scorecardresearch

বিপদে-আপদে আমজনতার পাশে, ‘ক্যানিং-এর মিনু’ এবার জননেত্রী

সিরিয়ালে রাজনীতি! ‘পিসির বায়োপিক নাকি?’ প্রশ্ন নেটদুনিয়ার।

বিপদে-আপদে আমজনতার পাশে, ‘ক্যানিং-এর মিনু’ এবার জননেত্রী
ক্যানিং এর মিনু

ধারাবাহিকের সঙ্গে বাস্তবের জীবনের খুব একটা মিল না থাকলেও, মাঝে মধ্যেই সেই হিসেব নিকেশ একটু হলেও মিলে যায়। মানুষের পাশে থেকে লড়াই করার, রুখে দাঁড়ানোর মত জেদ সকলের থাকে না। আর এবার সেই অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখাচ্ছে ক্যানিং এর মিনু। টিভির পর্দায় তার এই অদম্য সাহসের সঙ্গেই দর্শক মিল পাচ্ছেন রাজ্যের শীর্ষকর্তৃত্বের। মিনুর সঙ্গেই মমতা বন্দোপাধ্যায়ের তুলনা টানছেন তারা।

কালার্স বাংলার নতুন ধারাবাহিক নিয়ে উত্তেজনা তুঙ্গে। ক্যানিং এর মিনু নিজের সাহস এবং জেদকে সঙ্গী করেই কীভাবে জননেত্রী হয়ে ওঠে সেই গল্প বলবে এই ধারাবাহিক। মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে কাজ করতে যায় সে। তবে মনে সাহসের অন্ত নেই। অন্তত তার এই সাহসকে কুর্নিশ জানায় খোদ মুখ্যমন্ত্রী নিজে। তিনিই ভবিষ্যত বাণী করে বসেন যে একদিন এর জেরেই বিরাট মাপের জননেত্রী হবে সে! তার মধ্যে সবগুণ রয়েছে একজন নেত্রী হয়ে ওঠার, মানুষের পাশে দাঁড়ানোর।

এদিকে সিরিয়ালের প্রথম প্রোমো প্রকাশ্যে আসার সঙ্গে সঙ্গেই দর্শকদের মধ্যে হট্টগোল। তাদের সকলের একটাই বক্তব্য, এই সিরিয়াল মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জীবন ভিত্তিক। কেউ কেউ বলেই বসলেন, ওটা ক্যানিং এর নয়! আমাদের কালীঘাটের দিদি। মিশ্র প্রতিক্রিয়ায় ভাসছে সোশ্যাল মিডিয়া।

ভিডিও সৌজন্যে – কালারস বাংলা

আরও পড়ুন [ ‘জঘন্য, বাংলায় না জন্মালেই হত’, রাজ্যের ধুন্ধুমার পরিস্থিতিতে বিস্ফোরক শ্রীলেখা ]

মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে মিনুর আলাদাই কদর। তাকে সকলেই খুব ভালবাসেন। এখন জননেত্রী হওয়ার পথে কী বাঁধা বিপত্তি সে অতিক্রম করে সেটাই দেখার। আবার কেউ কেউ পুরনো ধারাবাহিক টেনেই বললেন, স্টার জলসার জনপ্রিয় সিরিয়ালে জবা কাজের লোক থেকে উকিল হয়েছিল, এবার কাজের লোক থেকে জননেত্রী – ভগবান জানে আর কি দেখব? প্রসঙ্গত, ‘ম’ অক্ষরের জেরেই দর্শকদের জানার ইচ্ছে আরও বেড়ে গেছে। ক্যানিং নাকি কালীঘাট – বিতর্ক তুঙ্গে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Television news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Canning er minu colors bangla serial getting so much attention