ২টি মামলায় জামাত-উদ-দাওয়া প্রধানকে কারাবাসের নির্দেশ দেয় আদালত। দুটি মামলায় হাফিজকে সাড়ে ৫ বছরের জেল (মোট ১১ বছর) ও ১৫ হাজার টাকা করে জরিমানার নির্দেশ দেয় পাক আদালত।

জঙ্গিদের আর্থিক মদতের অভিযোগে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে হাফিজ সইদ ও তার সহযোগীদের অভিযুক্ত করে সন্ত্রাস দমন আদালত। দুটি মামলাতেই হাফিজের বয়ান রেকর্ড করা হয়। নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করে সইদ।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest World news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Pak court jails spokesperson of hafiz saeed led jud for 32 years in terror financing cases