‘পাওয়ার’ টেবিলে দানা বাঁধল বিরোধী শক্তি

বিরোধী জোট ঘোষণা করতে গিয়ে মমতা বলেছেন, ‘‘দেশ বাঁচাতে রাজ্যে বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে লড়াই হলেও জাতীয় স্তরে সকলে একসঙ্গে লড়ব।’’ রাহুল গান্ধীও বললেন, ‘‘বাংলা নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি।’’

By: Mallica Joshi New Delhi  Updated: Feb 14, 2019, 12:20:22 PM

‘‘আমাদের একটাই স্লোগান- সবকো এক রাখো, দেশ কো বাঁচাও।’’ এ স্লোগানকে সামনে রেখেই ‘নজিরবিহীন’ জোটের ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লক্ষ্য একটাই, মোদী-শাহদের হঠাতে হবেই। সেই লক্ষ্যপূরণ করতে তাই নিজের রাজ্যে কংগ্রেসের সঙ্গে লড়াই থাকলেও জাতীয় স্তরে রাহুল গান্ধীদেরই ‘হাত’ ধরতে এতটুকুও ‘দ্বিধা’বোধ করেননি তৃণমূলনেত্রী। সেকারণেই বিরোধী জোট ঘোষণা করতে গিয়ে মমতা বলেছেন, ‘‘দেশ বাঁচাতে রাজ্যে বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে লড়াই হলেও জাতীয় স্তরে সকলে একসঙ্গে লড়ব।’’ রাহুল গান্ধীও বললেন, ‘‘বাংলা নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি।’’ বাংলার মতোই দিল্লি নিয়েও এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন রাগা। দিল্লিতে আপ-কংগ্রেসের সমঝোতা হবে কিনা, সে নিয়ে এখনও কোনও দিশা মেলেনি।

উল্লেখ্য, জাতীয় স্তরে সকলকে একজোট হওয়ার বার্তা প্রথম থেকেই দিয়ে এসেছেন মমতা। বুধবার রাতে রাজধানীতে ৬ বিরোধী নেতার বৈঠক শেষে মমতার সেই ইচ্ছেই যেন পূরণ হল। দিল্লিতে শরদ পাওয়ারের বাড়িতে বৈঠক শেষে মমতা বলেছেন, ‘‘আমরা ভোটের আগেই জোট করছি…আমাদের সকলের কমন অ্যাজেন্ডা রয়েছে…রাহুল গান্ধীও আমাদের সঙ্গে রয়েছেন।’’ কংগ্রেস সভাপতি বলেছেন, ‘‘মোদী, বিজেপি, আরএসএসের থেকে দেশকে বাঁচানো আমাদের সকলরেই প্রধান লক্ষ্য। আমরা একসঙ্গে কাজ করতে দায়বদ্ধ। আমরা পরস্পরের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাব।’’

আরও পড়ুন, ভোটের আগেই জোট, ঘোষণা মমতার

জোটের স্বার্থে রাহুল-মমতার পাশে দাঁড়িয়েছেন চন্দ্রবাবু নাইডু, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, শরদ পাওয়ার, ফারুখ আবদুল্লারাও। কিন্তু শরদ পাওয়ারের ঘরে বিরোধী জোট নিয়ে বৈঠকে না থেকে নজর কেড়েছে সপা, বাম, আরজেডির মতো দলগুলি। যদিও বুধবার যন্তর মন্তরে কেজরির ধর্না কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছিল ওই বিজেপি বিরোধী দলগুলি। এক শীর্ষ নেতা বলেছেন, ‘‘রাজ্যস্তরে আমাদের মধ্যে ফারাক থাকতে পারে। কিন্তু জাতীয় রাজনীতিতে জোট দরকার।’’

আরও পড়ুন, কেজরির ধর্না মঞ্চে মমতা-ইয়েচুরি, নিশানায় মোদী সরকার

এদিন মমতা বলেছেন, ‘‘আমাদের ন্যূনতম অভিন্ন কর্মসূচি তৈরি করতে হবে।’’ এ ব্যাপারে তৃণমূলনেত্রী আরও বলেছেন, এ মাসের শেষে পরবর্তী বৈঠকে ন্যূনতম অভিন্ন কর্মসূচির প্রথম খসড়া রাহুল গান্ধীই তৈরি করুন, এটাই সব দল চায়।

অন্যদিকে, বিরোধীদের জোটকে নিয়ে রোজই কটাক্ষ করছেন মোদী-শাহরা। স্বার্থসিদ্ধির জন্যই বিরোধীরা জোট করছে বলে আক্রমণ শানিয়েছে গেরুয়াবাহিনী। বুধবার প্রাক নির্বাচনী জোট ঘোষণা করতে গিয়ে ন্যূনতম অভিন্ন কর্মসূচির কথা বলেছেন মমতারা। জোটকে নিয়ে মোদী-শাহদের আক্রমণের জবাব দিতে ন্যূনতম অভিন্ন কর্মসূচি কার্যত বিরোধীদের ‘হাতিয়ার’ বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

Read the full story in English

Indian Express Bangla provides latest bangla news headlines from around the world. Get updates with today's latest Election News in Bengali.


Title: On the table at Pawar dinner: ‘পাওয়ার’ টেবিলে দানা বাঁধল বিরোধী শক্তি

Advertisement