scorecardresearch

‘দাদা, প্রিয়াঙ্কাদিকে পাওয়া যাবে?’, ফোনে আবদার শুনে রেগে আগুন রাহুল, তারপর…

সেই ঘটনা শুনে বন্ধু ঋত্বিক চক্রবর্তী ও দেবলীনা কুমারের মন্তব্যে নেটদুনিয়ায় শোরগোল।

Rahul Arunodoy Banerjee, Priyanka Sarkar, tollywood, রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রিয়াঙ্কা সরকার, রাহুল-প্রিয়াঙ্কা, bengali news today
প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে রাহুলের কাছে ফোন, তারপর…?

রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায় (Rahul Arunodoy Banerjee) এবং প্রিয়াঙ্কা সরকার (Priyanka Sarkar), দীর্ঘদিন হল একে-অপরের সঙ্গে থাকেন না। বিবাহ বিচ্ছেদ আইনি মনে না হলেও বছর খানেক ধরে তাঁরা যে একে-অপরের থেকে আলাদা থাকেন, সেকথা সকলেরই জানা। দুই টলিউড তারকাই স্বতন্ত্রভাবে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু বিচ্ছেদের এতবছর বাদেও তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে শোরগোল, সমালোচনার অন্ত নেই। আর এসবের মাঝেই রাহুলের কাছে ফোন আবদার, “দাদা, প্রিয়াঙ্কাদিকে পাওয়া যাবে?” এমন আবদার শুনে তো রেগে আগুন অভিনেতা। অতঃপর ক্ষুব্ধ হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় গোটা ঘটনাটা জানিয়েছেন। আর তারপর রাহুলের সেই পোস্টে টলিউড সহকর্মীরা যা মন্তব্য করলেন, তাতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

বিষয়টা ঠিক কী? জনৈক এক ফটোগ্রাফার রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে এমন আবদার করে বসেছেন। আর তাতেই রেগে গিয়েছেন অভিনেতা। ওই চিত্রগ্রাহকের সঙ্গে হারুলের আলাপ পরিচালক রাজর্ষি দে’র একটি ছবির পোস্টার শুট করতে গিয়ে। সাধারণত ফটোশুট করা খুব একটা পছন্দ না হলেও বর্তমানে অভিনেতা সোশ্যাল ময়দানে বেজায় সক্রিয়। তাই ফটোগ্রাফারের আবদারে তিনি নিজে রাজি হয়ে যান। ভেবেছিলেন, ছেলেটির উপকার হবে। উপরন্তু তাঁর নিজেরও কিছু ছবি তোলা হয়ে যাবে এই সুযোগে। কিন্তু তারপরই ওপ্রান্ত থেকে অদ্ভূত একটা আবদার উড়ে আসে। রাহুলকে ফোন করে ফটোগ্রাফারের সপাট প্রশ্ন- “দাদা, প্রিয়াঙ্কাদিকে পাওয়া যাবে? তাহলে একটা শাড়ির শুট করতাম!” এমন আবদার শুনে তো হতবাক অভিনেতা।

[আরও পড়ুন: দেব-রুক্মিণীর ছবিতে ‘ইন্ডিয়ান আইডল’ বিজয়ী পবনদীপের গান, শুনেছেন কি?]

ফেসবুকে রাহুলের মন্তব্য, “আমার আর প্রিয়াঙ্কার ছাড়াছাড়ি হয়েছে আধ দশক হয়ে গিয়েছে। যা সবারই জানা। আর যদি একসঙ্গে থাকতামও তাহলেও ‘নবাব কিনলে আরাম ফ্রি’-তে বিশ্বাসী নই আমি। প্রত্যেকেই নিজের যোগ্যতায় জায়গা করেছি। স্বাভাবিকভাবেই এরকম একটি নির্বোধের সঙ্গে কাজ করা সম্ভব নয়।” কিন্তু তাই বলে ফটোশুটের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেননি। কিন্তু এর পাশাপাশি অভিনেতা এও স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে, কোনও ফটোগ্রাফার যদি শুধুমাত্র তাঁর সঙ্গেই কাজ করতে আগ্রহী হন, তাহলেই যেন যোগাযোগ করেন।

স্বাভাবিকভাবেই এমন পোস্টের পর রাহুলের থেকে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন খোদ পরিচালক রাজর্ষি দে। কারণ, তাঁর সূত্রেই ওই ফটোগ্রাফারের সঙ্গে আলাপ। ওদিকে বন্ধু অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তীর পরামর্শ- “স্যার তো কবেই বলেছেন,কাউকে বেশি লাই দিতে নেই সবাই চড়ে মাথায়।” দেবলীনা কুমার বললেন, “রাহুল দা গো, এই দুঃখের কথা কী আর বলি! আমরা যেন সবাই প্যাকেজে আসি।” মন্তব্য করেছেন অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র, অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়, সুজয়প্রসাদ চট্টোপাধ্যায় থেকে শ্রীজাতও। এককথায়, রাহুলের এই ফেসবুক পোস্টে এখন তোলপাড় নেটদুনিয়া।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rahul arunodoy banerjee was asked about ex wife priyanka sarkar actor got angry