scorecardresearch

বড় খবর

‘হিন্দুরা দিন দিন মুসলমান হয়ে উঠছে’, কালী পোস্টার বিতর্কে ‘ঘি’ তসলিমার

মা কালীর মুখে সিগারেট! বিতর্কিত সিনেমার পোস্টার নিয়ে মুখ খুললেন তসলিমা নাসরিন।

‘হিন্দুরা দিন দিন মুসলমান হয়ে উঠছে’, কালী পোস্টার বিতর্কে ‘ঘি’ তসলিমার
তসলিমা নাসরিন

‘কালী’ তথ্যচিত্রের পোস্টার ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে। মা কালীর মুখে জ্বলন্ত সিগারেট এবং হাতে এলজিবিটি সম্প্রদায়ের প্রাইড পতাকা দেখে রে-রে করে উঠেছেন হিন্দুত্ববাদীরা। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে পরিচালক লীনা মণিমেকালাইয়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হওয়ার পাশাপাশি তাঁকে গ্রেপ্তারের দাবিও উঠেছে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বিতর্কের ঝড়। এবার হিন্দু দেবী কালীর মুখে সিগারেট ধরা সেই বিতর্কিত পোস্টার নিয়েই মুখ খুললেন তসলিমা নাসরিন।

তসলিমা বরাবরাই স্পষ্টবাদী। আর নারীদের হয়ে একাধিকবার মুখ খুলতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। অতঃপর কানাডাবাসী মালয়ালাম মহিলা পরিচালক লীনা যখন হিন্দুত্ববাদীদের রোষানলে, তখনও চুপ করে থাকলেন না লেখিকা। তলসিমার মন্তব্য, “হিন্দুরা দিন দিন মুসলমান হয়ে উঠছে।” প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগেই বিজেপি নেত্রী নুপূর শর্মার পয়গম্বরকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে দেশজুড়ে মুসলিমরা পথে নেমে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। সেই ঘটনার সঙ্গে কালীর বিতর্কিত পোস্টারকে মিশিয়ে দিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন তসলিমা নাসরিন।

[আরও পড়ুন: ‘ফুলশয্যায় ক্লান্তি’! গোপন কথা ফাঁস আলিয়ার, লজ্জায় মুখ ঢাকলেন করণ]

লেখিকার কথায়, “হিন্দুদের যে জিনিসটা আমার ভাল লাগে, তা হল তাঁদের ভগবানকে যে যে রূপেই দেখুক, যে যেভাবেই কল্পনা করুক, এমনকী ভগবানকে যা খুশি তাই বলুক, তাতে তাঁদের কিছু যায়-আসে না। কারণ তাদের গল্পে ভগবানদের নানারকম কীর্তি-কাহিনীর কথা লেখা। তাঁরা, মানুষের মতোই কখনও ভাল কাজ করেন। কখনও মন্দ কাজ করেন। আদিকাল থেকে মানুষ এক ভগবানকে মেনেছে, আরেক ভগবানকে মানেনি। অথবা সব ভগবানেরই সমালোচনা করেছেন। কিন্তু এখন অনেকে বলছে- এই ভগবানের গায়ে কাপড় নেই কেন? ওই ভগবানের মুখে সিগারেট কেন? সেই ভগবান সম্পর্কে সে কেন অমন কথা বলল? এতে আমাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লেগেছে। সুতরাং আঘাতকারীর মুণ্ডু চাই। এটা হিন্দুরা শিখেছে উগ্র মুসলিমদের কাছ থেকে।”

এখানেই অবশ্য থেমে থাকেননি তসলিমা। তিনি এও বলেন যে, “অথচ অনুভূতিতে আঘাত লাগার অজুহাতে উগ্র মুসলিমদের জ্বালাও-পোড়াও, ভাংচুর, ফাঁসি চাই, মুন্ডু চাই-কে হিন্দুরাই সবচেয়ে বেশি ঘৃণা করে। সেই প্রেক্ষিতেই আমার প্রশ্ন- যা ঘৃণা করো, তা গ্রহণ করো কেন, শুনি? উত্তর প্রদেশে এক মুসলমান চিকেন বিক্রেতা কাগজের ঠোঙায় চিকেন দেয় তার ক্রেতাদের। এখন অভিযোগ এসেছে, ওই কাগজের ঠোঙায় হিন্দু দেবতার ছবি ছিল। এতে নাকি হিন্দুদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লেগেছে। বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বিক্রেতা এখন জেলে। দুঃখ এই, হিন্দুরা দিন দিন মুসলমান হয়ে উঠছে।” বিতর্কিত ‘কালী’ পোস্টার প্রসঙ্গে তসলিমা নাসরিনের এমন মন্তব্যের পরই শোরগোল পড়ে যায় নেটদুনিয়ায়।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Taslima nasrin on ongoing kaali poster controversy