বড় খবর


‘সুশান্ত খুন হননি, আত্মহত্য়াই করেছেন’, দাবি এমসের

এমসের ফরেন্সিক প্রধান ডা. সুধীর গুপ্তা জানিয়েছেন, সুশান্তের মৃত্য়ু ‘গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্য়া’র ঘটনা।

সুশান্ত সিং রাজপুত

সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্য়াই করেছেন। তাঁকে খুন করা হয়নি। বলিউডের তরুণ প্রজন্মের অন্য়তম অভিনেতার খুনের তত্ত্ব উড়িয়ে এমনটাই জানাল এমসের মেডিক্য়াল বোর্ড। শনিবার এমসের ফরেন্সিক প্রধান ডা. সুধীর গুপ্তা জানিয়েছেন, সুশান্তের মৃত্য়ু ‘গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্য়া’র ঘটনা। উল্লেখ্য়, কয়েকদিন আগেই এমসের তরফে জানানো হয়েছিল যে, বিষপ্রয়োগে সুশান্তের মৃত্য়ু ঘটেনি।

এ প্রসঙ্গে ডা. গুপ্তা জানান, ”এটা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্য়ার ঘটনা। আমরা আমাদের চূড়ান্ত রিপোর্ট সিবিআই-কে পেশ করেছি”। গলায় ফাঁসের দাগ ছাড়া অভিনেতার দেহে কোনও আঘাতের চিহ্ন নেই বলে জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি শ্বাসরোধ করে হত্য়ার কোনও চিহ্ন নেই বলেও জানান তিনি। তবে, এর বাইরে বিশদে কিছু বলেননি তিনি।

উল্লেখ্য়, কয়েকদিন আগে, সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী বিকাশ সিং দাবি করেন, সুশান্তের ছবি তিনি এমসের এক ডাক্তারকে পাঠিয়েছিলেন। সেই চিকিৎসকই বলেছেন, যে ছবি পাঠানো হয়েছে, তা দেখে ২০০ শতাংশ নিশ্চিত সুশান্তকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে। এটা আত্মহত্য়া নয়।

আরও পড়ুন: ‘বিজেপির মুখ কালো হয়ে গিয়েছে’, সুশান্ত মৃত্য়ুতে এমসের রিপোর্ট নিয়ে খোঁচা কংগ্রেসের

প্রসঙ্গত, গত ১৪ জুন বান্দ্রার ফ্ল্য়াটে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় বলিউডের বর্তমান প্রজন্মের অন্য়তম উজ্জ্বল মুখ সুশান্ত সিং রাজপুতকে। সুশান্তের মৃত্য়ুর ঘটনায় তোলপাড় পড়ে যায় বলিউডে। সুশান্ত অবসাদে আত্মহত্য়া করেছেন বলে প্রাথমিক তদন্তে জানায় পুলিশ। কিন্তু কেন তিনি আত্মহত্য়া করলেন? নাকি তাঁর মৃত্য়ুর নেপথ্য়ে অন্য় কোনও রহস্য় লুকিয়ে রয়েছে, তার কিনারায় তদন্তে নেমেছে সিবিআই , ইডি-র মতো তদন্তকারী সংস্থা।

গত ২৫ জুলাই পটনায় সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী, তাঁর বাবা-মা ও ভাইয়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন অভিনেতার বাবা কে কে সিং। এরপর এফআইআর মামলা মুম্বইয়ে স্থানান্তরিত করা নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন রিয়া। পাশাপাশি সুশান্তের মৃত্য়ুর তদন্তভার সিবিআই-কে হস্তান্তর করার দাবি ওঠে বিভিন্ন মহলে। শেষমেশ সুশান্তকাণ্ডের তদন্তে যোগ দেয় সিবিআই। অন্য়দিকে, সুশান্তের অ্য়াকাউন্ট থেকে ১৫ কোটি টাকা গায়েব হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তাঁর বাবা। এই তদন্তে হাত লাগিয়েছে ইডি। এদিকে, সুশান্তকাণ্ডের তদন্তে নেমে মাদক যোগের সূত্র খুঁজে পান তদন্তকারীরা। এরপরই আসরে নামে এনসিবি। মাদক কারবারে ইতিমধ্য়েই গ্রেফতার হয়েছেন রিয়া, তাঁর ভাই শৌভিক।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Sushant singh rajputs death a case of hanging and death by suicide aiims medical board

Next Story
মোদীর ভাষণে উজ্জীবিত করণ জোহর, ‘বদল’ আনতে চান বলিউডে
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com