Lok Sabha Election 2019: ‘প্রণব আরএসএস অফিসে গিয়েছিলেন, অধীর-অভিজিতের হয়ে কাজ করছে সংঘ’

Loksabha Election 2019: ‘‘বাম আর রাম। আর মাঝে ঢুকেছে শ্যাম। দুই পাশে দুই কলাগাছ, মধ্যিখানে অধীর রাজ। একে কেস দিন, ওকে বদলে দিন। তোমার বিরুদ্ধে কত কেস আছে? খুলবো? আমরা ভদ্র বলে কিছু করি না।’’

By: Mursidabad  Updated: Apr 16, 2019, 8:15:46 AM

General Election 2019: মুর্শিদাবাদের মাটিতে দাঁড়িয়ে অধীর চৌধুরীকে বেনজির ব্যক্তিগত আক্রমণ করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার বেলডাঙ্গায় নির্বাচনী সভা করেন মমতা। এদিনের সভায় নিয়ম মাফিক মোদী-শাহকে চড়া সুরে তোপ দাগলেও, মমতার মূল নিশানায় ছিলেন বহরমপুরের বেতাজ বাদশা তথা ভূমিপুত্র অধীর। রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে ব্যক্তিগত পরিসর, সব দিক থেকেই এদিন অধীরকে তীব্র আক্রমণ করেছেন তৃণমূল নেত্রী। রাজনৈতিক মহলের মতে, মমতা ভাল করেই জানেন যে বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশের স্বপ্নে মূল কাঁটা অধীর গড় মুর্শিদাবাদ। আর তাই তিনি নজীরবিহীন আক্রমণ শানিয়েছেন অধীরের বিরুদ্ধে।

কী বলেছেন তৃণমূলনেত্রী-

মুর্শিদাবাদে অনেক কাজ করেছি। আলিগড় বিশ্ববিদ্যালেয়র জমি দিয়েছি। মেডিকেল কলেজে হয়েছে। আমরাও বিশ্ববিদ্যালয় করছি। এই জেলা থেকে আমরা ৪টি বিধায়ক পেয়েছি, পঞ্চায়েত সমিতি পেয়েছি, জেলা পরিষদও হয়েছে। কিন্তু, কখনও সাংসদ পাইনি। কংগ্রেস বিধায়করা চলে এসেছে। কিন্তু এবার বলতে এসেছি, ৪২-এ ৪২ চাই। তাহলে বহরমপুরটাও চাই, জঙ্গিপুরটা চাই আর মুর্শিদাবাদটাও চাই।

আরও পড়ুন- মমতার ব্যক্তিগত কথা ‘ট্যাপ’ হচ্ছে! কী বলছেন তৃণমূল সুপ্রিমো?

বহরমপুরে কী এমন বড় নেতা, সব জানা আছে আমার। সব জানি। আমাকে বেশি ঘাঁটিয়ে লাভ নেই। বহরমপুরে ক’দিন থাকেন? থাকেন কোথায়? বলা উচিত নয়, পারিবারিক ব্যাপার। একবার আয়নার দিকে তাকাতে বলুন। আমি শুনছিলাম, ওঁর স্ত্রী যে মারা গিয়েছেন তা মনোনয়নের এফিডেভিটে উল্লেখ করেননি। আমি জোড়া খুন থেকে সব ঘটনার কথাই জানি। মুর্শিদাবাদ আমার একেবারে হাতের মুঠোর মধ্যেই আছে। জিজ্ঞেস করুন, কলকাতায় কোথায় থাকে। মুখ খোলার প্রয়োজন নেই। সকালে বিজেপি, দুপুরে কংগ্রেস ও সন্ধ্যাবেলায় করে সিপিএম। প্রতিদিন বিজেপি ও আরএসসের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে। জঙ্গিপুর ও বহরমপুরে আরএসএস কাজ করছে। প্রণব মুখোপাধ্যায় আরএসএসের অফিসে গিয়েছিলন। বহরমপুরে অধীর চৌধুরীর হয়ে কাজ করছে আরএসএস। এটা সত্যি কথা।

বাম আর রাম। আর মাঝে ঢুকেছে শ্যাম। দুই পাশে দুই কলাগাছ, মধ্যিখানে অধীর রাজ। একে কেস দিন, ওকে বদলে দিন। তোমার বিরুদ্ধে কত কেস আছে? খুলবো? আমরা ভদ্র বলে কিছু করি না। তুমি জঘন্য রাজনীতি করো। মানুষের ওপর যে কত অত্যাচার করেছ, কেউ তা মুখ ফুটে বলত পারে না। অনেক মা কেঁদে কেঁদে পাগল হয়ে গিয়েছেন। এতই তোমার ক্ষমতা! এতই যখন ক্ষমতা, তাহলে কেন সিপিএমের সঙ্গে জোট কর? এরা সিপিএমের সঙ্গে আঁতাত করত, তাই কংগ্রেস ছেড়ে বেরিয়ে এসেছিলাম। প্রমাণ হয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন- ডেলোয় গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গেও বৈঠকে বসেছিলেন মমতা, চাঞ্চল্যকর দাবি মুকুলের

এই নির্বাচনে বিজেপি হারবে। মোদীর আমলে সন্ত্রাস কমেনি। আজ সেনাদের নিয়ে রাজনীতি করছে, আমরা করি না। সেনাদের স্যালুট করি, ওঁরা দেশের সম্পদ। ভোটের সময় রাজনীতি, হিন্দুস্থান আর পকিস্তান। ভোট মিটে গেলেই মোদীস্থান। এই রাজনীতি চলতে পারে না। দেশটা সবার জন্য। হিটলারি কায়দায় দেশ চালাচ্ছেন।

প্রতিদিন মিটিং করছে আর চলে যাচ্ছে। বলছে, এনআরসি করব, আর সবাইকে তাড়াব। বাংলায় এনআরসি তুমি কেন, কেউই করতে পারবে না। সবাইকে তাড়াবে, আর তুমি থাকবে লাটসাহেব? জমিদার যেন! নাগরিকত্ব দেবে! এনআরসি নিয়ে কংগ্রেসও সেদিন প্রতিবাদ করেনি। লোকসভায় কংগ্রেস সমর্থন করেনি। আমরা প্রতিবাদ করেছিলাম।

বিজেপি আসছে না। সব রাজ্যে জোট বেঁধেছি। আমরাও জাতীয় দল। নির্বাচন মিটে গেলে আমরা কমন মিনিমাম এজেন্ডার ভিত্তিতে সব ঠিক করব। মোদীবাবুর বিরুদ্ধে সরকার তৈরি হবে। জণগনের সরকার, ঐক্যবদ্ধ সরকার।

Indian Express Bangla provides latest bangla news headlines from around the world. Get updates with today's latest Election News in Bengali.


Title: Mamata Attacks on Pranab Mukherjee's RSS connection: 'প্রণব আরএসএস অফিসে গিয়েছিলেন, অধীর-অভিজিতের হয়ে কাজ করছে সংঘ'

Advertisement