বড় খবর

পোশাক ভারী, তবুও বর্ম পরতে অভিযোগ জানাননি অমিতাভ বচ্চন

ঠাগস অফ হিন্দোস্থানের কস্টিউম ডিজাইনার কথা বললেন ছবির জার্নি প্রসঙ্গে এবং জানালেন ১৭৯৫-এর হিন্দোস্থান ও পাইরেটস অফ দ্য ক্যারাবিয়ানের সঙ্গে তুলনা নিয়ে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ডট কমের সঙ্গে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ঠাগস অফ হিন্দোস্থানের কস্টিউম ডিজাইনার

১৭৯৫ সালের প্রেক্ষাপটে তৈরি যশ রাজ ফিল্মসের ঠাগস অফ হিন্দোস্থান মুক্তি পেয়েছে বৃহস্পতিবার এবং এটাই ২০১৮র সবথেকে চর্চিত প্রজেক্ট। শিল্পীদের লুক দর্শকেক কৌতুহল দ্বিগুন বাড়িয়েছিল। ছবির কস্টিউম ডিজাইনারদ্বয় মানসী ও রুশি শর্মা। এর আগে পিকে, কুইন ও ডিটেক্টটিভ ব্যোমকেশ বক্সী ছবির পোশাক পরিকল্পনা করেছিলেন এই জুটি। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ডট কমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ঠাগস অফ হিন্দোস্থানের কস্টিউম ডিজাইনার কথা বললেন ছবির জার্নি প্রসঙ্গে এবং জানালেন ১৭৯৫-এর হিন্দোস্থান ও পাইরেটস অফ দ্য ক্যারাবিয়ানের সঙ্গে তুলনা নিয়ে।

ঠাগস অফ হিন্দোস্থানের জার্নি কেমন ছিল বলতে গিয়ে মানসী বললেন প্রায় সাড়ে তিন বছর ধরে তারা ছবির সঙ্গে যুক্ত। কেমন একটা আত্মিকতার সম্পর্ক হয়ে গিয়েছে। তবে অমিতাভ বচ্চন ও আমির খানেদের মতো বড় বড় তারকা থাকার কোনও চাপ অনুভব করেননি তারা। বর্ম আর জুতোর জন্য তো আলাদা টিম ছিল এবং ছেলে ও মেয়েদের দুটো ভিন্ন টিম। আর অন্য একটা ইউনিট দেখছিল আর্মিদের পোশাক। গয়না ও ভারতের বিভিন্ন ফ্যাব্ররিক নিয়ে রিসার্চ করেছিলেন মানসী ও রুশি। রোলি বুক, আলকাজি ফাইন্ডেশন, দিন দয়ালের ছবি,পার্শিয়ান আর্ট নিয়ে পড়াশুনা করেছিলেন তারা। ছবির গল্পই মুখ্য অভিনেতাদের পোশাক বলে দেয় খানিকটা। তবে অভিনেতারা ভীষণ ব্রড মাইন্ডেড ও সবটা গ্রহণ করার ক্ষমতা রাখেন। ”অমিতাভ বচ্চন তো উদাহরণ, ওনার বর্ম ভীষণ ভুগিয়েছিল। যা পোশাক পড়তে বলেছি উনি বিনা বাক্য ব্যয়ে পরেছেন। বারবার আর্মার পরে বলতে শুনেছি ‘ইটস হার্টিং’, ‘ইটস হেভি’, আমরা বারবার বলেছি শটের মাঝে খুলে রাখতে কিন্তু তিনি রাজি হননি। বলতেন, আমি চরিত্রটা থেকে বেরিয়ে আসব তাহলে।”

আরও পড়ুন, Thugs of Hindostan Review: প্রাপ্তির নিরিখে ঠকলেন দর্শকরা

রুশি কথা বললেন ঠাগস অফ হিন্দোস্থানের সঙ্গে পাইরেটস অফ দ্য ক্যারিবিয়ানের তুলনা করা নিয়েও। ছবিটা তৈরির সময়ে কি এই তুলনা এসেছিল? ”আপনি যে ছবিতে জাহাজ দেখবেন সেখানেই পাইরেটসের সঙ্গে তুলনা হবে। চোখের সামনে যা থাকে লোকে সেটা নিয়েই কথা বলে। যদি ব্ল্যাক সেলস বড়পর্দায় হত, তাহলে এই ছবিকে ব্ল্যাক সেলের উপমাই দেওয়া হত। পাইরেটস অফ দ্য ক্যারিবিয়ান না দেখলে দর্শক এই তুলনাটা টানতনা। মোট জনসংখ্যার দুই শতাংশ মানুষ হয়তে পাইরেটস অফ দ্য ক্যারিবিয়ান দেখেছেন। তবে পাইরেটস আমাদের রেফারেন্স ছিলনা। ১৭৯৫ সাল আমাদের রেফারেন্স ছিল”।

Read the full story in English 

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Amitabh bachchan armour thugs of hindostan costume designers

Next Story
Thugs of Hindostan Review: প্রাপ্তির নিরিখে ঠকলেন দর্শকরা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com