দাদা সাহেব ফালকের ১৪৮ তম জন্মদিনে ডুডল বানিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন গুগলের

দাদা সাহেব ফালকের ১৪৮তম জন্মদিনে তাঁকে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করল গুগল। সোমবার ভারতীয় সিনেমার জনক ধুন্ডিরাজ গোবিন্দ ফালকের জন্মদিন। যিনি বিখ্যাত দাদা সাহেব ফালকে নামে।

By: Kolkata  Updated: April 30, 2018, 10:41:00 AM

সোমবার একটি ডুডলের মাধ্যমে গুগল দাদাসাহেব ফালকে ওরফে ধুন্ডিরাজ গোবিন্দ ফালকের ১৪৮তম জন্মদিনে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করল।

১৯১৩ সালে প্রযোজক, পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার দাদা সাহেব ফালকের হাত ধরেই ভারতে আসে প্রথম সাইলেন্ট ছবি রাজা হরিশচন্দ্র। সাবলীল ফোটোগ্রাফি এবং সীমিত টেকনলজির ব্যবহারে তিনি পর্দায় রুপ দেন সহস্র ভারতবাসীর কল্পনাকে সিনেমায় রুপ দিয়েছিলেন।

আজ আমরা থ্রিডি অ্যানিমেশন কিংবা সিনেমার আর্ট ডেকরেশন নিয়ে আলোচনা করি। তবে আজ থেকে প্রায় দেড় শতক আগেই ভারতীয়দের জন্য এই রাস্তা প্রশস্ত করেছিলেন দাদা সাহেব ফালকে। ছোটবেলা থেকেই তিনি স্থাপত্য, কলা, ফোটোগ্রাফি, লিথোগ্রাফি এমনকি ম্যাজিকেও আগ্রহী ছিলেন দাদা সাহেব।  সিনেমা পরিচালনা শুরু করবার আগে তিনি থিয়েটারের সেট ডিজাইন থেকে শুরু করে চিত্রশিল্পী, ড্রাফটম্যান এমনকী লিথোগ্রাফার হিসাবে ও কাজ করেছেন। এরপর অ্যালিস গাই পরিচালিত সাইলেন্ট মুভি দ্য লাইফ অফ ক্রাইস্ট তাঁর জীবনে আমূল পরিবর্তন আনে। সিনেমাটি তাঁকে ভারতীয় সভ্যতাকে সিনেমার পর্দায় রুপ দেবার প্রেরণা দেয় । সেই নেশায় তিনি লন্ডনে  পাড়ি দেন  সিসিল হেপওয়ার্থ থেকে সিনেমা বিষয়ক পড়াশোনা করতে।

আরও পড়ুন: ‘‘আমরা ছ্যাবলামো করি না’’, বললেন যাত্রাপাড়ার সুচিত্রা সেন, সহমত চিৎপুরের উত্তম কুমার

তাঁর ১৯ বছরের কেরিয়ারে দাদাসাহেব মোট ১৩০টি ছবি তৈরি করেন। তার মধ্যে মোহিনী ভস্মাসুর, সত্যবান সাবিত্রী, লঙ্কা দহন, শ্রী কৃষ্ণ জন্ম, কালিয়া মর্দন সিনেমাগুলি উল্লেখযোগ্য। সেসময়ের সীমিত প্রযুক্তির কথা মাথায় স্বীকার করতেই হয় এই ১৩০টি ছবি ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ ছিল। দাদা সাহেবের জীবনী দ্য সাইলেন্ট ফিল্ম কনটেন্টস বইটির লেখিকা এবং দাদাসাহেবের প্রপৌত্রী শরায়ু ফালকে সুম্মনওয়ার তাঁর প্রসঙ্গে বলেন, ব্রিটিশ রাজত্ব এবং বিশ্বযুদ্ধের দরুণ দেশজুড়ে রাজনৈতিক ডামাডোল এবং নানা অর্থনৈতিক প্রতিকূলতা পেরিয়ে তিনি ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাষ্ট্রি তৈরির স্বপ্নটি সফল করেন।

আরও পড়ুন: বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস মুভি রিভিউ : প্রান্তিক জীবনকেই পর্দায় তুলে ধরলেন মাজিদি

দাদাসাহেব ফালকে তাঁর শেষতম নির্বাক ছবি সেতুবন্ধন তৈরি করেন ১৯৩২ সালে। ১৯৪৪ সালের ১৬ ফেব্রুয়াবী পরলোক গমন করেন এই লেজেন্ড।

এরপর ১৯৬৯ সালে ভারত সরকার চালু করেন দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার। ভারতীয় সিনেমায় সারা জীবনের অবদানের জন্য এই সম্মানে সম্মানিত হয়েছেন অনেকেই। এখন পর্যন্ত ইন্ডিয়ান সিনমার সবথেকে মর্যাদাপূর্ন অ্যাওয়ার্ড হিসাবে গন্য করা হয় দাদাসাহেব ফালকে সম্মানকে। ভারতের সিনেমাজগতের উল্লেখযোগ্য অবদানের দরুণ সত্যজিৎ রায়, মৃণাল সেন  থেকে শুরু করে তারকা দেবীকা রানি, পৃথ্বিরাজ কাপুর প্রত্যেকেই ভূষিত হয়েছেন এই সম্মানে।

আরও পড়ুন: যৌনবিশ্বে কীসের হাতছানি

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Entertainment News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Google dedicates doodle dadasaheb phalkes birth anniversary

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement