scorecardresearch

বড় খবর

‘মিস ইউক্রেন’-এর হাতে কালাশনিকভ! মাতৃভূমি বাঁচাতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামলেন আনাস্তাসিয়া

রক্তাক্ত দেশ বাঁচাতে বন্দুক হাতে ‘মিস ইউক্রেন’।

Miss Ukraine, Anastasiia Lenna, Russia, Russia-Ukraine, ইউক্রেন, রাশিয়া, মিস ইউক্রেন, আনাস্তাসিয়া লিনা, bengali news today
প্রাক্তন 'মিস ইউক্রেন' আনাস্তাসিয়া লিনা।

রুশ আক্রমণে বিপন্ন দেশ। প্রাণ বাঁচাতে বাঙ্কারে আশ্রয় নিলেও দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে। শত্রু দেশকে আর ভয় নয়! তাই ইউক্রেন সরকারের তরফে জনসাধারণের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে আগ্নেয়াস্ত্র। এদিকে রাশিয়ান সেনবাহিনির মূহুর্মূহু বোমাবাজিতে রাজধানী কিয়েভ-সহ সংশ্লিষ্ট দেশের একাধিক জায়গায় ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। রুশ সেনাদের প্রতিহত করতে ইউক্রেনের নাগরিকরা তাঁদের হাতে তুলে নিয়েছেন আগ্নেয়াস্ত্র। সেই তালিকাতেই নাম লেখালেন প্রাক্তন ‘মিস ইউক্রেন’ আনাস্তাসিয়া লিনা।

হিলতোলা জুতো ছেড়ে পায়ে পরেছেন কম্ব্যাট শ্যু। আঁটো করে বাঁধা চুল। চোখে চশমা। পরনে লেদার জ্যাকেট। আর হাতে মারাত্মক আগ্নেয়াস্ত্র কালাশনিকভ। নিজের মাতৃভূমিকে রুশ সেনাদের হাত থেকে বাঁচাতে বন্দুক হাতে রাস্তায় নেমে পড়েছেন ইউক্রেন সুন্দরী আনাস্তাসিয়া। সোশ্যাল মিডিয়াতেই সেই ছবি নিজেই শেয়ার করেছেন আন্তর্জাতিক ময়দানে খ্যাতিসম্পন্ন এই মডেল।

দিন কয়েক আগে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যুদ্ধ ঘোষণা করতেই ইউক্রেন সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছেন বছর চব্বিশের এই মডেল। পাশাপাশি এক ইনস্টা পোস্টে আনাস্তাসিয়া লিনার হুঁশিয়ারি, যে বা যাঁরা আক্রমণের জন্য সীমান্ত পেরিয়ে ইউক্রেনে প্রবেশ করেছেন, সবাই মারা পড়বে। এমনকী, সেনাবাহিনীর সঙ্গে প্রেসিডেন্ট জোলেনস্কির ছবি শেয়ার করে তিনি ভূয়সী প্রশংসা করে এও বলেন যে, “একজন প্রকৃত নেতা।” শুধু তাই নয়, ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর স্বার্থে তাঁদের জন্য আর্থিক অনুদান চাওয়া থেকে শুরু করে তাঁদের সমর্থন জোগাড় করতেও সুর চড়াতে দেখা গিয়েছে প্রাক্তন ‘মিস ইউক্রেন’কে।

[আরও পড়ুন: নিক-প্রিয়াঙ্কা নন! সন্তানের নামকরণ করবেন ‘পণ্ডিতজি’, সাফ জানালেন অভিনেত্রীর মা]

পেশায় অভিনেত্রীও বটে আনাস্তাসিয়া। ১৯৯৮ সালে কিয়েভে জন্ম। ২০১৫ সালে ‘মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল’ নামে এক সৌন্দর্য প্রতিযোগীতায় ‘মিস ইউক্রেন’ হিসেবে সেরার শিরোপা কেড়ে নেন তিনি। পড়াশোনাতেও তুখড়। কিয়েভের স্লাভিস্টিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মার্কেটিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট নিয়ে স্নাতক পাশ করে বছরখানেক তুরস্কের ইস্তানবুল, আঙ্কারা, বোদরুমের মতো বিভিন্ন জায়গায় জনসংযোগের চাকরি নিয়ে ঘুরেছেন।

মোট পাঁচটি ভাষায় দক্ষভাবে কথা বলতে পারেন আনাস্তাসিয়া। সেই প্রেক্ষিতেই মাসখানেক ট্রান্সেলেটরের চাকরিও করেছেন। ১৩ বছর বয়স থেকেই রোজগারের পথ বেছে নিয়েছেন এই ইউক্রেন সুন্দরী। তবে পেশাকে দূরে সরিয়ে আপাতত দেশরক্ষায় পুতিনের সেনাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, কিয়েভের মেয়র ভিতালি ক্লিটসচকো দেশ বাঁচানোর জন্য মহিলা-পুরুষ নির্বিশেষে সকলকে আহ্বান জানিয়েছিলেন। সেই ডাকে সাড়া দিয়েই ‘মিস ইউক্রেন’ আনাস্তাসিয়া লিনা রাশিয়ার বিরুদ্ধে হাতে তুলে নিয়েছেন কালাশনিকভ।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Former miss ukraine anastasiia lenna joins army against russia