বড় খবর

WBBSE Madhyamik Exam 2019: মঙ্গলবার থেকে রাজ্য জুড়ে মাধ্যমিক পরীক্ষা, ছাত্রের তুলনায় বাড়ল ছাত্রীর সংখ্যা

WBBSE Madhyamik Exam to Begin from Today: পরীক্ষার্থী অসুস্থ থাকলে হাসপাতালে পরীক্ষা নেওয়ার সবরকম ব্যবস্থা নেবে পর্ষদ।  লেখার সমস্যা অথবা জখম হওয়ার কারণে পরীক্ষার্থী নিজে লিখতে না পারলে রাইটারে নেওয়ার অনুমতি নিতে হবে পর্ষদের কাছ থেকে।

WBBSE Madhyamik Exam 2019, WBBSE 10th Exam 2019
প্রথম দিনেই প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠে এবছর

WBBSE 10th Class Exam to Commence from Today:

মঙ্গলবার ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে রাজ্য জুড়ে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। চলবে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ২০১৮-এর তুলনায় প্রায় এক মাস এগিয়ে এসেছে এ বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা। লোকসভা নির্বাচনের জন্য এ বছরের পরীক্ষা খানিকটা এগোনোর সম্ভবনা ছিলই।

সোমবার দুপুরে সাংবাদিক বৈঠক করে পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এবারের পরীক্ষায় ছাত্রদের থেকে ছাত্রীদের সংখ্যা বেশি ৷ ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের সংখ্যা ১৩% বেশি ৷ ৬ লক্ষ ৩ হাজার ৩১১ জন ছাত্রী ২০১৯-এর মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবেন। মোট পরীক্ষার্থী ১০ লক্ষেরও বেশি , তবে গত বছরের তুলনায় ১৮ হাজার কম।  জন্মের হার কমে যাওয়াতেই এক বছরের মধ্যে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা অনেকটা কমেছে বলে মনে করছেন কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। প্রধান পরীক্ষকের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে ৷ পরীক্ষকের সংখ্যাও বাড়িয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

সকাল সাড়ে দশটার মধ্যে প্রতিটি পরিক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছবে প্রশ্নপত্র। ১১ টা বেজে ৩৫ মিনিটে পরীক্ষা হলে দেওয়া হবে প্রশ্ন। ১১ টা ৫৫ মিনিটে খাতা দেওয়া হবে পরীক্ষার্থীদের। ১২ টা থেকে ৩টে পর্যন্ত চলবে পরীক্ষা।

আরও পড়ুন, মাধ্যমিক চলাকালীন মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না শিক্ষকরা, নির্দেশ পর্ষদের

পরীক্ষা চলাকালীন কড়া নিরাপত্তা জারি থাকবে সমস্ত কেন্দ্রে। টিচিং, নন টিচিং কর্মী, পরীক্ষার্থী কাউকে মোবাইল ফোন ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হবে না পরীক্ষা চলাকালীন। অফিসার-ইন-চার্জ, সেন্টার সেক্রেটারি, ভেনু ইরচার্জ সহ মোট পাঁচজনকে মোবাইল ব্যবহার করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। কেউ মোবাইল নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে এলে প্রধান শিক্ষকের কাছে লকারে জমা রাখতে হবে তা। লকারের চাবি থাকবে ভেনু ইনচার্জের কাছে। শুধু সময় দেখা যায়, এমন ঘড়ি ব্যবহার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পড়ুয়াদের।

মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি জানিয়েছেন, পরীক্ষার্থী অসুস্থ থাকলে হাসপাতালে পরীক্ষা নেওয়ার সবরকম ব্যবস্থা নেবে পর্ষদ।  লেখার সমস্যা অথবা জখম হওয়ার কারণে পরীক্ষার্থী নিজে লিখতে না পারলে রাইটারে নেওয়ার অনুমতি নিতে হবে পর্ষদের কাছ থেকে। পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড এবং অন্যান্য নথি হারিয়ে ফেললে অবিলম্বে পুলিশকে বিষয়টি জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সকাল ৬ টা থেকে খোলা থাকবে মাধ্যমিকের কন্ট্রোলরুম।

Get the latest Bengali news and Education news here. You can also read all the Education news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Madhyamik examination starts from tues day

Next Story
 ২৫ লক্ষ টাকা বেতনের চাকরি পেলেন কলকাতার এই প্রতিষ্ঠানের পড়ুয়ারাIIM Calcutta
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com