Anabrito

Result: 1- 17 out of 34 Bangla Articles Found
অনাবৃত ৩৪: কোন কথা মনে পড়ল মুকুরের?‌

অনাবৃত ৩৪: কোন কথা মনে পড়ল মুকুরের?‌

তুমি যে এক্সপেক্ট করছ সেটা সুনন্দ জানত?‌’‌ মুকুর একটু যেন চমকে উঠল। বলল, ‘‌আপনি জানলেন কী করে ?‌ আমি তো বৌদিকেও বলিনি।’‌ প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক রহস্য উপন্যাসের ৩৪ নং পর্ব প্রকাশিত।

‌অনাবৃত ৩৩: গোয়েন্দার সন্দেহের তালিকায় মুকুর কেন এক নম্বরে?‌

‌অনাবৃত ৩৩: গোয়েন্দার সন্দেহের তালিকায় মুকুর কেন এক নম্বরে?‌

সেদিন তো ফ্রেমটা নজরে পড়েনি!‌ মেহুল মেয়েটি কি এখান থেকেই ফটোটা চুরি করে নিয়ে যায়?‌- প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক উপন্যাসের ৩৩ তম পর্ব প্রকাশিত।

অনাবৃত ৩২: একটা খুন করতে গিয়ে দুটো খুন?

অনাবৃত ৩২: একটা খুন করতে গিয়ে দুটো খুন?

বিশ্বখ্যাত শিল্পী র‌্যনোয়ার বলেছেন, আমি তো নতুন কিছু করিনি, আমার পূর্বসুরীরা যে কাজ করেছেন তারই পুনরাবৃত্তি করেছি।’‌- প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক রহস্য উপন্যাসের ৩২ তম পর্ব প্রকাশিত।

কোন খাবারে বিষ ছিল?‌: অনাবৃত ৩১

কোন খাবারে বিষ ছিল?‌: অনাবৃত ৩১

ক্লিনিকের রিপোর্ট। রিপোর্টের ওপরে তারিখের দিকে তাকালেন বসন্ত সাহা। তিন দিন আগের তারিখ। প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাস অনাবৃতর ৩১ নং পর্ব প্রকাশিত।

মৃত্যুর আগে মেহুলি কার ফটো ছিঁড়েছে?‌: অনাবৃত ৩০

মৃত্যুর আগে মেহুলি কার ফটো ছিঁড়েছে?‌: অনাবৃত ৩০

ওষুধের বাক্স বন্ধ করবার মুখে, ছোটো একটা রঙচঙে প্যাকেটে চোখ পড়ল অনুকূল রায়ের। প্যাকেটটা তুলে নিলেন। ওরাল কন্‌ট্রাসেপটিভ। - প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাসের ৩০ নং পর্ব।

নগ্ন যুবতী মেহুল উপুড় হয়ে পড়ে রয়েছে: অনাবৃত ২৯

নগ্ন যুবতী মেহুল উপুড় হয়ে পড়ে রয়েছে: অনাবৃত ২৯

প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক রহস্য উপন্যাসের ২৯ তম পর্ব প্রকাশিত- কাচের তলায় কার ফটো কুচিকুচি করে ছেঁড়া?‌

আরও একজনের মৃত্যু, এও কি বিষে?‌: অনাবৃত ২৮

আরও একজনের মৃত্যু, এও কি বিষে?‌: অনাবৃত ২৮

সুনন্দর মৃত্যর ঘটনা কি শুধুই অ্যাক্সিডেন্ট?‌ একটি দুর্ঘটনা মাত্র? নাকি অন্য কিছু?‌‌- প্রকাশিত হল প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাসের ২৮ তম পর্ব।

অনাবৃত ২৭: কার মৃত্যুর খবর পেয়ে বসন্ত সাহা নার্সিংহোমে ছুটলেন?‌

অনাবৃত ২৭: কার মৃত্যুর খবর পেয়ে বসন্ত সাহা নার্সিংহোমে ছুটলেন?‌

বসন্ত সাহা দ্রুত বললেন,‘‌শুনুন একটা বাড়ির অ্যাড্রেস বলছি, এখনই যাবেন। ফ্ল্যাটের নাম দ্য ড্রিম। গার্ড বসান।‘‌ প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক উপন্যাসের নতুন পর্ব প্রকাশিত।

অনাবৃত ২৬: পার্টি কেন ভেস্তে গেল?‌ কার ফোন এল ছন্দার মোবাইলে?‌

অনাবৃত ২৬: পার্টি কেন ভেস্তে গেল?‌ কার ফোন এল ছন্দার মোবাইলে?‌

পুলিশ ডিপার্টমেন্টের এই তুখোড় গোয়েন্দা অফিসারের মাথায় রক্ত, হত্যা, রিভলভার ছাড়াও নানা ধরনের সাবজেক্ট ভর করে। তখন সেই বিষয়ের ওপর তিনি একেবারে হমড়ি খেয়ে পড়েন। - প্রকাশিত হল প্রচেত গুপ্তের গোয়েন্দা উপন্যাসের ২৬ নং পর্ব।

অনাবৃত ২৫: হৈমন্তী কীসের জন্য অ্যালিবাই সাজাচ্ছে?‌

অনাবৃত ২৫: হৈমন্তী কীসের জন্য অ্যালিবাই সাজাচ্ছে?‌

হৈমন্তী ড্রয়ার থেকে ছোটো শিশিটা বের করল। চোখের সামনে তুলে দেখল। ঘন তরল। রঙ সবুজ। এই বিষের রঙ কি সবুজ হয়?‌- পড়ছেন প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাসের ২৫ নং পর্ব।

অনাবৃত ২৪: হৈমন্তী হাতের ছুরিটা দেখে খুশি হল

অনাবৃত ২৪: হৈমন্তী হাতের ছুরিটা দেখে খুশি হল

তিব্বতি এই বিষ জাডু নামের এক পাহাড়ি বনস্পতির বাকল থেকে তৈরি হয়। যে গাছ বছরের পর বছর রোদ পায় না।- প্রকাশিত হল প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাসের ২৪ নং পর্ব।

অনাবৃত ২৩: পুরুষসঙ্গীর স্ত্রীকে কীভাবে সরাতে চায় হৈমন্তী?‌

অনাবৃত ২৩: পুরুষসঙ্গীর স্ত্রীকে কীভাবে সরাতে চায় হৈমন্তী?‌

প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাস: ‘‌তোমরা মেয়েদের ইচ্ছে, অনিচ্ছে, তৃপ্তি অতৃপ্তি নিয়ে চিন্তিত নয়। প্রয়োজনও বোধ কর না। কারণ নেচার এমন ভাবে পুরুষের শরীর তৈরি করেছে যে তার স্যাটিসফ্যাকশনের কখনই নারীর স্যাটিসফ্যাকশনের ওপর নির্ভরশীল নয়।’

অনাবৃত ২২: কে বারবার বুথ থেকে ফোন করছে হৈমন্তীকে?‌

অনাবৃত ২২: কে বারবার বুথ থেকে ফোন করছে হৈমন্তীকে?‌

প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক উপন্যাস: হৈমন্তীর একাধিক পুরুষসঙ্গী। কারও সঙ্গে বেড়াতে যায়, কারও সঙ্গে যায় রেস্টুরেন্টে খেতে , কারওকে বিছানায় ডেকে নেয়। তিনজনই ভাবে ভালবাসা। হৈমন্তী জানে, এটা তার খেলা। নির্মম খেলা।

অনাবৃত: হৈমন্তী পুলিশ অফিসারের সামনে কী করতে চায়?‌

অনাবৃত: হৈমন্তী পুলিশ অফিসারের সামনে কী করতে চায়?‌

হৈমন্তী হেসে বলল,‘তাহলে তুমি ধরেই নিয়েছো আমি ধরা পড়ব এবং তারপর সিসিটিভির ছবি দেখে পুলিশ তোমাকেও ধরবে?‌ তাই তো?‌- প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক উপন্যাসের অনাবৃতের ২১ নং পর্ব।

অনাবৃত: মেহুলের ডিভোর্সের কারণ শরীর

অনাবৃত: মেহুলের ডিভোর্সের কারণ শরীর

প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক উপন্যাসের ২০ নম্বর পর্ব প্রকাশিত।

প্রচেত গুপ্তের অনাবৃত: অনুকূল রায় হাতের ছাপে রহস্য ভেদ করলেন

প্রচেত গুপ্তের অনাবৃত: অনুকূল রায় হাতের ছাপে রহস্য ভেদ করলেন

‘‌সে তো কাজে গেছে। পুলিশ নিয়ে গেছে। বলল, কে বিষ খেয়ে মরেছে, সেখানে গিয়ে নাকি গন্ধ শুঁকতে হবে।’‌‌

গোপালই কি খুন করেছে?‌: প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাস অনাবৃত

গোপালই কি খুন করেছে?‌: প্রচেত গুপ্তের ধারাবাহিক গোয়েন্দা উপন্যাস অনাবৃত

'দাদা, ‌ছেলে খুন করেনি। একাজ গোপাল করতে পারে না। ওকে বাঁচান।'

Advertisement

ট্রেন্ডিং