বড় খবর

ছোটবেলায় সবাই ভেবে নেয় মৃত! দেবকে দাহ করতে নিয়ে যাওয়া হয় শ্মশানে

শৈশবের ‘চাঞ্চল্যকর’ ঘটনার কথা শেয়ার করলেন অভিনেতা। দেখুন ভিডিও।

Dev, Tollywood, Saswata Chatterjee, Rukmini Maitra, দেব, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, দেবের শৈশব, bengali news today
শৈশবের 'চাঞ্চল্যকর' ঘটনার কথা শেয়ার করলেন দেব

বর্তমানে তিনি শাসক দলের সাংসদ। উপরন্তু টলিউড সুপারস্টারও। একাধারে প্রযোজক এবং অভিনেতা। দেব-অনুরাগীদের সংখ্যাও নেহাত কম নয়। তাঁর মানবিকতায় বারবার মুগ্ধ হয়েছেন নেটজনতারা। আর বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সেই সুপারস্টার অভিনেতা তথা সাংসদকেই কিনা মৃত ভেবে শ্মশানে দাহ করতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল! সেই রাতের রোমহর্ষক অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করলেন স্বয়ং দেব (Dev)।

নাহ, সাম্প্রতিককালে এমন কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা দেবের শৈশবের। তখন তিনি মুম্বইতে থাকেন। গাজনের মেলা দেখতে গ্রামে এসেছিলেন মামাবাড়িতে। খুবই ছোট তখন। তাই পাড়া-প্রতিবেশীর সঙ্গে হইহই করে গাজনের মেলা দেখতে বেরিয়ে পড়েন। সেখানেই বোধহয় কেউ কিছু খাইয়ে দিয়েছিলেন। যা খাওয়ার পর অজ্ঞান হয়ে যান তিনি। টানা একদিন অচেতন অবস্থায় ছিলেন। এদিকে দেবের দিদা তো নাতি রাজুকে (দেবের বাড়ির নাম) হন্যে হয়ে খুঁজতে থাকেন। মেয়ের একটাই সন্তান। কিছু হয়ে গেলে মুখ দেখাবেন কী করে মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে? মেয়ে-জামাইকেই বা কী উত্তর দেবেন? অতঃপর কান্নাকাটি শুরু করে দেন তিনি।

ওদিকে গাজনের মেলায় ঘণ্টাখানেক ছোট্ট দেবকে অচেতন অবস্থায় দেখে অনেকেই ভেবে বসেছিলেন যে, তিনি মৃত। তাঁরাই নির্দিষ্ট সময়ের পর শ্মশানে নিয়ে যান দেবকে দাহ করতে। আর সেই রোমহর্ষক অভিজ্ঞতার কথাই শ্বাশত চট্টোপাধ্যায় (Saswata Chaterjee) সঞ্চালিত এক টক শোয়ে শেয়ার করেন অভিনেতা। যা শুনে রীতিমোত তাজ্জব হয়ে যান অভিনেতা-সঞ্চালক শাশ্বত। উপস্থিত রুক্মিণী মৈত্রর মুখেও তখন কথা আটকে গিয়েছে। তারপর?

[আরও পড়ুন: ‘হারতে শেখেননি দেবশ্রী রায়, সর্বজয়া সিরিয়াল-ই প্রমাণ, বিস্ফোরক অভিনেত্রী]

কী করে সেই যাত্রায় বেঁচে ফিরলেন দেব? অভিনেতা জানান, তিনি নিখোঁজ হতেই গ্রামে হন্যে হয়ে তাঁকে খুঁজতে শুরু করেন দিদা এবং মামারা। শেষমেশ শ্মশান থেকে উদ্ধার করা হয় তাঁকে। দিদা ততক্ষণে মনস্থির করে ফেলেছেন যে, নাতিকে খুঁজে পেলেই যত দ্রুত সম্ভব মুম্বইতে ফিরিয়ে দেবেন। পাশাপাশি, মানত করেছিলেন যে, নাতিকে খুঁজে পেলে তাঁকে দিয়ে গাজনের সন্ন্যাস পালন করাবেন।

দিদার সেই নির্দেশ অমান্য করেননি ‘রাজু’ ওরফে দেব। মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার পর মামাবাড়ির গ্রামে আসেন এবং নিয়ম মেনে গাজনের সন্ন্যাসী কিংবা ভক্তা হয়ে এক সপ্তাহ মন্দিরে কাটান। ঠিক যেভাবে গাজনের সময়ে সন্ন্যাসীরা নিয়ম পালন করেন, সেইসব-ই দেব করেছিলেন। আগুনে খেলা, কাঁটা-ঝাঁপ কিচ্ছু বাদ দেননি! সুপারস্টারের শৈশবের সেই রুদ্ধশ্বাস কাহিনি যেন সিনেমার থেকে কোনও অংশে কম নয়। টক শোয়ে সেই ঘটনার কথা শুনে হতবাক শাশ্বত, রুক্মিণীও।

উল্লেখ্য, দেব বর্তমানে ‘কিশমিশ’ (Kishmish) সিনেমার শুটিংয়ে ব্যস্ত। ইতিমধ্যেই ঋতুপর্না সেনগুপ্ত, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, যিশু সেনগুপ্ত থেকে পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো অভিনেতাদের সঙ্গে সিনেমার শুটিং করে ফেলেছেন। রাহুল মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবিতে দেবের বিপরীতে অভিনয় করছেন রুক্মিণী মৈত্রও (Rukmini Maitra)।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Devs unknown childhood facts he aws taken to burning ghat

Next Story
ছোট্ট আফগান মেয়ের চিঠি পেয়ে মন ভেঙেছে, ইনস্টাগ্রামে গর্জে উঠলেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com