বড় খবর

‘অপছন্দ হলে মাধবন খুব নম্রভাবে বোঝান’, নেটফ্লিক্সের ‘ডিকাপলড’-এর অভিজ্ঞতা জানালেন মীর

Exclusive: মীর-মাধবন যুগলবন্দি। রিলিজ করল ‘ডিকাপলড’। কী বলছেন অভিনেতা?

Mir Afsar Ali, R Madhavan, Decoupled, Netflix, নেটফ্লিক্সের সিরিজে মার আফসার আলি, মীর আফসার আলি, আর মাধবন, ডিকাপলড, মীর-মাধবন, bengali news today
মীর আফসার আলি, মাধবন

মঞ্চ, রেডিও, ছোটপর্দা থেকে টলিউড পেরিয়ে মীর আফসার আলি (Mir Afsar Ali) এখন আন্তর্জাতিক স্তরের ওটিটি প্ল্যাটফর্মে। বলা ভাল, বলিউডে শিকে ছিঁড়ে ফেলেছেন। মাধবনের (R Madhavan) সঙ্গে এক ওয়েব সিরিজে অভিনয় করে ফেললেন। নাম – ‘ডিকাপলড’ (Decoupled)। নেপথ্যে নেটফ্লিক্স। এক দম্পতির বিচ্ছেদ নিয়েই সিরিজের গল্প। শুক্রবার, ১৭ ডিসেম্বর নেটফ্লিক্সের পর্দায় মুক্তি পেল মীর-মাধবন যুগলবন্দির এই ওয়েব সিরিজ। আর সেই প্রেক্ষিতেই অভিনেতা-সঞ্চালক এখন সপ্তম স্বর্গে। তা নেটফ্লিক্স (Netflix) ফ্রাইডে রিলিজের অভিজ্ঞতা কেমন? সেই হাঁড়ির খবর জানতেই মীরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল।

শুটের ব্যস্ততার মাঝেই ফোন ধরলেন। ‘ডিকাপলড’ রিলিজ নিয়ে উচ্ছ্বাস ধরা পড়ল তাঁর কণ্ঠে। নেটফ্লিক্সের (Netflix) ওয়েব সিরিজে কাজের সুযোগ এল কীভাবে? ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলাকে মীর জানালেন, “২০২০ সালে অতিমারী যখন চোখ রাঙিয়েছে, তখনই একদিন আদিত্য মোতওয়ানির কাস্টিং এজেন্সির কাছ থেকে ফোন আসে। শুনলাম, হার্দিক মেহেতার প্রথম ওয়েব সিরিজ হতে চলেছে এটা। ‘পাতাল লোক’-এর লেখক হিসেবে যিনি আগে বেশ খ্যাতি কুড়িয়েছিলেন। ওঁর বিষয়ে এটুকুই জানতাম। তারপর বাকিটা জানলাম কাজ করার সময়ে।”

গত বছর লকডাউনের মাঝেই অডিশন হয়। কলকাতায় অডিশন টিম আসতে পারেনি অতিমারীর জন্য। তাই মীর নিজেই ভিডিও শুট করে ওদের পাঠান। তার মাস দুয়েকের মধ্যেই ওপ্রান্ত থেকে জানানো হয় যে, ‘ডিকাপলড’ সিরিজের জন্য বিশেষ একটা চরিত্রে তিনি নির্বাচিত হয়েছেন। ২০২০ সালের অতিমারী প্রকোপ যখন খানিক রাশ টেনেছে, তখন ডিসেম্বর মাসে দিল্লিতে শুট শুরু হয়। মুম্বইতে যেহেতু কোভিডের জন্য প্রচুর বিধিনিষেধ ছিল, তাই দিল্লিতেই পুরো কাস্ট নিয়ে ৮টা এপিসোড শুটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন নির্মাতারা।

[আরও পড়ুন: শ্বশুরবাড়িতে নিজে হাতে হালুয়া বানালেন ক্যাটরিনা, ভিকি বলছেন, ‘বিশ্বের সেরা স্বাদ’!]

দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রির দাপুটে অভিনেতা, বলিউডেও সুনাম নেহাত কম নয় আর মাধবনের, তাঁর সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন? মীরের মন্তব্য, “মাধবনের (R Madhavan) সঙ্গে প্রথম কাজ। বাকি সবার সঙ্গেও। উনি পেশাদার তো বটেই। পাশাপাশি খুব সহযোগিতাও করেন। মাধবনের সঙ্গে স্ক্রিন স্পেস শেয়ার করার অভিজ্ঞতা দুর্দান্ত। সেটে দেখতাম, কোনও কিছু পছন্দ না হলে একাধিকবার খুঁটিয়ে দেখতেন। আবার খুব ভদ্রভাবে বিনম্রতার সঙ্গে বোঝাতেন সহ-অভিনেতাদের। ব্যক্তিগত মতামত শেয়ার করতেন যে, এই বিষয়টাকে আরেকটু অন্যভাবে করলে হয়তো ভাল হবে।” ‘ডিকাপলড’ সিরিজে মীরের চরিত্রের নাম ডা. শোভন বসু। যিনি কিনা একজন পলিটিক্যাল-ইকোনমিস্টের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। ব্যস, এরপর আর ভাঙতে চাইলেন না মীর। বাকিটা নেটফ্লিক্সের পর্দায়।

আর বাংলার বাইরে কাজ করার অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে মীর আফসার আলি বললেন, “একটা কথাই বলব, বলিউডে প্রথমবার কাজ করে যে শিক্ষালাভ হল, সেটা হচ্ছে, নিয়মানুবর্তিতা এবং সময়ের কাজ সময়ে করা। তবে বিশেষভাবে ভাল লাগল, নিজের ভাবনা নিয়ে পরিচালকের মধ্যে স্বচ্ছ ধারণা থাকার বিষয়টা। কী শট চাইছি, কিংবা গোটা দৃশ্যটা কীরকম দাঁড়াবে- পুরো বিষয়টা ওঁরা আগে থেকে ছকে নেন। কাজেই অযথা রি-টেকের প্রয়োজনও পড়ে না। এমন পেশাদারিত্ব দেখে শেখার মতো।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Mir afsar ali in r madhavan starrer netflix series decoupled shares experience

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com