scorecardresearch

বড় খবর

Explained: চিকিৎসা গবেষণায় বিরাট সাফল্য! ভাইরাসের মাধ্যমে ইমিউনিটি বাড়ালে রোখা যায় ক্যানসার

অনকোলাইটিক ভাইরাস (OVs) হল এমন ভাইরাস, যেগুলো বেছে বেছে ক্যানসার আক্রান্ত কোষগুলোকে চিহ্নিত করে তাকে মেরে ফেলে।

Explained: চিকিৎসা গবেষণায় বিরাট সাফল্য! ভাইরাসের মাধ্যমে ইমিউনিটি বাড়ালে রোখা যায় ক্যানসার

ক্যানসার প্রতিরোধকারী ভাইরাস শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পারে। সাম্প্রতিক গবেষণায় এমনটাই জানা গিয়েছে। গবেষকরা জানতে চেয়েছিলেন, কোনও ভাইরাস কি শরীরকে ক্যানসারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করতে পারে? এই রোগটির আরও ভালোভাবে মোকাবিলা করতে ইমিউন সিস্টেমকে শক্তিশালী করে তুলতে পারে?

সেই ব্যাপারেই জানিয়েছে ক্যানসার সেল জার্নালে প্রকাশিত একটি নতুন গবেষণা। যেখানে বলা হয়েছে, ক্যানসারের বিরুদ্ধে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এবং ক্যানসার আক্রান্ত কোষগুলোকে চিনতে ও ধ্বংস করতে অনকোলাইটিক ভাইরাস সাহায্য করতে পারে। অনকোলাইটিক ভাইরাস (OVs) হল এমন ভাইরাস, যেগুলো বেছে বেছে ক্যানসার আক্রান্ত কোষগুলোকে চিহ্নিত করে তাকে মেরে ফেলে। আর, স্বাভাবিক কোষগুলোকে বাঁচায়। গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে যে এই ভাইরাসগুলো ক্যানসারের কোষগুলোকে চিনতে এবং শেষ করার জন্য ইমিউন সিস্টেম বা রোগ প্রতিরোধক শক্তি বা ক্ষমতাও বাড়ায়।

অনকোলাইটিক ভাইরোথেরাপির গবেষণা কিন্তু, অনেক আগেই ১৯৬০ এর দশকে শুরু হয়েছিল। কিন্তু, এই গবেষণায় দেরি হয়েছে। কারণ, ক্যানসারের চিকিৎসার জন্য অন্যান্য ভাইরাসের ওপর বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। তাই অনকোলাইটিকের গবেষণার ওপর পরবর্তী সময়ে ততটা জোর দেওয়া হয়নি। সর্বশেষ গবেষণায় মাইক্সোমা নামে এই ভাইরাসেরও ওপরও গবেষকদের নজর রয়েছে। ওই ভাইরাস দ্বারা সংক্রামিত টি-কোষ এক ধরণের ক্যানসার কোষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে পারে। যা অতীতে দেখা যায়নি।

আরও পড়ুন- পরিচারিকাকে নির্মম অত্যাচারের অভিযোগ, গ্রেফতার বিজেপি নেত্রী

এই গবেষণায় জানা গিয়েছে যে, ‘টি-কোষ এবং MYXV (মাইক্সোমা ভাইরাস) এর মধ্যে একটি অপ্রত্যাশিত সমন্বয় সাধনের ফলে কঠিন টিউমার সেলের অটোসিস শক্তিশালী হয়। যা টিউমার ক্লিয়ারেন্সে কাজে দেয়।’ চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা মনে করেন, অটোসিস হল কোষ ধ্বংসের একটি রূপ। যা কঠিন টিউমারগুলোর বিরুদ্ধে দারুণ কার্যকর। যা চিকিত্সার ক্ষেত্রেও সাহায্য করে।

গবেষকরা দেখেছেন, মাইক্সোমা সরাসরি ক্যানসার কোষকে টার্গেট করতে পারে। তাকে মেরে ফেলতে পারে। আর, মাইক্সোমা-থাকা টি-কোষগুলি অত্যন্ত ভালোভাবে কাজ করে। লক্ষ্যবস্তুর আশেপাশে থাকা ক্যানসার কোষগুলোকেও ধ্বংস করে দেয়। এই প্রক্রিয়াকে চিকিৎসার ভাষায়, ‘বাইস্ট্যান্ডার কিলিং’ বলা হয়। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ভাইরোথেরাপির সঙ্গে ইমিউনোথেরাপি মিলে ইমিউন সিস্টেমের নজরদারিতে থাকা ‘ঠান্ডা টিউমার’ বা পুরোনো টিউমারের সন্ধান করতে পারে। আর, তাকে ধ্বংস করার ক্ষমতা রাখে।

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Explained news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Cancer fighting viruses can boost bodys immune response