মাছ-ভাত নিয়ে বাঙালিকে চরম অপমান! বিজেপির সভায় 'সীমা' ছাড়ালেন পরেশ রাওয়াল: Paresh Rawal apologized for bengali fish cooking remark | Indian Express Bangla

মাছ-ভাত নিয়ে বাঙালিকে চরম অপমান! বিজেপির সভায় ‘সীমা’ ছাড়ালেন পরেশ রাওয়াল

ক্ষমা চেয়েও নিস্তার নেই। পরেশের বিরুদ্ধে খেপে উঠেছেন বাঙালিরা।

মাছ-ভাত নিয়ে বাঙালিকে চরম অপমান! বিজেপির সভায় ‘সীমা’ ছাড়ালেন পরেশ রাওয়াল
বাঙালিদের মাছ খাওয়া নিয়ে খোঁচা পরেশ রাওয়ালের

গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়েছেন দীর্ঘদিন। এবার রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গে যেখানে গোটা দেশজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে এবং অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে, সেখানে পরেশ রাওয়াল খোঁচা দিলেন বাঙালিদের। বাংলার বিজেপি-বিরোধী শাসক দলের জন্যই কি? প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

গুজরাতে বিজেপির প্রচারসভায় এসে পরেশ রাওয়াল যা বললেন তাতে রাজনৈতিক মহলের অন্দরে বিতর্কের ঝড়। উদ্বাস্তু সমস্যা, এনআরসি প্রসঙ্গে কথা পারতেই অভিনেতার প্রশ্ন, গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে কী করবেন, বাঙালিদের জন্য মাছ ভাজবেন? এমন কথার পরই জনরোষের মুখে পরতে হল পরেশ রাওয়ালকে। শেষমেশ ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেও তাঁকে ঘিরে সমালোচনার অন্ত নেই।

রান্নার গ্য়াসের আগুন দাম নিয়ে যখন কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ আসছে, ঠিক সেইসময়ে দাঁড়িয়েই মঙ্গলবার গুজরাতে বিজেপি আয়োজিত এক সভায় বক্তব্য রাখছিলেন পরেশ রাওয়াল। সেখানেই গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির অভিয়োগ উড়িয়ে দেন বিজেপির তারকা সদস্য। বরং, গ্যালের মৃল্যবৃদ্ধিতে সায় দিয়ে পরেশ খোঁচা দিলেন বাঙালিদের।

[আরও পড়ুন: শেষই হচ্ছে না অভিযোগ, কথা বলেন না অর্জুন! মান সম্মান খুইয়ে নম্বর চেয়েছিলেন মিমিই]

ঠিক কী বলেছেন পরেশ রাওয়াল? তাঁর কথায়, “গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম এখন বাড়লেও পরে কমে যাবে। তবে চিন্তা একটা থেকেই যাচ্ছে। যেটা কিনা দেশের স্বার্থে আরও মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে। মুদ্রাস্ফীতি মানুষ সহ্য করতে পারবে। কিন্তু পাশের বাড়িতে যদি উদ্বাস্তু বাংলাদেশি কিংবা রোহিঙ্গারা ঘাঁটি গেড়ে থাকেন, তখন গ্যাসের সিলিন্ডার নিয়ে কী করবেন? বাঙালিদের জন্য মাছ ভাজবেন?”

বলিউডের সম্মানীয় প্রবীণ অভিনেতার মুখে এমন কথা শুনেই নিন্দার ঝড় ওঠে। জাতিবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগ ওঠে পরেশ রাওয়ালের বিরুদ্ধে। যদিও আম আদমি পার্টির নেতা কেজরিওয়ালকে উদ্দেশ্য করেই একথা বলেন তিনি, “তবে বাঙালিরা সূচাগ্র মেদিনী ছেড়ে কথা বলেননি। বিতর্কের জেরে ক্ষমা চেয়ে পরেশ বলেন, মাছ নিয়ে আলাদা করে বলা অবশ্যই ঠিক হয়নি। গুজরাতের মানুষও মাছ খান। আমি শুধু বেআইনিভাবে উড়ে এসে জুড়ে বসা রোহিঙ্গা, উদ্বাস্তুদের কথা বুঝিয়েছি। কারও অনুভূতিতে আঘাত করতে চাইনি। ক্ষমা চাইছি।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Paresh rawal apologized for bengali fish cooking remark

Next Story
মারাত্মক দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম জুবিন নটিয়াল! ভাঙল হাতের কনুই